খুলনা | রবিবার | ১৯ জানুয়ারী ২০২০ | ৬ মাঘ ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

খালেদার মুক্তির দাবিতে নগরীতে বিএনপি’র সমাবেশ

সর্বশেষ দু’টি মামলায় নানান অপকৌশলে জামিনে দীর্ঘায়িত করছে সরকার

খবর বিজ্ঞপ্তি  | প্রকাশিত ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:৪৯:০০

বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে মহানগর ও জেলা বিএনপি আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, জনগণের ম্যান্ডেট ছাড়াই ডে-নাইট ইলেকশানে ভোট কেটে ব্যালট বাক্স ভরে ক্ষমতা দখল করেছে বর্তমান সরকার। সরকারের নিষ্ঠুর প্রতিহিংসার শিকার হয়ে আজ জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে রাজনৈতিক জীবনে ৫ বারের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশের সবক’টি বিভাগ থেকে মোট ২৩টি আসনে নির্বাচিত দেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। মিথ্যা বানোয়াট ঘঁষামাজা নথির ভিত্তিতে মামলায় তাঁকে সরকার আজ ৬৬৮ দিন বন্দী করে রেখেছে, যা অত্যন্ত অমানবিক এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত। সকল মামলায় একের পর এক জামিন পেলেও সর্বোচ্চ আদালতকে নজীরবিহীনভাবে ব্যবহার করে সর্বশেষ ২টি মামলায় নানান অপকৌশল করে তাঁর জামিন প্রাপ্তি দীর্ঘায়িত করছে সরকার। 
বক্তারা বলেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা এখন উদ্বেগের গন্ডি পেরিয়ে দারুণ সংকটাপন্ন। তাঁর অসুস্থতা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ২০১৮ সালের ৮ ফেব্র“য়ারি যে নেত্রী পায়ে হেঁটে আদালতে উপস্থিত হয়েছিলেন সময়ের পরিক্রমায় তাঁর হাত-পা এখন বেঁকে গেছে। প্রিজন সেলে বন্দি দেশনেত্রী এখন অন্যের সাহায্য ছাড়া উঠে দাঁড়াতে পারছেন না, সোজা হয়ে বসতে পারছেন না, নিজের হাতে খাবার তুলে খেতে পারছেন না। অবস্থা এতটাই ভয়াবহ যে, তিনি পঙ্গু হয়ে যাওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন। অথচ তাঁর শারীরিক অবস্থা নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সরকারের হুকুমে অসত্য সংবাদ পরিবেশন করছেন, যা এর গভীর চক্রান্তের অংশ। 
খালেদা জিয়া একজন নারী এবং বয়োবৃদ্ধ-এ সকল বিবেচনায় পৃথিবীর যে কোন সভ্য গণতান্ত্রিক দেশের বিচার ব্যবস্থায় তিনি জামিন পাওয়ার হকদার। তাঁর পরিবারের সদস্যরা বারবার দাবি করছেন যে, জামিন পেলে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়া হবে। পরিবারের এই মানবিক আবেদনেও স্বৈরাচার সরকারের কোন সাড়া নেই।  
বক্তারা আরো বলেন, মারাত্মক অসুস্থ দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার জামিনের ক্ষেত্রে নজীরবিহীন আচরণ করা হচ্ছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দেশনেত্রীর শারীরিক অবস্থা সম্পর্কিত মেডিকেল রিপোর্ট নির্দিষ্ট সময়ের প্রদানে সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে গুরুতর অপরাধ করা সত্ত্বেও আবার তাদেরকে সময় দিয়েছে। অথচ উল্টো ন্যায়বিচার বঞ্চিত আইনজীবীদের ন্যায্য প্রতিবাদ সম্পর্কে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়া হচ্ছে। দেশনেত্রীর জামিন পাবার অধিকার থেকে বঞ্চিত করার অপচেষ্টা থেকে সরকারকে বিরত থাকার আহ্বান জানান বক্তারা। অন্যথায় বিএনপিকে রাজপথের আন্দোলনে ঠেলে দিলে তার পরিণতি সম্পর্কেও ভেবে দেখতে সরকারকে হুঁশিয়ারী দেন তারা।
গতকাল রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে গণতন্ত্রের স্বার্থে খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনকে বেগবান করতে রাজপথেই এর সমাধান খুঁজতে হবে। দেশকে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির অবস্থা থেকে বাঁচাতে হলে অবিলম্বে দেশনেত্রীকে মুক্তি দিতে হবে বলে সমাবেশ থেকে জোর দাবি জানানো হয়। 
সভায় বক্তৃতা করেন মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, শাহারুজ্জামান মোত্তুজা, আমীর এজাজ খান, মীর কায়সেদ আলী, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আঃ রশিদ, এড. ফজলে হালিম লিটন, সিরাজুল হক নান্নু, সাইফুর রহমান মিন্টু, কামরুজ্জামান টুকু, মোল্লা মোশাররফ হোসেন মফিজ, খায়রুল ইসলাম জনি, রেহানা ঈসা, নাজমুল হুদা সাগর, একরামুল হক হেলাল, মোল্লা কবির হোসেন, শরিফুল ইসলাম বাবু প্রমুখ। সভায় কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা আঃ মান্নান। সভায় উপস্থিত ছিলেন শেখ মোশারফ হোসেন, স ম আঃ রহমান, শেখ ইকবাল হোসেন, গাজী তফসীর আহমেদ, এড. আঃ আজিজ, এড. শফিকুল ইসলাম জোয়াদ্দার খোকন, এম রহমান বাবুল, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, এড. মাসুম রশিদ, মোমরেজুল ইসলাম, আঃ রকিব মল্লিক, মোঃ মাহবুব কায়সার, নজরুল ইসলাম বাবু, মেজবাউল আলম, মেহেদী হাসান দীপু, মহিবুজ্জামান কচি, শাসসুল আলম পিন্টু, শাহিনুল ইসলাম পাখী, আজিজুল হাসান দুলু, ইকবাল হোসেন খোকন, আঃ রহিম বক্স দুদু, জালু মিয়া, মোঃ শাহজাহান, সাদিকুর রহমান সবুজ, গিয়াস উদ্দিন বনি, মুশফিকুর রহমান লিটন, এনামুল কবির, সুলতান মাহমুদ, ইউসুফ হারুন মজনু, সাজ্জাদ আহসান পরাগ, মুন্সি কামাল, কেএম হুমায়ুন কবির, মাসুদ পারভেজ বাবু, হাসানুর রশিদ মিরাজ, শামসুজ্জামান চঞ্চল, মাহবুব হাসান পিয়ারু, ফারুক হিল্টন, আঃ রাজ্জাক, কামরান হাসান, নিয়াজ আহমেদ তুহিন, জাফরী নেওয়াজ চন্দন, হাফেজ আবুল বাসার, কাজী মিজানুর রহমান, ওয়াজউদ্দিন সান্টু, আনিসুর রহমান, নিয়মত আলী, মুজিবর রহমান ফয়েজ, নাজির উদ্দিন নান্নু, ইমাম হোসেন, জহর মীর, জামিরুল ইসলাম, হাসান মেহেদী রিজভী, কামাল শিকদার, এড. মোঃ আলী বাবু, হাফিজুর রহমান মনি, বদরুল আনাম, আফসার মাস্টার, আহসান উল্লাহ বুলবুল, শরিফুল আনাম, হাবিব বিশ্বাস, জামাল উদ্দিন, আঃ লতিফ, ইসহাক সরদার, তরিকুল্লাহ খান, রফিকুল ইসলাম শুকুর, খান মুজিবর, শাহাবুদ্দিন মন্টু, ওমর ফারুক, বাবু মোড়ল, আকরাম হোসেন খোকন, মেজবাউদ্দিন মিজু, রবিউল ইসলাম রবি, মহিউদ্দিন টারজান, ওহেদুর রহমান দীপু, নাসির খান, বাচ্চু মীর, তৌহিদ খোকন, মোল্লা ফরিদ আহমেদ, কাজী মাহমুদ আলী, কামরুল ইসলাম সিপার, মিজানুর রহমান লিটন, শাহনাজ ইসলাম, গোলাম কিবরিয়া আশা, আঃ সালাম, জসিম উদ্দিন লাবু, মোস্তফা কামাল, শামসুল বারী পান্না, ফরহাদ হোসেন, রাহাত আলী, এনামুল কবির ডায়মন্ড, নিরু কাজী, আঃ রহমান, খন্দকার ফারুক হোসেন, সেলিম সরদার, তানভিরুল আজম রুম্মন, হেমায়েত হোসেন, মোল্লা কবির হোসেন, ইমতিয়াজ আলম বাবু, মেহেদী হাসান সোহাগ, মাসুদ রানা ডাব্লু, আনসার চৌধুরী, আঃ রহমান ডিনো, আলমগীর হোসেন, সাইমুন ইসলাম রাজ্জাক, ডাঃ আলমগীর হোসেন, শাহাদাৎ হোসেন, শেখ আবু সাইদ, দিদারুল ইসলাম, মনিরুল ইসলাম ভূট্টো, মাওলানা আঃ সালাম, আনজিরা খাতুন, রোকেয়া ফারুক, নাসিমা পলি, নাসিমা আলম, রোজিনা খাতুন, মনিরা ও সালেহা প্রমুখ।  
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ

শহিদ জিয়ার ৮৪তম জন্মবার্ষিকী আজ

শহিদ জিয়ার ৮৪তম জন্মবার্ষিকী আজ

১৯ জানুয়ারী, ২০২০ ০১:০২













ব্রেকিং নিউজ

শহিদ জিয়ার ৮৪তম জন্মবার্ষিকী আজ

শহিদ জিয়ার ৮৪তম জন্মবার্ষিকী আজ

১৯ জানুয়ারী, ২০২০ ০১:০২