খুলনা | রবিবার | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ | ১ পৌষ ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

বশেমুরবিপ্রবিতে প্রশ্নফাঁসে ৭ শিক্ষার্থী হামলার ঘটনায় ৬ জন বহিষ্কার

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি | প্রকাশিত ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:৩৯:০০

বশেমুরবিপ্রবিতে প্রশ্নফাঁসে ৭ শিক্ষার্থী হামলার ঘটনায় ৬ জন বহিষ্কার

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৩ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এর মধ্যে গত ৬ জনকে ২১ সেপ্টেম্বর সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় সম্পৃক্ত থাকায় এবং ৭ জনকে ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস চক্রের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে বহিষ্কার করা হয়েছে। 
গতকাল রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. নূরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত পৃথক অফিস আদেশে (বশেমুরবিপ্রবি/র/ জ.প্র/একা/৪১/১২০৭(১৫) ও (বশেমুরবিপ্রবি/র/জ.প্র/৪১/১২০৮(০৭) এ তথ্য জানা গেছে।
সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় সম্পৃক্ত থাকায় বহিষ্কৃত হওয়া ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ৬ শিক্ষার্থী হলেন রাফিজুল ইসলাম, নুরুদ্দীন নাহিদ, আরিফুল ইসলাম সাকিব, মাজহারুল ইসলাম মিশন, রাহাত আল আহসান ও ইসমাইল শেখ। এদের মধ্যের ৫ জনকে স্থায়ীভাবে  এবং  ইসমাইল শেখকে দুই সেমিস্টারের জন্য  বহিষ্কার করা হয়েছে। এর আগে গত ৫ নভেম্বর এই ছয় শিক্ষার্থীকে শোকজ নোটিশ প্রদান করা হয়। 
বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. নুরুদ্দীন আহমেদ জানান, গত ২১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা তদন্তে ২০ অক্টোবর গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে এই বহিষ্কার আদেশ প্রদান করা হয়েছে। অন্যদিকে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস চক্রের সাথে জড়িত থাকায় সাত শিক্ষার্থীকে একাডেমিক কার্যক্রম থেকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বহি®কৃত সাত শিক্ষার্থী হলেন এ.আই.এস বিভাগের এমবিএ শিক্ষার্থী বাবু শিকদার বাবু, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের (৩য় বর্ষে) শিক্ষার্থী মোঃ নয়ন খান, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের (৩য় বর্ষে) নিয়ামুল ইসলান, আইন বিভাগের (৩য় বর্ষ) অমিত গাইন, আইন বিভাগের (২য় বর্ষ) মানিক মজুমদার, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের (২য় বর্ষ) রনি খান, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের (৩য় বর্ষে) মনিমুল হক।
অফিস আদেশ থেকে জানা যায়, গত ৯ নভেম্বর ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার পূর্বে আনুমানিক ২টা ৩০ মিনিটে একটি গোয়েন্দা সংস্থা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায় এ প্রতারক চক্রকে আটক করে। বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা কমিটি কাছে ওই সাতজন শিক্ষার্থীর সংশ্লিষ্টতা প্রমাণিত হয়। ফলে তাদেরকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দুই সেমিস্টার একাডেমিক (জুলাই-ডিসেম্বর ২০১৯, জানুয়ারি-জুন ২০২০) এবং হল থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হয়।
এ বিষয় রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. নুরউদ্দিন আহমেদ জানান” শৃঙ্খলা কমিটি সিন্ধান্ত অনুযায়ী এ শাস্তি প্রদান করা হয়েছে।
উলে­খ্য, প্রশ্নফাঁসের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে গোপালগঞ্জ সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ






বিজয়ের মাস ডিসেম্বর 

বিজয়ের মাস ডিসেম্বর 

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:৫১








ব্রেকিং নিউজ






বিজয়ের মাস ডিসেম্বর 

বিজয়ের মাস ডিসেম্বর 

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:৫১