খুলনা | রবিবার | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ | ১ পৌষ ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

স্মৃতি পরিষদ খুলনার আয়োজিত আলোচনায় বক্তারা

মাওলানা ভাসানীই দ্বিধাহীন বলতেন পিন্ডির কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছি দিল­ীর দাসত্বের জন্য নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:৩২:০০

মাওলানা ভাসানীই দ্বিধাহীন বলতেন পিন্ডির কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছি দিল­ীর দাসত্বের জন্য নয়

মজলুম জননেতা মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনায় বক্তারা বলেছেন, ইতিহাসের কিংবদন্তী এই মহাপুরুষ আজীবন শোষিত বঞ্চিত নিপীড়িত মানুষের অধিকার আদায়ে সোচ্চার ছিলেন। ব্রিটিশ আমলে জমিদারদের শোষনের বিরুদ্ধে কথা বলা থেকে শুরু করে স্বাধীন বাংলাদেশে ভারতীয় স¤প্রসারণ ও আধিপত্যবাদের বিরুদ্ধে কথা বলতে, প্রতিবাদ করতে কুণ্ঠাবোধ করেননি মাওলানা ভাসানী। ভাসানীই সেই জাতীয়তাবাদী নেতা যিনি দ্বিধাহীন চিত্তে গর্জে উঠতে পারতেন, তিনি বলতেন, ‘আমরা পিন্ডির কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছি, দিল­ীর দাসত্ব করার জন্য নয়।’ স্বাধীনতার পর তৎকালীন শাসকগোষ্ঠীর অপশাসন-দুঃশাসন লুটপাটের বিরুদ্ধে রাজপথে আন্দোলনের অনুপ্রেরণা দানকারী নেতা হিসেবে লক্ষ কোটি তরুণের স্বপ্ন পূরুষ ও আশা-ভরসার আশ্রয়স্থল ছিলেন মাওলানা ভাসানী। ভারতের পানি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে মাওলানা ভাসানী ছিলেন আগুনের হুল্কা। ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সাথে পত্র মারফত বাহাসে বাংলাদেশের স্বার্থে তার দীপ্ত এবং তীর্যক ভাষা স¤প্রসারণবাদীদের বুকে কাঁপন ধরিয়েছিল। 
মাওলানা ভাসানী স্মৃতি পরিষদ খুলনার আয়োজনে গতকাল রবিবার বিকেল ৩টায় খুলনা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় আলোচকরা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। আলোচনা শেষে মরহুম জননেতা মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীসহ দেশের সেবায় আত্মনিয়োগকারী সকলের জন্যে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
বক্তারা আরও বলেন, মাওলানা ভাসানীই বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রষ্টা। ঐতিহাসিক কাগমারী সম্মেলনে ‘ওয়ালাইকুম আস্সালাম’ উচ্চারণের মাধ্যমে পশ্চিম পাকিস্তানের শাসকগোষ্ঠীকে স্বাধীনতার বার্তা প্রদান করেছিলেন।
স্মৃতি পরিষদের আহŸায়ক সিনিয়র আইনজীবী গাজী আব্দুল বারীর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব শেখ মুশাররফ হোসেনের সঞ্চালনায় আলেচনা সভায় বক্তৃতা করেন, ভাষা সৈনিক এড. বজলার রহমান, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর মুজিবর রহমান, সাবেক ন্যাপ নেতা সিনিয়র আইনজীবী মঞ্জুরুল আলম, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর আব্দুল মান্নান, কেসিসি’র সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনি, সাবেক সংসদ সদস্য শেখ মুজিবর রহমান, অধ্যক্ষ মমতাজ বেগম, ভাসানী অনুসারী সাবেক ছাত্রনেতা সিরাজুল ইসলাম, বিশিষ্ট সংস্কৃতি কর্মী রোজী রহমান প্রমুখ। 
আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও নগর শাখার সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খান, সৈয়দ রেহানা ঈসা, ইকবাল হোসেন, স ম আব্দুর রহমান, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আব্দুর রশিদ, কেএম আশরাফুল আলম নান্নু, কামরুজ্জামান টুকু ও আসাদুজ্জামান মুরাদসহ জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক, সাংবাদিক, উন্নয়ন ও সাংস্কৃতিক কর্মীবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলোয়াত ও দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মাওলানা আব্দুল মান্নান।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ






বিজয়ের মাস ডিসেম্বর 

বিজয়ের মাস ডিসেম্বর 

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:৫১








ব্রেকিং নিউজ






বিজয়ের মাস ডিসেম্বর 

বিজয়ের মাস ডিসেম্বর 

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:৫১