খুলনা | শুক্রবার | ২২ নভেম্বর ২০১৯ | ৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

লাশ আসছে আজ, শায়িত হবেন মা-বাবার পাশে

এমপি মঈন উদ্দিন খান বাদল আর নেই

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ০৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০১:০১:০০

চট্টগ্রাম ৮ (চাঁদগাও-বোয়ালখালী) আসনের তিনবারে সংসদ সদস্য ও জাসদ নেতা মঈন উদ্দিন খান বাদল আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন...আমরা তো আল্লাহর এবং আমরা আল্লাহর কাছেই ফিরে যাবো)। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর নারায়ণ হৃদরোগ রিচার্স ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স হয়েছিলো ৬৭ বছর।
এদিকে সংসদ সদস্য মঈন উদ্দিন খান বাদলের লাশ আজ শুক্রবার দেশে আসছে। চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে মা-বাবার পাশে পারিবারিক কবরস্থানে সমাহিত করা হবে তাকে। বাদলের ছোট ভাই মনির উদ্দিন আহমদ খান বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, ‘বাড়ির পাশে পারিবারিক কবরস্থানে পিতা-মাতার পাশেই বাদল ভাইকে দাফনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। গতকাল শুক্রবার লাশ দেশে পৌঁছালে জানাজার সময় নির্ধারণ করা হবে।’
মঈন উদ্দিন খান বাদলের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাদলের গ্রামের বাড়ি সারোয়াতলীর খান মহলে বিরাজ করছে সুনসান নীরবতা। বাড়ির সামনে চলছে শেষ বারের মতো বাদলকে শ্রদ্ধার সঙ্গে বিদায় জানানোর প্রস্তুতি। পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে বাদল তৃতীয়। তার তিন ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।
জানা গেছে, ২ বছর আগে ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে মঈন উদ্দিন খান বাদল গুরুতর অসুস্থ ছিলেন। পাশাপাশি তার হৃদরোগের সমস্যাও ছিল। গত ১৮ অক্টোবর নিয়মিত চেকআপের জন্য নারায়ণ হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নেয়া হলে চিকিৎসকের পরামর্শে সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।
মঈন উদ্দিন খান বাদল ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্র“য়ারি জন্মগ্রহণ করেন। তিনি জাসদের একাংশের কার্যকরী সভাপতি ছিলেন। তিনি ২০০৮ সালে চট্টগ্রাম-৭ আসন ও ২০১৪ ও ২০১৮ সালে চট্টগ্রাম-৭ এর সাংসদ হিসেবে নির্বাচিত হন।
১৯৫২ সালের ২১ ফেব্র“য়ারি জন্ম নেয়া বাদল বোয়ালখালী উপজেলা জাসদের সভাপতি ছিলেন। তিনি চট্টগ্রাম-৮ আসনের তিনবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য ছিলেন। ছাত্রলীগের রাজনীতি থেকে উঠে আসা বাদল ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন। বাঙালিদের ওপর আক্রমণের জন্য পাকিস্তান থেকে আনা অস্ত্র চট্টগ্রাম বন্দরে সোয়াত জাহাজ থেকে খালাসের সময় প্রতিরোধের অন্যতম নেতৃত্বদাতা ছিলেন বাদল। মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে বাদল সমাজতান্ত্রিক রাজনীতির প্রতি আকৃষ্ট হন। জাসদ, বাসদ হয়ে পুনরায় জাসদে আসেন। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে ১৪ দল গঠনেও বাদলের উল্লেখযোগ্য ভূমিকা ছিল। 
শোক : জাসদ নেতা মঈন উদ্দিন খান বাদলের মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছেন বাংলাদেশ জাসদ খুলনা জেলা ও মহানগর, ছাত্রলীগÑবিসিএল ও যুব জোটের নেতৃবৃন্দ। বিবৃতিদাতারা হলেন বাংলাদেশ জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও নগর সভাপতি রফিকুল হক খোকন, সাবেক ছাত্র নেতা আব্দুর রউফ গাজী, জেলা কমিটির আহ্বায়ক কাজী হাসনাত হোসেন কমিট, যুগ্ম-আহ্বায়ক মোঃ আজমল হোসেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগÑবিসিএল কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি মোঃ হাসান, জাতীয় যুব জোটের নগর সভাপতি মাসুদ রানা, যুব জোট (ভারপ্রাপ্ত) সাধারণ সম্পাদক মোঃ আকবর শেখ প্রমুখ। 
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ