খুলনা | শনিবার | ২৩ নভেম্বর ২০১৯ | ৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

আদালতে জবানবন্দি নাজমুস সাদাতের

বড় ভাইদের নির্দেশে আবরারকে ডেকে আনেন তিনি

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০৪:০০

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন আরও এক বুয়েট ছাত্র। তাঁর নাম এ এস এম নাজমুস সাদাত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত মঙ্গলবার তাঁর জবানবন্দি রেকর্ড করেন।
এর আগে পুলিশ আসামি নাজমুস সাদাতকে আদালতে হাজির করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করে। জবানবন্দি রেকর্ড শেষে নাজমুস সাদাতকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। ১৬ অক্টোবর আবরার হত্যা মামলার আসামি নাজমুস সাদাতকে পাঁচ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন আদালত।
আদালত সূত্র জানিয়েছে, নাজমুস সাদাত জবানবন্দিতে বলেছেন, বড় ভাইদের নির্দেশে আবরার ফাহাদকে ডেকে আনেন তিনি। পরে আবরার ফাহাদকে অন্য আসামিরা নির্যাতন করে হত্যা করেন।
আবরার হত্যা মামলায় এ নিয়ে আটজন আসামি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেন। তাঁরা হলেন অনিক সরকার, ইফতি মোশাররফ, মেহেদী হাসান ওরফে রবিন, মেফতাহুল ইসলাম, মুজাহিদুল, মনিরুজ্জামান মনীর, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম ও এ এস এম নাজমুস সাদাত।
আবরার ফাহাদ বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) ছাত্র ছিলেন। বুয়েটের শেরেবাংলা হলের নিচতলায় ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন আবরার। ৬ অক্টোবর রাত আটটার দিকে তাঁকে কক্ষ থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে চকবাজার থানায় মামলা করেন। আবরার হত্যা মামলায় ২০ জন আসামি গ্রেফতার হয়েছেন।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ