খুলনা | মঙ্গলবার | ২২ অক্টোবর ২০১৯ | ৭ কার্তিক ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

জাতীয় ক্রিকেট লীগ শুরু হচ্ছে আজ

এবারও শিরোপায় চোখ খুলনার

আব্দুল্লাহ এম রুবেল | প্রকাশিত ১০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:২২:০০

ওয়ালটন ২১তম জাতীয় ক্রিকেট লীগের পর্দা উঠছে বৃহস্পতিবার। এক মৌসুম আগে টানা তিনবারের চ্যাম্পিয়ন খুলনা বিভাগ গত মৌসুমে একেবারেই ভালো করেনি। কোনমতে রেলিগেশন এড়িয়েছে। তবে এ মৌসুমে শিরোপা পুনরুদ্ধার করতে চায় তারা। লীগ শুরুর আগে খুলনা বিভাগীয় দলের ভাবনা নিয়ে এমন কথাই বললেন অধিনায়ক আব্দুর রাজ্জাক ও কোচ ইমদাদুল বাশার রিপন। বুধবার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে অনুশীলন শেষে সংবাদ মাধ্যমের সাথে আলাপকালে তারা এ লক্ষ্যের কথা জানান। অধিনায়ক রাজ্জাক জানিয়েছেন নিজের ব্যাক্তিগত লক্ষ্যের কথাও। 
নতুন মৌসুমে লক্ষ্যের কথা বলতে গিয়ে গত মৌসুমের স্মৃতির কথাও মনে করলেন রাজ্জাক। বলেন, গত বছর যে বাজে পারফরমেন্স গেছে সেটা এর আগে কখনও হয়নি। গত বছর আমাদের টায়ার ওয়ানে থাকা নিয়েই স্ট্রাগল করতে হয়েছে। এবার আমাদের লক্ষ্য অবশ্যই ভালো শুরু করা এবং ভালোভাবে শেষ করা। ভালো বলতে অবশ্যই চ্যাম্পিয়ন হওয়া। চেষ্টা করবো যেন চ্যাম্পিয়ন হতে পারি। আগে থেকেই কিছুই বলা যায় না। এই চেষ্টা সব দলেরই থাকে। আমাদেরও সেই চেষ্টাই থাকবে। বাকিটা পারফরন্সের উপর ডিপেন্ড করে। 
দলের পরিকল্পনা যখন অনেকটাই করা হয়ে গেছে তখনই জানা গেছে দলের সাথে থাকছেন না মেহেদী হাসান মিরাজ আর মুস্তাফিজুর রহমান। দলে নেই গুরুত্বপূর্ণ আরও তিন ক্রিকেটার এনামুল হক বিজয়, নুরুল হাসান সোহান আর মোঃ মিঠুন। একসাথে অনেকগুলো ক্রিকেটার না থাকায় একটু চাপে আছে খুলনা। ম্যাচ নিয়ে নিজেদের প¬্যানিং নিয়ে রাজ বলেন, খুলনা টিম আসলে সব সময়ই এমনই চলে। তবে একসাথে তিনটা চারটা গ্যাপ হয়ে গেলে একটু কঠিন হয়। তবে আশা করছি যারা নতুন এসেছে তারা ভালো করবে। আমি আশা করি নতুন যারা আছে তারা ওদের অভাবটা বুঝতে দিবে না। 
হঠাৎ করেই মোস্তাফিজ আর মিরাজকে না পাওয়ায়  টিম মিটিংয়ে নতুন করে পরিকল্পনা করতে হয়েছে অধিনায়ক আর কোচকে। অধিনায়ক জানান, আমরা গতকাল জানতে পেরেছি ওদেরকে পাচ্ছি না। আমরা টিমও সাজিয়ে ফেলেছিলাম ওদেরকে নিয়ে। বাট যেহেতু আসতে পারছে না, সেখানে সেটা নিয়ে পরে থাকলে তো হবে না। আর ওরা খেলবে না এটা তো ওদের সিদ্ধান্ত না। বোর্ডের সিদ্ধান্ত। বোর্ড যেহেতু মনে করেছে জাতীয় ইস্যুতে তাদেরকে এই ম্যাচ না খেলানোর জন্য সেহেতু সেটাই ঠিক। তবে হ্যা, আমাদের পরিকল্পনায় বড় ধরনের পরিবর্তন আনতে হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত আমাদের হিসেবের মধ্য্যেই ওরা ছিলো। নতুন করে দু’জন খেলোয়াড়কে যুক্ত করা হয়েছে। ফলে আমাদের প¬্যানিং চেঞ্জ করা লাগছে। কারণ ওরা থাকলে আমরা একভাবে এগোতে পারবো। আর একটা ন্যাশনাল টিমের পে¬য়ার আর একটা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের খেলোয়াড় তো এক হতে পারে না। এটাই সত্য। তবে এর মানে এই নয় যে, ইয়ং পে¬য়ার যে খারাপ খেলবে সেটা আমি ধরে নিয়ে বসে থাকবো এটা না। তারা থাকলে ভালো হতো। তবে যেহেতু নাই, তাই যা আছে তাই নিয়ে আমাদের পরিকল্পনা সাজাতে হবে। আর সব ঠিক থাকলে তাদের কাছ থেকে সেরাটা পাওয়া যাবে। 
দল নিয়ে অধিনায়ক রাজ্জাকের মতো কোচ ইমদাদুল বাশার রিপনেরও লক্ষ্য শিরোপা। গত বছর আমরা কেন খারাপ করেছি। সেটা নিয়েই আমাদের টিম মিটিংয়ে অনেক কথা হয়েছে। গত বছরেরর পারফরমেন্স মাথায় রেখেই নতুন করে আমরা প¬্যান করেছি। আশা করিছ, আমরা যে প¬্যান করেছি, সেটা যদি মাঠে ছিক থাকে আগের মতোই আমরা ভালো ফল করবে। 
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ