খুলনা | মঙ্গলবার | ২২ অক্টোবর ২০১৯ | ৭ কার্তিক ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

এবার জাতীয় লীগের পয়েন্ট  বন্টনে আমূল পরিবর্তন

ক্রীড়া প্রতিবেদক  | প্রকাশিত ০৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:২৩:০০

এবার জাতীয় লীগের পয়েন্ট  বন্টনে আমূল পরিবর্তন

জাতীয় ক্রিকেট লিগ বা এনসিএলের পয়েন্ট পদ্ধতিতে এসেছে আমূল পরিবর্তন। ব্যাটিংয়ে আড়াইশর বেশি প্রতিটি রানের জন্য মিলবে ০.০১ পয়েন্ট করে। বোলিংয়ে পাওয়া যাবে সর্বোচ্চ ১.৫ পয়েন্ট। টানা জয়ের জন্য এবার আছে বোনাস পয়েন্ট। প্রতিটি জয়ের জন্য পাওয়া যাবে ৮ পয়েন্ট। টাই ম্যাচের জন্য প্রতিটি দল পাবে ৪ পয়েন্ট করে। ড্র ও পরিত্যক্ত ম্যাচে প্রতিটি দল পাবে ২ পয়েন্ট করে। ব্যাটিং ও বোলিং দুই ক্ষেত্রেই বোনাস পাওয়া যাবে কেবল প্রথম ১০০ ওভারের পারফরম্যান্সের জন্য।  
ব্যাটিংয়ে বোনাস মিলবে কেবল প্রথম ইনিংসে। প্রথম ১০০ ওভারে ২৫০ রানের বেশি প্রতিটি রানের জন্য ০.০১ পয়েন্ট করে মিলবে। যেমন ১০০ ওভারে ৩৫০ রানের জন্য পাওয়া যাবে ১ পয়েন্ট। এবার প্রথম ইনিংসে লিডের জন্য নেই কোনো বোনাস পয়েন্ট।
বোলিং বোনাস পয়েন্টও মিলবে কেবল প্রথম ইনিংসে। প্রথম ১০০ ওভারে ৫ উইকেট নেওয়ার জন্য পাবে ০.৫ পয়েন্ট। ৭ উইকেট নিলে পাওয়া যাবে ১ পয়েন্ট। নয় বা তার বেশি উইকেটের জন্য ১.৫ পয়েন্ট। বোলিংয়ে সর্বোচ্চ পাওয়া যাবে দেড় পয়েন্ট।
বোনাস পয়েন্ট পাওয়ার জন্য হয় দুই দলেরই প্রথম ইনিংস শেষ হতে হবে নয়তো দুই দলকেই অন্তত ১০০ ওভার খেলতে হবে। কোনো এক দলের প্রথম ইনিংস শেষ হলে আর প্রতিপক্ষ ১০০ ওভার খেললে কি হবে তা বলা নেই প্লেয়িং কন্ডিশনে। টানা দুই জয়ের জন্য ১ বোনাস পয়েন্ট, টানা ৩ জয়ে ২, টানা ৪ জয়ে ৩, টানা ৫ জয়ে ৪ ও সব ম্যাচ জিতলে ৫ পয়েন্ট পাওয়া যাবে। 
সর্বোচ্চ পয়েন্ট পাওয়া দল জিতবে শিরোপা। পয়েন্ট সমান হলে প্রথমে দেখা হবে বেশি জয়, পরে দেখা হবে কম পরাজয়। এই দুই বিচারেও সমতা থাকলে দেখা হবে দুই দলের নিজেদের মধ্যে লড়াইয়ের পয়েন্ট। সেটাও সমান হলে আসবে বেশি উইকেটের হিসাব। এখানেও সমতা থাকলে দেখা হবে বেশি রান।
কোনো দল ওয়াকওভার দিলে প্রতিপক্ষ পূর্ণ ম্যাচ পয়েন্ট পাবে। ওয়াকওভার দেওয়া দলের খেলোয়াড়দের পরের ম্যাচের জন্য ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানা করা হবে। সংশ্লিষ্ট বিভাগীয় অ্যাসোসিয়েশনকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হবে। এরপর বিসিবি আরও বড় কোনো শাস্তি দিতে পারে।
প্রথম স্তরে আছে খুলনা, রাজশাহী, রংপুর ও ঢাকা। দ্বিতীয় স্তরে আছে বরিশাল, সিলেট, চট্টগ্রাম ও ঢাকা মেট্রো। প্রথম স্তরের চতুর্থ দল পরের আসরে খেলবে দ্বিতীয় স্তরে। দ্বিতীয় স্তরের সেরা দল খেলবে প্রথম স্তরে। ৮০ ওভার পর বাধ্যতামূলকভাবে নতুন বল নিতে হবে।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ