খুলনা | বুধবার | ২৩ অক্টোবর ২০১৯ | ৮ কার্তিক ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

দুই নারী কর্মীসহ আটক ১৪২ জনের দণ্ড, অস্ত্র ও ২০ লাখ ৪৪ হাজার টাকা জব্দ

অবৈধ ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযান যুবলীগ নেতা খালেদ গ্রেফতার

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০১:৩৯:০০

অবৈধ জুয়া ও ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে ঢাকা দক্ষিণ মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এছাড়া একটি অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র এবং লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গের অভিযোগে দু’টি অস্ত্র জব্দ করা হয়েছে। পাশাপাশি তাঁরা মালিকানাধীন রাজধানীর ফকিরাপুলের ইয়াং ম্যান্স ক্লাবে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অর্থ জব্দ করা হয়েছে। আটক দুই নারীকর্মীসহ ১৪২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ড দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।
গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় গুলশান-২ এর নিজ বাসা থেকে খালেদ মাহমুদকে গ্রেফতার করা হয়। আর ইয়াং ম্যান্স ক্লাবে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে অভিযান শুরু হওয়া ওই অভিযানে নেতৃত্বে দেন র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম ও র‌্যাব-৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান।  
খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, অবৈধ জুয়া ও ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
র‌্যাবের অপর এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, গ্রেফতার সময় খালেদ মাহমুদের কাছে দু’টি আগ্নেয়াস্ত্র ছিল। এর একটির লাইসেন্স নেই। অপরটির লাইসেন্সের মেয়াদ উত্তীর্ণ। র‌্যাবের অভিযানে ইয়াং ম্যানসে ক্লাব থেকে ১৪২ জনকে আটক করা হয়েছে। আটক এসব ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁরা সেখানে অবৈধ জুয়া ও মদ পানের আসর জমিয়েছিলেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, র‌্যাবের কাছে অভিযোগ আছে, এই ক্লাবে গত আট মাস ধরে অবৈধ আসর বসত। অভিযানের সময় তাঁরা দেখতে পান, ক্লাবের নিচ তলায় যন্ত্রের মাধ্যমে জুয়া খেলা (ক্যাসিনো) চলছে। এছাড়া জুয়া খেলার ফাঁকে ফাঁকে মদ পান হচ্ছে।
সারওয়ার আলম জানান, যারা এই ক্লাবে এসেছে তারা বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ও ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। আটক ব্যক্তিদের মদ পানের লাইসেন্স নেই। তিনি জানান, ইয়ায় ম্যান্স ক্লাবেরও মদ বিক্রির লাইসেন্স নেই।
সারওয়ার আলম সন্ধ্যার পর আরও বলেন, এখন পর্যন্ত জুয়া খেলায় ব্যবহার হওয়া ২০ লাখ ৪৪ হাজার টাকা জব্দ করা হয়েছে। আটক ব্যক্তিরা তাদের দোষ স্বীকার করেছেন। অভিযান আরও চলবে।
র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, ছয়জন কর্মচারীসহ ৩১ জনকে এক বছর এবং বাকিদের ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। ক্যাসিনোর ম্যানেজার একজন নেপালি। অভিযানের খবর পেয়ে তিনি পালিয়ে গেছেন। তার বিষয়ে খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে।
র‌্যাব সূত্র জানায়, দোতলা বিশিষ্ট ওই ক্লাবের নিচ তলায় ছিল ক্যাসিনো। আর পাশের একটি কক্ষে ছিল ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে জুয়া খেলার ব্যবস্থা। এই দুই জায়গা থেকেই ওই ১৪২ জনকে আটক করা হয়।
রেলওয়ে কলোনিতে বেড়ে ওঠা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া ফকিরাপুলের ওই ক্লাবের সভাপতি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত শনিবার আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় যুবলীগ নেতাদের নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশের পর আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনটির প্রভাবশালী নেতা খালেদকে ধরতে অভিযান নামে র‌্যাব।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ

প্রখ্যাত সুফিসাধক খানজাহান (রহঃ)

প্রখ্যাত সুফিসাধক খানজাহান (রহঃ)

২৩ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:৪১