খুলনা | রবিবার | ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

অধিকাংশই ভারতীয় ও চীনা নাগরিক

খুলনায় বিদেশীদের ভিসা ইস্যূ বেড়েছে

এন আই রকি | প্রকাশিত ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০১:৩৫:০০

খুলনায় বিদেশীদের ভিসা ইস্যূ বেড়েছে

রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও খুলনা-মোংলা রেলপথ স্থাপন, সিটি কর্পোরেশনে পানি সরবরাহ ব্যবস্থায় ওয়াসাকে সহযোগীতাসহ বিভিন্ন এনজিওতে সম্প্রতিকালে খুলনায় বেড়েছে বিদেশীদের সংখ্যা। পাশ্ববর্তী দেশ ভারত, চীন, কোরিয়া, আমেরিকা, ইংল্যান্ড থেকেই এ অঞ্চলে বিদেশীরা বিভিন্ন কাজে আসছেন। এর মধ্যে টুরিষ্ট, ষ্টুডেন্ট, এ-থ্রি (সরকারি প্রকল্পে ভিসা), ইনভেষ্ট, ব্যবসায়ী, গবেষণা এবং ধর্মীয় ভিসার কারণে বিদেশীদের আনোগোনাই বেশী। নগর ও জেলা মিলে খুলনায় অবস্থান করছেন প্রায় ৩’শতাধিক বিদেশী । যার ফলে তাদের নিরাপত্তাও জোরদার করেছে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন। 
বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিস থেকে জানা যায়, গত তিন বছরে এ অঞ্চলে বিদেশীদের ভিসা ইস্যূ করে সরকারের রাজস্ব আয় হয়েছে ৪৭ লাখ ৮৬ হাজার ৩২৩ টাকা। ২০১৬ সালে ২৪৭জন, ২০১৭ সালে ২৯৪ এবং ২০১৮ সালে ৭৪৯জন। ভিসা ইস্যূর মধ্যে ৯০ ভাগই ভারত ও চীনের বিদেশীরা। গত বছরে গড়ে প্রতি মাসে ৬২ জন বিদেশীর ভিসা ইস্যূ করা হয়।
পুলিশের সূত্র জানায়, বর্তমানে নগরীতে প্রায় আড়াইশ ও জেলায় ২৮ জন বিদেশী আছেন। যা প্রতিদিনই পরিবর্তনশীল। সম্প্রতি জেলা থেকে বিদেশীদের বড় একটা টিম বাংলাদেশ ছেড়েছে। বর্তমানে যে সকল বিদেশীরা খুলনায় আছেন তাদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে। বিশেষ করে হোটেলগুলোতে সার্বক্ষনিক পুলিশের উপস্থিতি, প্রতিদিন বিদেশীদের আউটডেট তথ্য সংগ্রহ, বিদেশীদের কর্মক্ষেত্রে সিকিউরিটি পার্টিসহ স্ব স্ব থানার পুলিশের মাধ্যমে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে। 
স্থানীয় সূত্রমতে, নগরীতে সুপেয় খাবার পানি সরবরাহ প্রকল্পে বাস্তবায়নে কাজ করছে ওয়াসা। এই কাজে সহযোগীতা করছেন বেশ কয়েকজন চীনা নাগরিক। তারা বিভিন্ন হোটেলসহ ওয়াসার নির্ধারিত জায়গায় থাকছেন। এছাড়া খুলনা-মোংলা রেললাইন স্থাপনের কাজে সহযোগিতার জন্য রূপসা এলাকায় অবস্থান করছেন ভারতীয় ও চীনা নাগরিক। বাগেরহাটে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনে যে সকল বিদেশীরা সহযোগিতা করছেন তাদের মধ্যে চীনা ও ভারতের নাগরিকের সংখ্যা বেশি। এছাড়া উপকূলবর্তী কিছু এলাকার উন্নয়নের জন্য এনজিতে কাজ করছেন বিদেশী নাগরিক। 
নগর বিশেষ শাখার বিশেষ পুলিশ সুপার রাশিদা বেগম বলেন, ‘নগরীর প্রত্যেক হোটেল আমাদের নজরদারিতে আছে। পাশাপাশি কোন বিদেশী নগরীতে আসার সাথে সাথে আমাদের চিঠি দেওয়া হয়। সেক্ষেত্রেও তাদের ২৪ ঘন্টা নিরাপত্তা দেয়া হয়।’ 
জেলা পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ জানান, যে সকল এলাকায় বিদেশীরা থাকেন স্ব স্ব থানা পুলিশ তাদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিয়ে থাকেন। 
বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের পরিচালক তৌফিকুল ইসলাম খান বলেন, খুলনা অঞ্চলে বিদেশীদের যাতায়াত বেড়েছে। যার মধ্যে ভারত, চীন, ইংল্যান্ড, আমেরিকা উল্লেখযোগ্য। গত তিন বছরে এ অফিস থেকে বিদেশীদের ভিসা ইস্যূর পরিমাণ বেড়েছে। প্রতি মাসে গড়ে ৬০জন বিদেশীর ভিসা ইস্যূ করা হচ্ছে।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ