খালিশপুর ক্লিনিকে চিকিৎসক লাঞ্ছিতের ঘটনায় দু’টি মামলা : আটক দু’জন কারাগারে 


নগরীর খালিশপুরে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে কর্তব্যরত চিকিৎসককে চিকিৎসক লাঞ্ছিতের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এদিকে বিভিন্ন দাবিতে গতকাল বিএমএ খুলনা ও বিপিএমপিএ যৌথভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে। তবে ধর্মঘটের নির্দিষ্ট সময়ের পরও খুমেক হাসপাতালের বহির্বিভাগের বেশির ভাগ রুমেই চিকিৎসক দেখা যায়নি। ভোগান্তিতে ছিলো দূর-দূরান্ত থেকে আসা সাধারণ রোগীরা।
মনির হোসেন রিপন (২৪) নামে সাবেক এক ক্রিকেটারের মৃত্যুতে চিকিৎসককে মারপিটের ঘটনায় গ্রেফতার দু’জনের বিরুদ্ধে পৃথকভাবে দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আহত চিকিৎসক সুজা উদ্দিন সোহাগ গত রবিবার সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন (নং-০৯)। অপহরনের পর মারপিটের অভিযোগ এনে আরও একটি মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলায় খালেদ মামুন কায়েস (৩১) ও ইমাম বাকের কৌশিক (২৫) কে আসামি করা হয়েছে। এই মামলায় দু’জনের ৩ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ। শুনানীর জন্য আগামী বৃহস্পতিবার দিন নির্ধারণ করেছেন মহানগর হাকিম মোঃ শাহীদুল ইসলাম। 
অপর দিকে একই দিনে খালেদ মামুন কায়েস (৩১)’র নামে একই থানায় পিএসআই মোঃ আবু জাফর বাদী হয়ে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে অপর একটি মামলা করেছেন (নং-০৮)। আদালত গতকাল সোমবার তাদের দু’জনকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন।    
এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল বিএমএ ও বিপিএমপিএ খুলনা জেলা শাখা বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। বিএমএ’র সহ-সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ ধীরাজ মোহন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে ও প্রচার ও জন-সংযোগ সম্পাদক ডাঃ সুমন রায় এর সঞ্চালনায় নির্ধারিত বিক্ষোভ সমাবেশ সাতরাস্তা মোড়ের শহিদ ডাঃ মিলন চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিএমএ খুলনা ও স্বাচিপ সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোঃ মেহেদী নেওয়াজ, সহ-সভাপতি ডাঃ গাজী মিজানুর রহমান, স্বাচিপের জেলা সভাপতি ডাঃ এস এম সামছুল আহসান মাসুম, ডাঃ বঙ্গ কমল বসু, ডাঃ তুষার আলম ও ডাঃ শৈলেন্দ্র নাথ বিশ্বাস, ডাঃ মোঃ সওকাত আলী লস্কর, ডাঃ গৌতম রায়, ডাঃ মোঃ রাসেল, ডাঃ সাগর মোল্লা, খুমেক ছাত্রলীগ সভাপতি ডাঃআশানুর ইসলাম, ডাঃ আশিকুর রহমান। বিক্ষোভ সমাবেশে একাত্মতা প্রকাশ করে খুলনা বিপিএমপিএ, বিপিসিডিওএ সহ চিকিৎসকদের কয়েকটি সংগঠন ও বিভিন্ন স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ। 
তবে চিকিৎসকদের নির্ধারিত কর্মবিরতির পরও গতকাল খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বহির্বিভাগের বেশিরভাগ কক্ষেই চিকিৎসক ছিল না। দূর-দূরান্ত থেকে আসা রোগীরা পরে দারুণ ভোগান্তিতে। ডাক্তার দেখাতে না পেরে ফিরে গেছেন অনেক রোগীই। 


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।