খুলনা | শনিবার | ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৬ আশ্বিন ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

নেতৃত্ব প্রত্যাশীদের মাঝে ক্ষোভ

মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি দিয়ে চলছে খুলনা জেলা ছাত্রলীগের কার্যক্রম

আল মাহমুদ প্রিন্স | প্রকাশিত ০৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:৫৬:০০

মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি দিয়ে চলছে খুলনা জেলা ছাত্রলীগের কার্যক্রম। বর্তমান কমিটির মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে আরও দুই বছর আগে। সম্মেলন হতে বিলম্ব হওয়ায় নেতৃত্ব প্রত্যাশীদের মধ্যে বিরাজ করছে চরম ক্ষোভ। সর্বশেষ ২০১৭ সালের ২৯ জুলাই নগরীর হোটেল টাইগার গার্ডেনে জেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন হতে বিলম্ব হওয়ায় পদপ্রত্যাশীদের মধ্যে বিরাজ করতে চরম হতাশা। তবে জেলার নয় উপজেলা ও ১৪টি কলেজের সম্মেলন শেষে জেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে এমনই দাবি করেছেন দলের এক শীর্ষ নেতা।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২৯ জুলাই নগরীর হোটেল টাইগার গার্ডেনে আয়োজিত জেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনে মোঃ পারভেজ হাওলাদারকে সভাপতি ও মোঃ ইমরান হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। সম্মেলনের প্রায় ছয় মাস পর ২০১৮ সালের ৫ ফেব্র“য়ারি জেলা ছাত্রলীগের ২৩০ সদস্যের লম্বা কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়।
এদিকে জেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের পর নেতা-কর্মীদের মধ্যে বিরোধ যেন লেগেই আছে। সর্বশেষ কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন নিয়ে সৃষ্টি হয় নানাবিধ জটিলতা। যার বহিঃপ্রকাশ ঘটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে রূপসা উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণার করা হয়। কিন্তু এখনও নতুন কমিটি গঠন হয়নি। শিগগির কমিটি না হওয়ায় ঝিমিয়ে পড়েছে দলের কর্মীরা।
এদিকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সাংগঠনিক ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার কাজে লিপ্ত থাকায় জেলা ছাত্রলীগের উপ-সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক মোঃ মাসুদুর রহমান মানিককে কারণ দর্শানো নোটিশ দেয়া হয়। গত ১৬ জুন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ পারভেজ হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমরান হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এছাড়া দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সংগঠন পরিপন্থী কর্মকান্ডে জড়িত থাকায় এবং সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার কাজে লিপ্ত থাকার দায়ে জেলা ছাত্রলীগের সদস্য কাজী তরিকুল ইসলামকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। একই সাথে তাকে ছাত্রলীগ থেকে চূড়ান্ত বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে সুপারিশ করা হয়।
জানা গেছে, আগামী দিনে জেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসতে সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকায় রয়েছেন বর্তমান কমিটির সিনিঃ সহ-সভাপতি মারুফ হোসাইন, সিনিঃ যুগ্ম-সম্পাদক তানভীর রহমান আকাশ, যুগ্ম-সম্পাদক মৃনাল কান্তি বাছাড়, আরাফাত হোসেন, শুভ সেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আশিকুজ্জামান তানভির, আতিক শাহরিয়ার, প্রচার সম্পাদক চিশতী নাজমুল বাশার সম্রাট, আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক শেখ মোঃ রাসেল। এছাড়াও আলোচনায় রয়েছে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক এএইচএম কামাল, কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম সাইফ, বিএল কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শেখ মোঃ শাকিল।
জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ পারভেজ হাওলাদার বলেন, ‘জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশীদ, শেখ সোহেল ও শেখ সারহান নাসের তন্ময় ভাই যে দিক নির্দেশনা দিবেন সেভাবে চলবো। তিনি আরও বলেন, ‘নয় উপজেলা ও ১৪টি কলেজের মধ্যে যেখানে যেখানে কমিটি নেই, সেখানে সেখানে কমিটি গঠনের পর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনের তারিখ ধার্য্য করা হবে।’

 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ








জাতীয় পার্টিতে ভাঙনের সুর!

জাতীয় পার্টিতে ভাঙনের সুর!

২৪ জুলাই, ২০১৯ ০০:৩৩






ব্রেকিং নিউজ











‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আরো অবনতি’

‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আরো অবনতি’

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:৪৩