খুলনা | বৃহস্পতিবার | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

সুন্দরবন থেকে বাঘের মরদেহ উদ্ধার

২২ অগাস্ট, ২০১৯ ০১:০৬:০০

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন থেকে একটি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের মরদেহ উদ্ধার করেছে বন বিভাগ। গত মঙ্গলবার দুপুরে সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের ছাপড়াখালী এলাকা থেকে মৃত বাঘটি উদ্ধার করা হয়। গতকাল বুধবার দুপুরে রেঞ্জ অফিসে বাঘটির ময়না তদন্ত করা হয়েছে। বার্ধক্যজনিত কারণে বাঘটির মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে বনবিভাগ ও প্রাণি চিকিৎসকরা। বাঘটির দৈর্ঘ্য লেজসহ প্রায় ৮ ফুট এবং উচ্চতা আড়াই ফুট।
পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা (এসিএফ) মোঃ জয়নাল আবেদীন জানান, গত মঙ্গলবার কটকা অভয়ারণ্য কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল বারীর নেতৃত্বে বনরক্ষীদের একটি দল বনে নিয়মিত টহল দিচ্ছিল। এ সময় ছাপড়াখালী বনের মধ্যে বাঘটি শোয়া অবস্থায় দেখে তারা প্রথমে ভয় পান। বেশ কিছুক্ষণ পর্যবেক্ষণ করার পর নড়াচড়া না করায় তাদের সন্দেহ হয়। কাছে গিয়ে বাঘটি মৃত অবস্থায় দেখতে পেয়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করেন তারা। পরে রেঞ্জ কর্মকর্তার নির্দেশে বাঘটি উদ্ধার করে  গতকাল বুধবার সকালে রেঞ্জ অফিসে নিয়ে আসা হয়। 
খুলনা অঞ্চলের বন্যপ্রাণি ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের ডিএফও মদিনুল আহসান বলেন, বাঘটির বয়স আনুমানিক ১৭-১৮ বছর। স্বাভাবিকভাবে একটি বাঘ এরকমই বয়স পেয়ে থাকে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি স্বাভাবিক মৃত্যু। 
মোড়েলগঞ্জ উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন ও শরণখোলার ভেটেরিনারী সার্জন মোঃ আলাউদ্দিন মাসুদ ময়না তদন্ত শেষে জানান, বাঘটির গায়ে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। দাঁত, নখ সবই ঠিক রয়েছে। মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হতে ফরেন্সিক পরীক্ষার জন্য লিভার, মগজসহ প্রয়োজনীয় আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া মৃতদেহটি বাঘিনীর এবং সাত ফুট লম্বা। এর আগে গত মঙ্গলবার দুপুরে সুন্দরবন থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার হলেও গতকাল বুধবার দুপুরে বিষয়টি গণমাধ্যমকর্মীদের অবহিত করা হয়। 
সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোঃ মাহমুদুল হাসান বলেন, চাপড়াখালী এলাকায় টহলের সময় বনরক্ষীরা বাঘের মৃতদেহটি দেখতে পায়। পরে তারা বাঘটি উদ্ধার করে শরণখোলা রেঞ্জ কার্যালয়ে নিয়ে আসে। বাঘটির কিছু অঙ্গ প্রতঙ্গ সংগ্রহ করে বন বিভাগের ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। যাতে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যায়। তিনি আরও বলেন, মৃত বাঘটির চামড়া আমরা সংরক্ষণ করবো। দেহটি শরণখোলা রেঞ্জ কার্যালয়ের অভ্যন্তরে মাটি চাপা দেয়া হবে।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ