খুলনা | বৃহস্পতিবার | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

তেরখাদায় নাঈম হত্যা মামলা 

গ্রেফতার ইউপি চেয়ারম্যান দ্বীন ইসলাম একদিন, তিনজন দু’দিনের রিমান্ডে 

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ২২ অগাস্ট, ২০১৯ ০০:৪৯:০০

গ্রেফতার ইউপি চেয়ারম্যান দ্বীন ইসলাম একদিন, তিনজন দু’দিনের রিমান্ডে 


হত্যা মামলায় তেরখাদা উপজেলার ছাগলাদাহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দ্বীন ইসলামসহ গ্রেফতার ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। পুলিশের ৭ দিনের রিমান্ড আবেদনের শুনানী শেষে ইউপি চেয়ারম্যান দ্বীন ইসলামকে ১ দিন এবং মাহাবুর শেখ (৩৪), কেরামত মল্লিক (৩২) ও খায়রুল শেখকে (৩০)’র ২ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়। গতকাল বুধবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাইফুজ্জামান এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)’র অফিসার ইনচার্জ মোঃ তোফায়েল আহমেদ জানান, তেরখাদা উপজেলার ছাগলাদাহ ইউনিয়নের পহড়ডাঙ্গা গ্রামের পিরু শেখের ছেলে নাঈম শেখকে পূর্ব শত্র“তা ও রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তারের জন্য হত্যা করা হয়েছে। আলোচিত এ জোড়া হত্যাকান্ডের এজাহারভুক্ত আসামি খালিদ ও সাইফুল ইতোপূর্বে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। তাদের দেয়া জবানবন্দীতে এ হত্যাকান্ডে ইউপি চেয়ারম্যান দ্বীন ইসলামসহ গ্রেফতার বাকী তিনজনের জড়িত থাকার তথ্য রয়েছে। বিজ্ঞ আদালতে নির্দেশ মতে তাদেরকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। 
তিনি আরও জানান, গত ২০ আগস্ট রাতে তেরখাদা উপজেলার ছাগলাদাহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দ্বীন ইসলাম, মাহাবুর শেখ, চেয়ারম্যানের গাড়ি চালক কেরামত মল্লিক (৩২) ও খায়রুল শেখকে (৩০) কে গ্রেফতার করা হয়। 
মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণী থেকে জানা গেছে, গত ৬ আগস্ট দিবাগত গভীর রাতে তেরখাদা উপজেলার ছাগলাদাহ পহড়ডাঙ্গা গ্রামে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে নাঈম শেখকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এঘটনায় তার পিতা পিরু শেখ গুরুতর জখম হয়।  তিনি বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় ৮ আগস্ট পিরু শেখের স্ত্রী মাফুজা বেগম ১৭ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১০/১২ জনের বিরুদ্ধে তেরখাদা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ