খুলনা | বৃহস্পতিবার | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ |

প্লাস্টিকের ব্যবহার কমাতে সচেতনতা জরুরী 

১৯ অগাস্ট, ২০১৯ ০০:০০:০০

প্লাস্টিকের ব্যবহার কমাতে সচেতনতা জরুরী 

পরিবেশ মানবজীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। আমরা সবাই পরিবেশকে কেন্দ্র করে বেঁচে থাকি এবং নানাভাবে পরিবেশ দূষিত করি। বস্তুত আমরা প্রতিনিয়ত পরিবেশ দূষণ করে চলছি, আর ধ্বংস করছি প্রকৃতির প্রাণ বৈচিত্র। সাম্প্রতিককালে পরিবেশ দূষণের একটি প্রধান কারণ হল প্লাস্টিক বর্জ্য।আমরা প্রতিনিয়ত প্লাস্টিক ব্যবহার করছি এবং পরিবেশকে দূষিত করছি। সত্য বলতে কী, প্লাস্টিক দ্রব্যের ব্যবহার আমাদের দৈনন্দিন কাজে এতটাই বৃদ্ধি পেয়েছে যে, বেশিরভাগ মানুষের কাছেই প্লাস্টিক দ্রব্য ছাড়া জীবনযাপন প্রায় অসম্ভব মনে হতে পাড়ে। সদ্য জন্ম নেয়া শিশুটির মুখে দেয়া চুষনি, দুধের বোতল থেকে শুরু করে আমাদের দৈনন্দিন খাবার প্লেট, জগ, গ্লাস, বাটিসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনীয় জিনিসই তৈরি হয় প্লাস্টিক দিয়ে। কিন্তু এই প্লাস্টিক পরিবেশের ওপর কতটা নেতিবাচক প্রভাব ফেলে, তা কি আমরা ভেবে দেখেছি?
আমরা প্রতিদিন অতি ন্যূনতম কাজেও প্লাস্টিক ব্যবহার করি এবং প্রয়োজন শেষে তা ফেলে দেই। আমাদের ব্যবহৃত এই প্লাস্টিক পদার্থগুলোই পর্যায়ক্রমে বর্জ্য আকারে পরিবেশ দূষণ করছে। আমাদের চারপাশে একটু ভালো করে দৃষ্টি রাখলেই প্লাস্টিক বর্জ্য দ্বারা পরিবেশ দূষিত হওয়ার প্রক্রিয়াটি দেখতে পাব। প্লাস্টিক বর্জ্য দ্বারা সবচেয়ে বেশি দূষিত হচ্ছে শহুরে এলাকাগুলো। বলতে গেলে গোটা দেশে এমন কোনো নগর-মহানগর আবিষ্কার করা সত্যিই কঠিন, যেখানে প্লাস্টিক বর্জ্য দ্বারা পরিবেশ দূষিত হচ্ছে না। তবে অন্যান্য দেশে এ ব্যাপারে সচেতনতা বাড়ছে এবং প্লাস্টিকের ব্যবহার কমিয়ে আনতে তারা নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে। দেশের প্রতিটি শহর এলাকা দিয়ে বয়ে চলা নদীগুলোর দুর্দশা আমাদের সহজেই চোখে পড়ে। নদীগুলো যেন গোটা শহরের ডাস্টবিন! আর সেই ডাস্টবিন রূপী নদীগুলো বহন করে চলেছে বিষাক্ত প্লাস্টিক বর্জ্যে স্তুপ। আমাদের পরিবেশের এক বিরাট অংশ আজ প্লাস্টিক দূষণের শিকার। কৃষকের চাষ করা জমিতে মিশে আছে প্লাস্টিক বর্জ্য, মাছ চাষের পুকুরে ভেসে আছে প্লাস্টিক বর্জ্য, পথচলার রাস্তাটুকু ভরে আছে প্লাস্টিক বর্জ্য, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়- সবকিছু ছেয়ে আছে প্লাস্টিক বর্জ্যে। ফলে পরিবেশ দূষিত হচ্ছে প্রতিনিয়ত আর মানুষকে পোহাতে হচ্ছে নানা দুর্ভোগ।
পরিবেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদানগুলো যেমন- মাটি, পানি, বায়ু প্রতিনিয়ত প্লাস্টিক দ্বারা দূষিত হচ্ছে। এছাড়া প্লাস্টিক স্টিরিন নামক ক্ষতিকর পদার্থ নির্গত করে, যা মানবদেহে তৈরি করতে পারে ক্যান্সারের মতো মরণব্যাধি। মোটকথা, প্লাস্টিক পদার্থটি কোনোভাবেই পরিবেশ ও মানবজীবনের জন্য উপকারী নয়। বরং এর ব্যবহারে পরিবেশ যেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, তাতে এর বড় ধরনের মাশুল দিতে হচ্ছে মানুষকে। তাই পরিবেশ দূষণ রোধকল্পে প্লাস্টিক দ্রব্য ব্যবহার কমিয়ে আনার ব্যাপারে সবাইকে তৎপর হতে হবে এবং ব্যবহৃত প্লাস্টিক পণ্য যত্রতত্র না ফেলে এগুলো নির্দিষ্ট স্থানে ফেলতে হবে। আমাদের সবার এ বিষয়ে সচেতন হওয়া প্রয়োজন। যত দ্রুত প্লাস্টিক পণ্য ব্যবহার থেকে নিজেদের বিরত রাখব, তত দ্রুত প্লাস্টিক দূষিত পরিবেশ থেকে নিজেদের মুক্ত করতে পারব।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ




আমাদের উচ্চশিক্ষার মান  কেন এই অধোগতি?

আমাদের উচ্চশিক্ষার মান  কেন এই অধোগতি?

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০




আজ পবিত্র আশুরা

আজ পবিত্র আশুরা

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০






ব্রেকিং নিউজ