খুলনা | রবিবার | ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

শ্রীশ্রী মনসা পূজা আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১৮ অগাস্ট, ২০১৯ ০০:৩৮:০০

শ্রীশ্রী মনসা পূজা আজ


শ্রীশ্রী মনসা পূজা আজ রবিবার। এ উপলক্ষে নগরীর বাইতিপাড়ায় মনসা বাড়িতে তিন দিনব্যাপী বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠান সূচির মধ্যে রয়েছে ঘট স্থাপন, মায়ের পূজা, অঞ্জলি প্রদান, প্রসাদ বিতরণ ও মনসা মঙ্গল গান। সনাতন ধর্মমতে, মা মনসা সর্পের দেবতা এবং শিবের কন্যা। স্বর্গের দেবতারা মা মনসাকে দেবী হিসেবে মেনে নিতে রাজি ছিলেন না। তবে চম্পক নগরের চাঁদ সওদাগর যদি তার পূজা করেন তবে তিনি স্বর্গের দেবী হিসেবে স্বীকৃতি পাবেন। দেবী মনসা চম্পক নগরে নিয়ে চাঁদ সওদাগরকে তাঁর পূজা করতে বলেন। চাঁদ সওদাগর বলেন, আমি তোমার পিতা শিবের পূজা করি, সেই হাতে তোমার পূজা করতে পারবো না। তখন চম্পক নগরে অন্যান্য গৃহে মা মনসার পূজা শুরু হয়। চাঁদ সওদাগর সেখানে পূজার আয়োজন হয় সেখানে গিয়ে তিনি বিগ্রহ ভেঙে পূজা করতে নিষেধ করেন। এতে মা মনসা রুষ্ট হন। চাঁদ সওদাগর মনসার কোপে পড়েন। চাঁদ সওদাগরের সপ্ত নৌবহর সমুদ্রে ডুবে যায়। নিজে প্রাণে রক্ষা পেলেও ছয় পুত্রের সলিল সমাধি হয়। চাঁদ সওদাগর গৃহে ফিরে এসে দেখেন তাঁর লখিনধর নামে তার এক পুত্রের জন্ম হয়েছে। উপযুক্ত বয়সে তিনি পুত্রের বিবাহের আয়োজন করেন রাজকন্যা বেহুল্লার সঙ্গে। বিবাহ শেষে বাসর রাতে লখিনধরের সর্প দংশনে মৃত্যু হয়। বেহুলা অযুত যোজন ভেলায় ভাসিয়ে স্বর্গলোকে গিয়ে তার স্বামী লখিনধরের প্রাণ ফিরে পান এবং দেবতাদের কাছে অঙ্গীকার করেন যে, তিনি তার শ্বশুর চাঁদ সওদাগরকে দিয়ে মা মনসার পূজা করাবেন। গৃহে ফিরে এসে বেহুলা তার শ্বশুরকে মা মনসার পূজা করতে বলেন। তখন চাঁদ সওদাগর বাম হস্ত দিয়ে দেবীকে পুষ্পাঞ্জলি প্রদান করেন। দেবী মনসা স্বর্গলোকে দেবী হিসেবে স্বীকৃতি পান। সেই থেকে মর্তবাসী সবাই শ্রাবণ মাসের শেষের দিনে এ পূজা করে।
নগরীর বাইতিপাড়া মনসা মন্দিরে তিন দিনব্যাপী এই পূজার আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠান সূচির মধ্যে রয়েছে ঘট স্থাপন, মায়ের পূজা, অঞ্জলি প্রদান ও মনসা মঙ্গল গান। রূপসা মহাশ্মশান পূজা মন্দিরে এই অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া গ্রাম এলাকায় প্রত্যেক গোত্রে এই পূজা অনুষ্ঠিত হয়। সাপ দেখলে অথবা সাপ নিয়ে কোন স্বপ্ন দেখলে কাঁচা দুধ ও কলা দিয়ে মা মনসার পূজা করেন। এই পূজা করলে মা মনসা কৃপা করেন ও সাপের ভয় দূর হয় এবং পরিবার পরিজন নিয়ে সবাই সুখে থাকেন।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ




খুলনায় জমে উঠেছে প্রাণের মেলা  

খুলনায় জমে উঠেছে প্রাণের মেলা  

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৯




দীর্ঘ ১৬ দিন পর সচল হলো বশেমুরবিপ্রবি 

দীর্ঘ ১৬ দিন পর সচল হলো বশেমুরবিপ্রবি 

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৭






ব্রেকিং নিউজ




খুলনায় জমে উঠেছে প্রাণের মেলা  

খুলনায় জমে উঠেছে প্রাণের মেলা  

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৯




দীর্ঘ ১৬ দিন পর সচল হলো বশেমুরবিপ্রবি 

দীর্ঘ ১৬ দিন পর সচল হলো বশেমুরবিপ্রবি 

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৭



মাতৃভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু 

মাতৃভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু 

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৪

ভাষা আন্দোলনের দাবি আজও পূরণ হয়নি

ভাষা আন্দোলনের দাবি আজও পূরণ হয়নি

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৩৯