খুলনা | শনিবার | ১৯ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

সাতক্ষীরার আ’লীগ নেতা নজরুল হত্যা মামলায় গ্রেফতার তিন আসামির আদালতে স্বীকারোক্তি 

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি | প্রকাশিত ১১ অগাস্ট, ২০১৯ ০১:১৪:০০

সাতক্ষীরার আ’লীগ নেতা নজরুল হত্যা মামলায় গ্রেফতার তিন আসামির আদালতে স্বীকারোক্তি 

সাতক্ষীরার বহুল আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম হত্যা মামলায় গ্রেফতার তিন আসামি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। জেলে আটক নিহতের প্রতিবেশী আকবরের পরিকল্পনায় তার ছেলে খায়বরের নেতৃত্বে এই হত্যাকান্ড ঘটানো হয়েছে বলে গত বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরা চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তারা এই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে।
একটি দায়িত্বশীল সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কুচপুকুর গ্রামের আকবর আলির পরিবারের সাথে একই গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলামের পরিবারের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে একের পর এক হত্যাকান্ড ও হামলার ঘটনা ঘটেছে। পূর্ব শত্র“তার জের ধরে প্রথমে সিরাজুল ইসলাম পরে সিরাজুলের ছেলে জুয়েল ও সব শেষ সিরাজুলের ভাই আ’লীগ নেতা নজরুল ইসলামকে হত্যা করা হয়। 
হত্যা মামলার তিন আসামির আদালতে দেয়া ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে যে ভাবে আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলামকে হত্যা করা হয় তার বর্ণনা দেয়। তাদের বর্ণনা মতে সদর উপজেলার কুচপুকুর গ্রামের জামায়াত সমর্থক আকবর আলী বর্তমানে জেলে রয়েছেন। জেলে বসেই তার ছেলে খায়বর এর সাথে কয়েক দফা বৈঠক করে নজরুলকে হত্যার মিশন চূড়ান্ত করা হয়, দিনক্ষণও ঠিক করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় খায়বর বাইরে থেকে এক কিলারকে ভাড়া করে এলাকায় নিয়ে আসে। ঘটনার দিন সকাল থেকেই বাইরে থেকে আসা ওই কিলার ও খায়বরের নেতৃত্বে কুচপুকুর গ্রামের মুকুল, রিয়াদ এলাকায় অবস্থান নেয়। তারা মোটরসাইকেলে আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলামের গতিবিধির ওপর নজরদারি চালাতে থাকে। নজরুল ইসলাম স্থানীয় কদমতলা বাজার থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে তার পিছু নেয়  কিলাররা। পথিমধ্যে হাজামপাড়া এলাকায় পৌঁছানো সাথে সাথে নজরুল ইসলামের মোটরসাইকেলের কাছাকাছি গিয়ে গুলি চালায় তার উপর। গুলি লাগার পর ওই অবস্থায় জীবন বাঁচাতে মোটরসাইকেল কিছু দূর চালিয়ে নিয়ে যায়। এরপর মোটরসাইকেল থেকে রাস্তার পাশে পড়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মহিদুল ইসলাম  জানান, নজরুল ইসলাম হত্যার সাথে জড়িত থাকার  অভিযোগে মুকুল, রিয়াদ ও খায়বরের স্ত্রী ছাবিনা খাতুনকে গ্রেফতার করা হয়। গত বৃহস্পতিবার তাদেরকে সাতক্ষীর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। গ্রেফতারকৃত তিন আসামি আদালতে আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দী দিয়েছে। তারা হত্যার সাথে জড়িতদের নাম ও ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা  দিয়েছেন। 
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ








লবণচরায় এক বছরে তিন দফায় গরু চুরি

লবণচরায় এক বছরে তিন দফায় গরু চুরি

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:৫৩




পেঁয়াজের সাথে বেড়েছে সবজির দাম

পেঁয়াজের সাথে বেড়েছে সবজির দাম

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:৪৫


ব্রেকিং নিউজ









লবণচরায় এক বছরে তিন দফায় গরু চুরি

লবণচরায় এক বছরে তিন দফায় গরু চুরি

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:৫৩