রুনা খানের এবারও একই কান্ড 



কঠিন চরিত্রে রুনা খানের স্বপ্রতিভ উপস্থিতি বরাবরই দর্শককে মুগ্ধ করে আসছে। তার অভিনীত ‘কালো মেঘের ভেলা’ ছবিটি মুক্তি পেয়ে এবারও  ঘটলো তেমন। মৃত্তিকা গুণ পরিচালিত সরকারি অনুদানে নির্মিত ইমপ্রেস টেলিফিল্মের এ ছবি মুক্তি পেয়েছে গত ২৬শে জুলাই। এটি চলছে বসুন্ধরা স্টার সিনেপ্লেক্স ও যমুনা ব্লকবাস্টারে। কবি নির্মলেন্দু গুণের গল্পে এর চিত্রনাট্য করেছেন ফারুক হোসেন। সিনেমাটির গল্প মা রুনা খান ও ছেলে আপনকে নিয়ে। এখন পর্যন্ত যারাই সিনেমাটি হলে গিয়ে দেখেছেন তারাই মা ও ছেলের অনবদ্য অভিনয়ের প্রশংসা করছেন। প্রশংসা করছেন মৃত্তিকা গুণের নির্মাণ শৈলীরও।
দর্শকের কাছ থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রুনা খান তার দুর্দান্ত অভিনয়ের জন্য প্রশংসিত হচ্ছেন। রুনা বরাবরই চ্যালেঞ্জিং চরিত্র গুলোতে নিজেকে উজার করেই অভিনয় করেন। এর আগে সর্বশেষ তিনি তৌকীর আহমেদের ‘হালদা’ ও বদরুল আনাম সৌদের ‘গহীন বালুচর’ এ অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন। মুক্তির দিনেই প্রেক্ষাগৃহে বসে রুনা খান ‘কালো মেঘের ভেলা’ ছবিটি উপভোগ করেছেন। সঙ্গে ছিলেন নির্মলেন্দু গুণ ও মৃত্তিকা গুণসহ আরো অনেকে। রুনা খান বলেন, “শ্রদ্ধেয় নির্মলেন্দু গুণ যখন আমার অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন তখন আসলে নিজের মনের ভেতর অন্যরকম ভালোলাগা কাজ করেছিল। পাশাপাশি যারা সিনেমাটি দেখতে হলে গিয়েছিলেন তারাও আমার অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন। তবে আমি বলবো আমার ছেলে দুখু চরিত্রে আপনের অভিনয় আমার কাছে বেশি ভালো লেগেছে। আমাদের দেশে এই ধরনের শিশুতোষ চলচ্চিত্র নির্মাণ হয় না বললেই চলে। তাই এই সিনেমাটি দেখার জন্য সবার কাছে বিশেষ অনুরোধ রইলো।” রুনা খান জানান, তার অভিনীত ‘সাপলুডু’ সিনেমাটি শিগগিরই মুক্তি পাবে। এই সিনেমায়ও তার চরিত্র নিয়ে তিনি দারুণ আশাবাদী।


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।