খুলনা | শনিবার | ২৪ অগাস্ট ২০১৯ | ৯ ভাদ্র ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

কুষ্টিয়াসহ চার জেলায় গণপিটুনিতে নারীসহ ১১ জন জখম

নিজস্ব প্রতিবেদক ও কুষ্টিয়া প্রতিনিধি | প্রকাশিত ২৩ জুলাই, ২০১৯ ০০:৫০:০০

ছেলেধরা সন্দেহে প্রতিপক্ষকে জব্দ ও নিজের অপরাধ ধাকতে যেয়ে মানসিক ভারসাম্য হারানো, প্রতিবন্ধীসহ নানা বয়সের নারী-পুরুষকে গণপিটুনীর নামে হত্যা বা জখমে নেমেছে একশ্রেণীর মানুষ। দেশে আজ মানবতা যেন নিভৃতে কাঁদছে। সোমবারও দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘটেছে এধরণের ঘটনা।
কুষ্টিয়া : ষাটোর্ধ্ব হাসিনা খাতুন মানসিক ভারসাম্যহীন। চিকিৎসার জন্য একমাত্র মেয়ে তাঁকে নিজের বাড়িতে নিয়ে এসেছেন। মেয়ের বাড়ি কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার থানার পাশের উত্তরে মাস্টারপাড়ায়। প্রায় এক মাস ধরে তিনি মেয়ের বাসায় রয়েছেন। সোমবার সকালে হাসিনা খাতুন বাড়ি থেকে বের হয়ে একটা স্কুলের সামনে গেলে তাঁকে গণপিটুনি দেয় লোকজন। ঠিক ওই সময় ওই পথ দিয়ে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম খান যাচ্ছিলেন। জটলা দেখে তিনি থেমে দেখতে পান, হাসিনা খাতুনকে লোকজন মারধর করছে। সেখান থেকে তিনি হাসিনা খাতুনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে তাঁকে মেয়ের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়।
এর আগে শনিবার কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হরিপুর ও রবিবার কুষ্টিয়া শহরের ছয় রাস্তা মোড় এলাকায় দু’জন মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি দিয়েছিল জনগণ। পরে পুলিশ তাঁদের উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে। তবে সে ঘটনায় থানায় কোনো মামলা হয়নি।
নাটোর : জেলার সিংড়ায় ছেলেধরা সন্দেহে আলী আহমদ নামের মানসিক প্রতিবন্ধী তরুণকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। রবিবার সন্ধ্যায় সাতটায় সিংড়া পৌর শহরের মহেশচন্দ্রপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আটক যুবকের বাড়ি ফেনীর পরশুরামপুর উপজেলার বেরাবাড়িয়া গ্রামে। সত্যতা নিশ্চিত করেন সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম। 
মাদারীপুর : জেলা সদর উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নের  বৈরাগীর বাজার এলাকায় মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নের বৈরাগীর বাজারে সকালে মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে ঘুরতে দেখে ছেলে ধরা সন্দেহে আটক করা হয়। পরে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়। পরে পুলিশ গিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে।
রাজশাহী : জেলা চারঘাট উপজেলার নুরুর বটতলা এলাকায় ছেলেধরা সন্দেহে পাঁচ এনজিও কর্মীকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন চারঘাট মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলাম ।
ঢাকা : জেলা সাভারে ছেলেধরা সন্দেহে স্বামী-স্ত্রীকে পিটুনি দিয়েছে এলাকাবাসী। পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাদের দ্রুত উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পুলিশের দাবি, আটক স্বামী-স্ত্রী অজ্ঞান পার্টির সদস্য। 
এদিকে ছেলেধরা সন্দেহ সাভারের হেমায়েতপুর থেকে ১২ বছরের শিশুকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ












পেঁয়াজের বাজার বেসামাল

পেঁয়াজের বাজার বেসামাল

২৪ অগাস্ট, ২০১৯ ০০:৫৮