কালিয়ায় শ্বশুরবাড়ি এলাকা থেকে জামাতার মরদেহ উদ্ধার  


নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতি থানার জয়নগর গ্রামে শ্বশুরবাড়ি এলাকা থেকে জামাতা আক্কেল মোল্লার (৩৫) রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে একটি বাগান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আক্কেল গোপালগঞ্জ সদরের চরতালা গ্রামের এলেম মোল্লার ছেলে এবং পেশায় কৃষক। পরকীয়ার কারণে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে বলে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় কথিত প্রেমিকা মারুফা বেগমকে (৩০) আটক করা হয়েছে। তবে মারুফার স্বামী মাহবুব শেখসহ পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।  
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, আক্কেল মোল্লার সঙ্গে জয়নগর গ্রামের মাহবুব শেখের স্ত্রী মারুফার পরকীয়া সম্পর্ক চলছিলো বলে অভিযোগ রয়েছে। মাহবুবদের বাড়ির কাছেই দেবদুন গ্রামে আক্কেল মোল্লার শ্বশুরবাড়ি। তার শ্বশুরের নাম সরোয়ার মোল্লা। আক্কেল শ্বশুরবাড়িতে যাওয়া-আসার সূত্র ধরেই মারুফার সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। 
এ ব্যাপারে নড়াগাতি থানার ওসি আলমগীর কবির বলেন, পরকীয়ার জের ধরে আক্কেলকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তার ডান চোখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে এবং রক্তক্ষরণ হয়েছে। এ ঘটনায় মারুফাকে আটক করেছে পুলিশ। পরিবারের অন্য সদস্যরা পলাতক রয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। 


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।