খুলনা | মঙ্গলবার | ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

নগরীতে ডাকাতি মামলায়  ৫ জনের ১০ বছরের কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১৯ জুন, ২০১৯ ০১:২৫:০০

নগরীতে ডাকাতি মামলায়  ৫ জনের ১০ বছরের কারাদণ্ড

লবণচরা থানাধীন সাচিবুনিয়া বাজার এলাকার মোঃ ফিরোজ খানের বাড়িতে ডাকাতির  মামলায় ৫ আসামিকে জেল-জরিমানা করেছে আদালত। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক রোজিনা আক্তার এ দণ্ডাদেশ দিয়েছেন। 
আদালত লবণচরা থানাধীন কৃষ্ণনগর ইসলামাবাদ এলাকার মিজানুর রহমানের ছেলে মোঃ আরিফ বিল্লাহ (২৪) ও ডুমুরিয়া থানাধীন খরশন্ডা গ্রামের তকসির মোড়লের ছেলে আলামিন (২০)-কে ৩৯৫ ধারায় ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরো ২ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছে। এছাড়া অপর ৩ আসামির প্রত্যেককে ৩৯৫ ধারায় ৬ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরো ১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছে। ৩ আসামি হলেন লবণচরা থানাধীন কৃষ্ণনগর গ্রামের সিদ্দিক আলী খানের ছেলে আব্দুর রহমান (১৮), কৃষ্ণনগর ফাতেমাবাদ গ্রামের আবু হানিফের ছেলে সাঈদ কুতুব (১৮) ও বটিয়াঘাটা থানাধীন দারোগার ভিটা এলাকার লিয়াকত আলীর ছেলে রিফাত হাসান ওরফে রাকিব (২০)।   
আদালতের বেঞ্চ সহকারী মোঃ বাহাউদ্দিন শাহীন নথীর বরাত দিয়ে জানান, ২০১৫ সালের ১৪ জানুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে লবণচরা থানাধীন সাচিবুনিয়া বাজার মসজিদ লেনের নিজ বাড়িতে মোঃ ফিরোজ খান ছিলেন স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে। এ সময় একজন লোক বাহির থেকে আন্টি বলে ডাক দেয়। ফিরোজের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার পরিচিত লোক মনে করে ঘরের দরজা খুলে দেয়। সঙ্গে সঙ্গে ৫জন ডাকাত ঘরে ডুকে তাদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত-পা ও কসটেপ দিয়ে মুখ বেঁধে ১ ঘন্টা ডাকাতি করে। ডাকাতরা ঘরের স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইল ফোন, ভিডিও ক্যামেরা, স্টিল ক্যামেরাসহ মোট ৬০ লাখ টাকা মূল্যের মালামাল ডাকাতি করে নিয়ে যায়। ডাকাতির সময় একজনের মুখের রুমাল খুলে গেলে তাকে চিনে রাখে মাহমুদা আক্তার। ২৯ জানুয়ারি বিকেল ৫টার দিকে জিরোপয়েন্ট এলাকায় ওই ডাকাতকে চিনতে পেরে পুলিশে খবর দিলে আরিফ বিল্লাহকে আটক করে পুলিশ। পরে জিজ্ঞাসাবাদে সে ডাকাতির ঘটনা স্বীকার করে এবং তার সহযোগীদের নাম বলে।  এ ঘটনায় ফিরোজের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার বাদী হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে লবণচরা থানায় মামলা দায়ের করেন (নং-১৪)। ওই বছরের ৩১ ডিসেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডি এসআই  বিশ্বজিত কুমার ঘোষ আদালতে ৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশীট দাখিল করেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌশুলী ছিলেন এপিপি এড. সাব্বির আহমেদ।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ










আমরন অনশনে পাটকল শ্রমিকরা  

আমরন অনশনে পাটকল শ্রমিকরা  

১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:৪৮




ব্রেকিং নিউজ











আমরন অনশনে পাটকল শ্রমিকরা  

আমরন অনশনে পাটকল শ্রমিকরা  

১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:৪৮