খুলনা | বুধবার | ২৪ জুলাই ২০১৯ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

যশোরে পল্লী চিকিৎসকের ভুল  চিকিৎসায় ভ্যান চালকের মৃত্যু 

যশোর প্রতিনিধি | প্রকাশিত ১৯ জুন, ২০১৯ ০০:২০:০০

যশোরে পল্লী চিকিৎসকের ভুল  চিকিৎসায় ভ্যান চালকের মৃত্যু 

পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় শফিকুল ইসলাম নামে এক ভ্যান চালকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তিনি যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাঠির বাবু বাজার এলাকায় খোরশেদ আলীর ছেলে। গত সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে পল্লী চিকিৎসক রফিকুল ইসলামের চেম্বারে ইনজেকশন দেয়ার ৩০ মিনিটের মধ্যে শফিকুল মারা যায়।
নিহতের পিতা খোরশেদ আলী জানান, এদিন সকালে সামান্য জ্বর হলে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে যায় শফিকুল। সেখান থেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে আসলে আকস্মিক সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। নিহতের স্বজনরা জানান, শফিকুল ইসলাম শ্বশুরবাড়ি থেকে গত রবিবার বাড়িতে আসে। গত সোমবার সকালে জ্বর হলে সে বাজারের পল্লী চিকিৎসক রফিকুল ইসলামের চেম্বারে যায়। সেখানে তাকে একটি ইনজেকশন দিলে সে বাড়িতে চলে আসে। এরপর সকাল ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়। এরপর স্থানীয় রাকিব ও নজরুল ইসলাম দফাদার নামে দুই যুবক বাড়িতে এসে তড়িঘড়ি শফিকুলকে দাফন করে। আর এ তড়িঘড়িকে সন্দেহের চোখে দেখে স্বজনরা অভিযোগ করে বলেছেন, পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় শফিকুল মারা গেছে। বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য তাকে তড়িঘড়ি করে দাফন করা হয়েছে।
এ বিষয়ে ডাক্তার রফিকুল ইসলাম বলেন, শফিকুল ইসলামকে ম্যাক্সিম্যাসমা ৪০ আইভি নামে একটি ইনজেকশন দেয়া হয় সকাল সাড়ে ৭টার দিকে। এরপর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। তিনি বলেন, ভ্যান চালক শফিকুল ইসলাম অতিরিক্ত গাঁজা সেবন করতো। হয়তো এ কারণে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হতে পারে। ইনজেকশন দেয়া কোন ভুল ছিল না।
এ ব্যাপারে সাজিয়ালী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সুকুমার কুণ্ডু বলেন, শফিকুল ইসলামের মৃত্যু সংবাদ পেয়ে তার বাড়িতে যাই। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে পরিবার থেকে জানানো হয়েছে। পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় তিনি মারা গেছেন এমন অভিযোগ কেউ করেনি।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ