খুলনা | সোমবার | ১৯ অগাস্ট ২০১৯ | ৪ ভাদ্র ১৪২৬ |

শিরোনাম :
মোংলায় সাংগঠনিক তদন্তে এসে অভিযুক্তের সাথে ভ্রমণ ও ভুরিভোজ কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতারডেঙ্গু আক্রান্ত ৫৩ হাজার, চিকিৎসা শেষে ফিরেছে ৪৫ হাজারবেসরকারি বিশ্ববিদ্যায়ের শিক্ষার্থী শিঞ্জন একদিনের রিমান্ডে অবরুদ্ধ কাশ্মীরে বাড়ছে নিরাপত্তা বাহিনীর নির্যাতন, চলছে বাছবিচারহীন গ্রেফতারখুলনায় প্রাধিকারপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে গাড়ি ও ড্রাইভারের সুবিধা গ্রহণে অনিয়মের অভিযোগ!ফের নগরীর বেসরকারি বিশ্বদ্যিালয়ের বিবিএ’র ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগঈদযাত্রায় সড়কে গেছে ২২৪ প্রাণস্ত্রী পরিচয়ে কুয়াকাটাসহ নগরীর বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে ওই ছাত্রীকে রেখেছিলো ‘শিঞ্জন রায়’

Shomoyer Khobor

‘তিনি ছিলেন রাজনীতির উর্ধ্বের  একজন খাঁটি সৎ মানুষ’

বিএনপি নেতা আনোয়ারুল কাদির খোকনের ইন্তেকাল 

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০১:০৩:০০

নগর বিএনপি’র সহ-সভাপতি ও সোনাডাঙ্গা থানা শাখার সভাপতি আনোয়ারুল কাদির খোকন (৭০) গত রবিবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে ঢাকায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল¬াহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন... আমরা তো আল্ল¬াহর  এবং আমরা আল্ল¬াহর কাছেই ফিরে যাবো)। তিনি দীর্ঘদিন কিডনি ও হৃদরোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ছয় কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। গতকাল সোমবার আসরবাদ তার হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান খুলনা কলেজ ও পল্ল¬ীমঙ্গল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে বিশাল নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে বসুপাড়া কবরস্থানে মরহুমের দাফন সম্পন্ন হয়। আগামীকাল বুধবার আসরবাদ পল্ল¬ীমঙ্গল এলাকার চারটি মসজিদে মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।
জানাজা পূর্ব সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বক্তৃতা করেন সিটি মেয়র নগর আ’লীগের সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেক, বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও নগর শাখার সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু ও মরহুমের ভাই মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোঃ আফজালুর রহমান। এ সময় বক্তারা বলেন, আনোয়ারুল কাদির খোকন দল-মতের উর্ধ্বে একজন খাঁটি মানুষ। অসংখ্য শিক্ষা ও ধর্মী প্রতিষ্ঠান, ক্রীড়া পরিচালনার লক্ষে উল্কা ক্লাবসহ সোনাডাঙ্গা থানায় অগণিত প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা এবং যুক্ত ছিলেন। বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন; ছিলেন শ্রমিক দরদী মানুষ। মানুষের বিপদ আপদে ঝাঁপিয়ে পড়েছে সহযোগিতার দু’হাত বাড়িয়ে। তার আত্মার মাগফিরাত কামনায় সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন বক্তারা। 
মরহুম আনোয়ারুল কাদির খোকন ১৮নং ওয়ার্ডের তিনবার নির্বাচিত কাউন্সিলর ও কেসিসি’র প্যানেল মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া অসংখ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এ সমাজ সেবক।
জানাজায় উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও নগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান, সাবেক সিটি মেয়র ও নগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনি, জেলা বিএনপি’র সভাপতি এড. শফিকুল আলম মনা, সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবুল হোসেন, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অধ্যাপক মোঃ আলমগীর হোসেন ও উপ-কমান্ডার শেখ মনিরুল ইসলাম, অধ্যাপক আবুল বাসার, নগর জামায়াতের আমীর মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, সহকারী সেক্রেটারী এড. লস্কর শাহ আলম, সিনিয়র সাংবাদিক কাজী মোতাহার রহমান বাবু, মোঃ এনামুল হক, এইচএম আলাউদ্দিন, মাহবুবুর রহমান মুন্না, আশরাফুল ইসলাম নূর, মাসুম বিল্ল¬াহ ও আর.জি উজ্জ্বল, আ’লীগ নেতা এড. রজব আলী সরদার, মোল্যা আবিদ আলী, সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাস, মোতালেব মিয়া, কাউন্সিলর আশফাকুর রহমান কাকন, হাফিজুল ইসলাম মনি, হাফিজুর রহমান হাফিজ, শেখ গাউসুল আযম ও আনিসুর রহমান বিশ্বাষ, বিএনপি নেতা শাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, মোঃ মুশাররফ হোসেন, জাফরউল্ল¬াহ খান সাচ্চু, মনিরুজ্জামান মন্টু, আজিজুল হাসান দুলু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, আশরাফুল আলম নান্নু, সিরাজুল ইসলাম নান্নু, কাজী মাহমুদ, মোঃ মজিবুর রহমান, মোঃ নিজামউর রহমান লালু, রবিউল ইসলাম রবি, নজরুল ইসলাম বাবু, মোহাম্মদ আলী বাবু মোড়ল ও চৌধুরী হাসানুর রশিদ মিরাজ, খুবি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী, জাকির হোসেন বিপ¬ব ও রাজুল হাসান রাজু প্রমুখ। নামাজের জানাজায় ইমামতি করেন আলহাজ্ব মাওলানা মুনসুর আহমেদ।
বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটি : সংগঠনের আজীবন সদস্য, সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ারুল কাদির খোকনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা ও তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ। বিবৃতিদাতারা হলেন সংগঠনের সভাপতি শেখ মোশাররফ হোসেন, মহাসচিব শেখ আশরাফ উজ জামান প্রমুখ।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ