খুলনা | বুধবার | ২৭ মার্চ ২০১৯ | ১৩ চৈত্র ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

ঠান্ডা এবং সর্দি সমস্যা থেকে মুক্তির উপায়

ডাঃ সুমন রায় | প্রকাশিত ১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ০০:১০:০০

ঠান্ডা এবং সর্দি ঋতু ভিত্তিক রোগ। ঋতু পরিবর্তনের সাথে সাথে অনেকেই এ রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। অনেকের আবার এলার্জিগত কারণেও ঠান্ডা লেগে থেকে। কারণ যাই হোক যদিও এটি একটি সাধারণ ব্যাপার কিন্তু এটি অত্যন্ত বিরক্তিকর অসুখ।
চলুন জেনে নেই সর্দি নিরাময়ের কয়েকটি পদ্ধতি :
-প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুণ। এটা নিজেকে জলায়জিত, আর্দ্র এবং সংক্রমণ থেকে গুরে রাখবে। সাইনাস এর সমস্যা থেকে মুক্তি পেতেও পানি পান করা আবশ্যক।
-সবসময় একটি উষ্ণ পরিবেশে থাকুন। বেশি সময় শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত পরিবেশে থাকলে মাথা ব্যাথা, ঠান্ডা এবং সর্দি হতে পারে। তাছাড়া এটি সর্দিকে জমিয়ে শক্ত করে দেয়।
-ভিটামিন ‘সি’ যুক্ত খাবার খাওয়া বাড়িয়ে দিন। কমলালেবু, স্ট্রবেরি এবং অন্যান্য সাইট্রাস জাতীয় ভিটামিন ‘সি’ সমৃদ্ধ ফল খান। অন্যথা, আপনি ভিটামিন সি ট্যাবলেটও গ্রহণ করতে পারেন। নিয়মিত লেবু খান। লেবুতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, যা ঠান্ডা লাগা প্রতিরোধ করে।
-স্যালাইন নাসাল স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন। এটি শ্লেষ্মা পাতলা করে নাক পরিষ্কার করে দিতে সাহায্য করবে। ও শ্বাস প্রশ্বাসের ব্যাঘাত রোধ করবে।
-চিউইং আদা সর্দি প্রতিবন্ধক করতে সাহায্য করবে। প্রতিদিন তিনবার, কয়েক টুকরা কাঁচা আদা চর্বণ করলে ঠাণ্ডার উপশম হয়। এটি একটি অত্যন্ত কার্যকর প্রাকৃতিক ঘরোয়া প্রতিকার।
-রাতে শোয়ার আগে সরিষার তেল বা ঘি হালকা গরম করে শুঁকলে বা হাত, পা ও বুকে মালিশ করলে সর্দি-ঠান্ডা দূর হয় এবং প্রতিরোধ প্রতিরোধ হয়।
-সর্দি হলে, আলতো করে আপনার নাক ঝেরে ফেলুন এবং কখনো শ্লেষ্মা গিলেবেন না। এতে অবস্থার পরিবর্তন না হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে ভুলবেন না

ডাঃ সুমন রায়
মেডিকেল অফিসার
মেডিসিন-বহির্বিভাগ
খুলনা মেডিকেল অফিসার 
যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক স্বাচিপ, খুলনা জেলা।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ

পারিবারিক পুষ্টি ভাবনা

পারিবারিক পুষ্টি ভাবনা

২৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:১০


বেশি করে আলু খান

বেশি করে আলু খান

০২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০০:১০











ব্রেকিং নিউজ







একাত্তরের স্মৃতির রোডম্যাপ

একাত্তরের স্মৃতির রোডম্যাপ

২৬ মার্চ, ২০১৯ ০১:৪৩


স্বাধীনতা ও আমাদের প্রত্যাশা

স্বাধীনতা ও আমাদের প্রত্যাশা

২৬ মার্চ, ২০১৯ ০১:৪২