খুলনা | বুধবার | ২৬ জুন ২০১৯ | ১২ আষাঢ় ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

সিনেমায় গাওয়া খুব চ্যালেঞ্জের : ঐশী

খবর বিনোদন | প্রকাশিত ১০ জানুয়ারী, ২০১৯ ০০:১০:০০

চলতি প্রজন্মের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ঐশী। গানে ক্যারিয়ার শুরুর অল্প সময়ের মধ্যেই আলোচনায় আসেন তিনি। এরইমধ্যে উপহার দিয়েছেন বেশ কিছু শ্রোতাপ্রিয় গান। পাশাপাশি স্টেজ শোতেও ব্যস্ত সময় পার করছেন। প্লেব্যাকও করছেন নিয়মিত। সব মিলিয়ে কী অবস্থা? চলতি সময়টা কেমন কাটছে? ঐশী বলেন, বেশ ভালো। পড়াশোনা ও গানের মধ্যে দিয়েই কাটছে। ক’দিন আগে  স্টেজ শো করে অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরলাম।
এসেই গানে ব্যস্ত হয়ে পড়েছি। অস্ট্রেলিয়া সফর কেমন ছিল? ঐশী বলেন, খুবই ভালো। কারণ এটাই আমার প্রথম অস্ট্রেলিয়া সফর। আমি অনেক উপভোগ করেছি। পাশাপাশি আমাদের শোও উপভোগ করেছেন সেখানকার প্রবাসী দর্শকরা। আমি ছাড়াও সোলস ও ওয়ারফেইজের মতো জনপ্রিয় ব্যান্ড ছিল এই সফরে। সব মিলিয়ে সফরটি স্মরণীয় ছিল। এখন ব্যস্ততা কী নিয়ে? ঐশী উত্তরে বলেন, আমি ডাক্তারী পড়ছি। তাই পড়াশোনায় অনেক সময় দিতে হয়। এর পাশাপাশি গানে সময় দিচ্ছি। এরইমধ্যে কয়েকটি নতুন গানে কণ্ঠ দিয়েছি। তাছাড়া এ বছরই আমার একক এ্যালবাম প্রকাশের ইচ্ছেও রয়েছে। এ্যালবাম সম্পর্কে জানতে চাইলে ঐশী বলেন, আমার প্রথম একক এ্যালবামের নাম ছিল ‘ঐশী এক্সপ্রেস’। আর এবার দ্বিতীয় এ্যালবামের নাম রেখেছি ‘ঐশী এক্সপ্রেস টু’। ৭ থেকে ৮টি গান থাকবে এখানে। কয়েকটি গানের কাজ এরইমধ্যে শেষ হয়েছে। আমার এ এ্যালবামের জন্য গান তৈরি করেছেন মার্সেল, অ্যাপিরাস প্রমুখ। বেশকিছু ভিন্নধর্মী গান নিয়ে এ্যালবামটি সাজাচ্ছি। আরো কিছু কাজ বাকি রয়েছে। সেগুলো শেষ করে খুব শিগগিরই এ্যালবামটি প্রকাশ করব। আমার বিশ্বাস ভালো লাগবে সবার। প্লেব্যাকের কী খবর? ঐশী বলেন, সিনেমার গানে আমি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। এখানে অভিনয়শিল্পীদের লিপে গান থাকে। তাই গল্প ও দৃশ্যের সঙ্গে মিল রেখে গাইতে হয়। সেদিক থেকে সিনেমার গান গাওয়া খুব চ্যালেঞ্জের। আমি চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করি। তাছাড়া গতানুগতিক গান আমার ভালোও লাগে না। আলাদা ধরনের গান গাইতেই আমি পছন্দ করি। এটি লক্ষ্য রেখেই সিনেমার গান করছি। সামনেও কয়েকটি নতুন সিনেমায় গাওয়ার কথা হয়েছে। হয়তো ব্যাটে বলে মিললে সামনে গেয়ে ফেলবো। তবে অডিওতে গান করছি কম। একটু বেছে কাজ করছি। এখন মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা কেমন মনে হচ্ছে? উত্তরে ঐশী বলেন, ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা মোটামুটি। এখন ডিজিটালি গান প্রকাশ হচ্ছে। এ মাধ্যমে আমরা অভ্যস্ত হচ্ছি। তাছাড়া কোম্পানিগুলোও ভালো গানে ভালোই বিনিয়োগ করছে। আবার ইচ্ছা করলে শিল্পীরা নিজেরাও গান প্রকাশ করতে পারছেন। সব মিলিয়ে আমি মনে করি ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা খারাপ নয়। সামনে হয়তো আরো ভালোর দিকে যাবে। গানের ক্ষেত্রে পরিবারের সাপোর্ট কেমন মিলছে? ঐশী বলেন, শুরু থেকে শতভাগ সাপোর্ট পাচ্ছি আমি। আমার বাবা-মাসহ সবাই আমাকে অনেক উৎসাহ দেন। আমি মনে করি তাদের জন্যই আমি এ পর্যন্ত আসতে পেরেছি। কারণ, পারিবারিক সহযোগিতা না পেলে সামনে এগিয়ে যাওয়া যায় না। সেদিক থেকে আমি ভাগ্যবতী।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ

ভিন্ন পরিকল্পনায় অপু

ভিন্ন পরিকল্পনায় অপু

২৬ জুন, ২০১৯ ০০:০০

নতুন ছবিতে মিম

নতুন ছবিতে মিম

০৩ জুন, ২০১৯ ০০:১০

ঈদে তিশার দুই ডজন

ঈদে তিশার দুই ডজন

০২ জুন, ২০১৯ ০০:০৭


তিনজনের ‘লোফার’

তিনজনের ‘লোফার’

২৭ মে, ২০১৯ ০০:১০


১৯ বছর পর

১৯ বছর পর

১৯ মে, ২০১৯ ০০:১০

আড়াল ভেঙে সারিকা

আড়াল ভেঙে সারিকা

১৯ মে, ২০১৯ ০০:১০

চমক দেখাবেন ববি

চমক দেখাবেন ববি

১১ মে, ২০১৯ ০০:১০


মিলন-ইশার ‘বউ এলার্জি’

মিলন-ইশার ‘বউ এলার্জি’

০৮ মে, ২০১৯ ০০:১০



ব্রেকিং নিউজ