খুলনা | সোমবার | ১৯ অগাস্ট ২০১৯ | ৪ ভাদ্র ১৪২৬ |

শিরোনাম :
মোংলায় সাংগঠনিক তদন্তে এসে অভিযুক্তের সাথে ভ্রমণ ও ভুরিভোজ কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতারডেঙ্গু আক্রান্ত ৫৩ হাজার, চিকিৎসা শেষে ফিরেছে ৪৫ হাজারবেসরকারি বিশ্ববিদ্যায়ের শিক্ষার্থী শিঞ্জন একদিনের রিমান্ডে অবরুদ্ধ কাশ্মীরে বাড়ছে নিরাপত্তা বাহিনীর নির্যাতন, চলছে বাছবিচারহীন গ্রেফতারখুলনায় প্রাধিকারপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে গাড়ি ও ড্রাইভারের সুবিধা গ্রহণে অনিয়মের অভিযোগ!ফের নগরীর বেসরকারি বিশ্বদ্যিালয়ের বিবিএ’র ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগঈদযাত্রায় সড়কে গেছে ২২৪ প্রাণস্ত্রী পরিচয়ে কুয়াকাটাসহ নগরীর বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে ওই ছাত্রীকে রেখেছিলো ‘শিঞ্জন রায়’

Shomoyer Khobor

হলফনামা : খুলনা-৬

বার্ষিক আয়ে এগিয়ে আক্তারুজ্জামান বাবু মামলায় মনা ও আবুল কালাম আজাদ

মোহাম্মদ মিলন | প্রকাশিত ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০১:২০:০০

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খুলনা-৬ (কয়রা-পাইকগাছা) আসনে জেলা বিএনপি’র সভাপতি এস এম শফিকুল আলম মনা আপীলে তার প্রার্থীতা ফিরে পাওয়ায় বর্তমানে ১০ জন বৈধ প্রার্থী রয়েছে। এর মধ্যে ক্ষমতাসীন আ’লীগের একক প্রার্থী মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু। আর কৌলশগত কারণে বিএনপি’র প্রার্থী শফিকুল ইসলাম মনা ও ২০ দলের আবুল কালাম আজাদকে ধানের শীষ প্রতীক দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে জোটের সিদ্ধান্ত মোতাবেক একজন প্রার্থী প্রত্যাহার করে নিবেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। তাদের মধ্যে বার্ষিক আয়ে এগিয়ে রয়েছেন মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু এবং মামলায় রয়েছেন এস এম শফিকুল আলম মনা ও আবুল কালাম আজাদ। নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া প্রার্থীদের হলফনামা বিশ্লেষণ করে এমন তথ্য মিলেছে। 
মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু : আ’লীগের প্রার্থী মোঃ আক্তারুজ্জামান হলফনামায় পেশা হিসেবে ঠিকাদারী ও কৃষিকাজ দেখিয়েছেন। কৃষি খাত থেকে বাৎসরিক আয় ৩২ হাজার টাকা এবং ব্যবসা থেকে ৬৫ লাখ ২৮ হাজার ৮৪৭ টাকা। তার স্ত্রীর চাকুরী থেকে বার্ষিক আয় ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৬৪৭ টাকা। অস্থাবর সম্পদের মধ্যে তার কাছে নগদ টাকা রয়েছে ১ কোটি ৫০ লাখ ৩০ হাজার ৮০০ টাকা, ব্যাংকে জমা ৪ লাখ ৫৫ হাজার ৯৮৮ টাকা, উপহার হিসেবে স্বর্ণ পেয়েছেন ৩০ তোলা। ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী রয়েছে ১ লাখ টাকার, আসবাবপত্র ১ লাখ টাকার। তার স্ত্রীর কাছে নগদ ১ লাখ ৪৫ হাজার ৫০০ টাকা, ৭০ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণালঙ্কার ও অন্যান্য খাতে ৭ লাখ ২২ হাজার ৬৭৫ টাকা রয়েছে। স্থাবর সম্পদের মধ্যে কৃষি জমির পরিমাণ ও অর্জনকালীন আর্থিক মূল্য ১০ লাখ ৮০ হাজার টাকা ও ২ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের অকৃষি জমি উল্লেখ করেছেন তিনি। দায়ের ঘরে ঠিকাদারী কার্যাদেশের বিপরীতে প্রাইম ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়া আছে ১ কোটি ২ লাখ ২৭ হাজার ১৪৩ টাকা। তার স্ত্রীর কোন স্থাবর সম্পদ উল্লেখ করেননি তিনি।  
এস এম শফিকুল আলম মনা : পেশা হিসেবে ঠিকাদারী ব্যবসা দেখিয়েছেন বিএনপি’র প্রার্থী এস এম শফিকুল আলম মনা। তার বিরুদ্ধে ৫টি মামলা রয়েছে। পূর্বের একটি মামলায় অব্যাহতি পেয়েছেন। ব্যবসা থেকে তার বার্ষিক আয় ৩ লাখ ৯৪ হাজার ৬৫০ টাকা। তার স্ত্রীর চাকুরী থেকে আয় ৬ লাখ ৫২ হাজার ৬৪০ টাকা। অস্থাবর সম্পদের মধ্যে রয়েছে নগদ ৩ লাখ ৩২ হাজার ৭৪১ টাকা, ব্যাংকে জমা ৬৮ হাজার টাকা, ৩ লাখ ১৮ হাজার টাকার ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী, ৫৫ হাজার টাকা মূল্যের ৫৫ হাজার টাকা। তার স্ত্রীর ১ লাখ ৫০ হাজার টাকার প্রাইজবন্ড ও ৫ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র। একটি মাইক্রোবাস ও ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার রয়েছে। ঢাকা পূর্বাচলে কূন্য দশমিক ৩৮২৫ একর জমিতে বাড়ি রয়েছে। তার স্ত্রীর খুলনা পুলিশ লাইনে ও ঢাকায় ফ্লাট এবং কূন্য দশমিক ৮২৫১ একর অকৃষি জমি রয়েছে।  
আবুল কালাম আজাদ : হলফনামায় পেশা হিসেবে তামিম এন্টারপ্রাইজ, মালামাল সরবরাহকারী ও ভ্রাম্যমাণ ব্যবসা দেখিয়েছেন ধানের শীষ প্রতীক পাওয়া জামায়াত নেতা আবুল কালাম আজাদ। ব্যবসা থেকে তার বার্ষিক আয় ৩ লাখ ৪ হাজার টাকা। অস্থাবর সম্পদের মধ্যে ১৩ লাখ ৭৫ হাজার ৫০০ টাকা, ব্যাংকে জমা ১১ হাজার টাকা, শেয়ার ১ লাখ ৪০ হাজার টাকার, ৪২ হাজার টাকা মূল্যের ইলেকট্র্রনিক্স সামগ্রী ও আসবাবপত্র রয়েছে তার। স্ত্রীর ১২ ভরি স্বর্ণালঙ্কার রয়েছে। স্থাবর সম্পদের মধ্যে ৯ লাখ ২৯ হাজার টাকা মূল্যের ৭ কাঠা অকৃষি জমি রয়েছে তার। যৌথ মালিকানায় ৫ বিঘা কৃষি জমি এবং ১ বিঘা অকৃষি জমি রয়েছে। তার স্ত্রীর নামে অকৃষি জমি রয়েছে ৪ কাঠা। একটি সেমিপাকা ঘর এবং ও পৈতৃক সূত্রে প্রাপ্ত একটি বাড়ি রয়েছে তার। প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে ইসলামী ব্যাংক দৌলতপুর শাখা থেকে বিনিয়োগ সুবিধা বা ঋণগ্রহণ করেছেন ১২ লাখ টাকার। তার বিরুদ্ধে ২০টি মামলা রয়েছে। আর পূর্বের ৩টি মামলায় অব্যাহতি পেয়েছেন তিনি। 
এছাড়া অন্যান্য প্রার্থীরা হলেন, জাতীয় পার্টির শফিকুল ইসলাম মধু ও মোস্তফা কামাল জাহাঙ্গীর, ইসলামী আন্দোলনের গাজী নূর আহমাদ, জেএসডির আয়ুব আলী, ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্টের মির্জা গোলাম আজম ওরফে মির্জা আজম, জাকের পার্টির শেখ মর্তুজা আল মামুন এবং কমিউনিস্ট পার্টির সুবাস চন্দ্র সানা। 

বার পঠিত

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ