খুলনা | বুধবার | ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৫ পৌষ ১৪২৫ |

সবজির বাজারে মনিটরিং জোরদার করুন

২৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:১০:০০

সবজির বাজারে মনিটরিং জোরদার করুন

শীতকালীন সবজিতে বাজার ছেয়ে গেছে, তবে দাম কোনো ভাবেই কমছে না। অথচ যারা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে এ সবজি উৎপাদন করছে তারাও ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না। আর মধ্যস্বত্বভোগীরা একদিকে যেমন ভোক্তাদের পকেট কাটছে পাশাপাশি কৃষকদেরও তারা ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত করছে। বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা না থাকায় এ অরাজকতা চলছে। খুচরা বাজারে দাম নাগালের বাইরে থাকায় নিম্ন আয়ের ক্রেতারা পড়েছে মহাবিপাকে।
বছর জুড়ে দেশের হাট বাজারে তরি-তরকারির দাম বেশি থাকলেও শীতকাল এলেই বিভিন্ন সবজিতে বাজার ছেয়ে যায়। ভোক্তারাও এসময় তাদের পছন্দের সবজি কম দামে পেয়ে থাকে। তবে এ বছরের চিত্র সম্পূর্ণ বিপরীত। কৃষকের ক্ষেত থেকে সবজি যায় পাইকারি বাজারে। তবে পাইকারি বাজার থেকে খুচরা বাজারে সবজি গেলেই দামের ব্যবধান হয় আকাশ-পাতাল। এবার কৃষক পর্যায় থেকে খুচরা বাজারে দাম বেড়েছে দ্বিগুণেরও বেশি। কৃষকদের অভিযোগ ন্যায্যমূল্যে শাক-সবজি বিক্রি করতে না পারায় তাদের লোকসান গুণতে হচ্ছে প্রতি মৌসুমেই। যুগ যুগ ধরে এই অবস্থা চললেও কৃষকের ভাগ্যের কোনো উন্নতি হচ্ছে না। শীত বা গ্রীষ্মকালীন আগাম সবজির ক্ষেত্রে কৃষক কিছুটা বাড়তি মূল্য পেয়ে থাকলেও খুচরা পর্যায়ে এসব পণ্য যে দামে বিক্রি হচ্ছে তার তিন ভাগের এক ভাগও পান না কৃষক। এতে একদিকে ন্যায্যমূল্য না পেয়ে চাষিরা লোকসান গুণছেন, অন্যদিকে উচ্চমূল্যে সবজি ক্রয় করতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। ১৫ টাকার আলু ২৫ টাকা, ১৫ টাকার কাঁচামরিচ ৪০ টাকা আর ১৫ টাকার বেগুন এখনও ৩৫ টাকা কেজি দরে কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের। এ নিয়ে ক্রেতাদের মধ্যে অসন্তোষ থাকলেও খুচরা ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের কাছে তারা জিম্মি হয়ে পড়েছেন। এক প্রকার বাধ্য হয়েই তারা অনেক বেশি দামে সবজি কিনছেন।
নিয়মিত বাজারদর মনিটরিং ব্যাবস্থা না থাকায় খুচরা বিক্রেতারা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে এভাবে ভোক্তাদের পকেট কাটছে। বিষয়টি আমলে নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বাজার মনিটরিং উপর জোর দিলে এ অরাজকতার অবসান ঘটবে বলে আমরা মনে করি। এতে ভোক্তা পর্যায়ে যেমন পন্য কিনতে অতিরিক্ত অর্থ সাশ্রয় হবে অন্যদিকে প্রান্তিক চাষিরাও পণ্যের ন্যায্য দাম পেয়ে ফসল চাষে আরও আগ্রহী হয়ে উঠবে। 
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ



তোমাদের এই ঋণ কোনদিন শোধ হবেনা----

তোমাদের এই ঋণ কোনদিন শোধ হবেনা----

১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:১০

উৎসবমুখর নির্বাচন সবার কাম্য 

উৎসবমুখর নির্বাচন সবার কাম্য 

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:১০



শীত কষ্টের না হয়ে উৎসবের হয়ে উঠুক

শীত কষ্টের না হয়ে উৎসবের হয়ে উঠুক

১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:১০

নারীর শেকল ভাঙার গান বেগম রোকেয়া

নারীর শেকল ভাঙার গান বেগম রোকেয়া

১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:১০






ব্রেকিং নিউজ