খুলনা | রবিবার | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২ পৌষ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

খুলনা-৪ আসনের তৃণমূলে সরব শরীফ শাহ্ কামাল তাজ

রাসেল আহমেদ, তেরখাদা    | প্রকাশিত ২১ নভেম্বর, ২০১৮ ০১:৩০:০০

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে রূপসা, তেরখাদা ও দিঘলিয়া উপজেলা নিয়ে গঠিত খুলনা-৪ আসনে তৃণমূলে সরব বিএনপি কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শরীফ শাহ্ কামাল তাজ। দলের দুঃসময়ের কান্ডারী ও তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের সাহসের যোগানদাতা শরীফ শাহ কামাল তাজের হাতেই ধানের শীষ প্রতীক তুলে দেয়া হবে-এমন অভিমত স্থানীয় বিএনপি নেতা-কর্মীদের। তিনি আলোচিত আসনে দলীয় মনোনয়ন পাচ্ছেন তা নিয়ে ভোটাররাও চায়ের টেবিলে ঝড় তুলছে। স্থানীয়দের মধ্যে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। ইতোমধ্যে শরীফ শাহ্ কামাল তাজ ধানের শীষ প্রতীকের পক্ষে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ, জমা এবং গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে দলীয় সাক্ষাৎকারে অংশ নিয়েছেন।  
দলটির স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মতে, শরীফ শাহ কামাল তাজ ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করেছিলেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় এই নেতা। ২০০৮ সালের নির্বাচনের পর এলাকার রাজনৈতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত থেকে শক্ত অবস্থান তৈরি করেছেন। দুর্দিনে বিএনপি’র অন্যতম কান্ডারি হিসেবে তিনি দীর্ঘ ১০ বছর ধরে দলের ভেতরে-বাইরে বিশেষ পরিচিতি লাভ করেছেন। একই সাথে খুলনা-৪ আসনের তৃণমূল নেতা-কর্মীদের চাঙ্গা রাখতে বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন তিনি। ২০০৮ সালের মতো এবারের নির্বাচনেও তার হাতে ধানের শীষ তুলে দেওয়া হবে বলে আশা করছেন তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। দলের মনোনয়ন পেলে নিশ্চিত খুলনা-৪ আসন বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে বিজয় ছিনিয়ে আনবে বলে একাধিক নেতা-কর্মীদের অভিমত।       
তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা বলেন, সাধারণ মানুষের পাশে থেকে কাজ করেছেন বিএনপি নেতা শরীফ শাহ্ কামাল তাজ। খুলনা-৪ আসনে তেরখাদা, রূপসা ও দিঘলিয়া উপজেলার দলের নেতা-কর্মীদের যে কোন মামলা, হামলা ও হয়রানিতে নিরলসভাবে পাশে ছিলেন। পাশাপাশি দলকে তৃণমূল পর্যায় থেকে সু-সজ্জিত করেছেন। শিক্ষানুরাগী সদালাপী মানুষ হিসেবে পরিচিত এই নেতা দলমত নির্বিশেষে সকলের কাছেই জনপ্রিয়।   
বিএনপি’র কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শরীফ শাহ্ কামাল তাজ বলেন, স্থানীয় রাজনীতিতে বরাবরই সক্রিয় থেকেছি। বিগত সময়ে তেরখাদা, রূপসা ও দিঘলিয়া উপজেলার তৃণমূল নেতা-কর্মী এবং সাধারণ মানুষের পাশে থেকে কাজ করেছি। সর্বদা নেতা-কর্মীদের পাশে ছিলাম এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। দলের অতীত ও বর্তমান কর্মকান্ড বিবেচনা করে দল আমাকে মনোনয়ন দিলে এই আসনে ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিত করবো-ইনশাআল্লাহ্। তিনি আরো বলেন, জাতীয়তাবাদী শক্তির বিজয় এখন সময়ের ব্যাপার, জনগণের ভোটাধিকার, গণতন্ত্র ও বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির লক্ষে বিএনপি’র নির্বাচনীয় মাঠে লড়াই করবো।  
উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খুলনা-৪ আসনের তিনটি উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের ১৪১টি ভোট কেন্দ্রে মোট ভোটার ৩ লাখ ১০ হাজার ৪৪৬ জন। 
 

বার পঠিত

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ