খুলনা | রবিবার | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২ পৌষ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

নগরীতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রথম সভা

সরকারি দলের নির্বাচনী আইন ভঙ্গে ব্যবস্থা নিতে রিটার্নিং অফিসারের প্রতি আহ্বান

খবর বিজ্ঞপ্তি  | প্রকাশিত ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ০১:০১:০০

সরকারি দলের নির্বাচনী আইন ভঙ্গে ব্যবস্থা নিতে রিটার্নিং অফিসারের প্রতি আহ্বান


জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট খুলনা মহানগর শাখার প্রথম সভা গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। সভায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনদাবির পক্ষে নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্তকে স্বাগত ও জোটের কেন্দ্রীয় নেতাদের অভিনন্দন জানানো হয়। 
সভায় জনগণের ভোটের অধিকার ও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা পুনঃপ্রতিষ্ঠার আন্দোলনকে সফল করতে দলমত নির্বিশেষে জনগনকে ঐক্যফ্রন্টের পতাকাতলে আসার আহ্বান জানানো হয়। 
সভায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ দেশের কারাগারে আটক সকল নেতা-কর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানানো হয়। 
সভায় অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশন, প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সরকারকে নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানানো হয়। একই সাথে একটি সুষ্ঠু ও অর্থবহ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশনের নিয়োগপ্রাপ্ত মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জাতীয় স্বার্থ রক্ষা ও দলমতের উর্ধ্বে থেকে দায়িত্ব পালন করবে সেই দাবিও জানানো হয়। 
সভায় তড়িঘড়ি করে নির্বাচন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তকে অগ্রহণযোগ্য দাবি করে বিরোধী দলকে নির্বাচনী কাজ পরিচালনার জন্য পুনঃতফসিল দিয়ে ১ মাস সময় বৃদ্ধির দাবি জানানো হয়। 
সভায় নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। সভায় নির্বাচনী আইনভঙ্গ করে সরকারী দলের বাদ্যযন্ত্র নিয়ে র‌্যালি, সমাবেশ, ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কর্মীসভার মাধ্যমে মাইক লাগিয়ে বিএনপি নেতা-কর্মীদের ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে রিটার্নিং অফিসারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। 
সভায় ২০ দলের নেতা-কর্মীদের দমন-নিপীড়ন বন্ধ, গায়েবী মামলা প্রত্যাহার ও আটক নেতা-কর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানানো হয়।  
সভায় সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট ডাকাতির সহায়তাকারী কর্মকর্তা, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের নির্বাচনের বাইরে রেখে সৎ, সাহসী, মেধাবী ও দেশপ্রেমিক কর্মকর্তাদের দায়িত্ব দিয়ে অবাধ, সুষ্ঠু ও অর্থবহ নির্বাচনের দাবি জানানো হয়। 
সভায় নির্বাচনে ভোট চুরি না করতে পারে সেজন্য ঐক্যফ্রন্টকে সহায়তা করতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। তাছাড়া ঐক্যফ্রন্টের সকল কর্মসূচি সফলে সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। 
সভায় অন্যান্যের জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নগরের নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের খুলনার সভাপতি এড. আ ফ ম মহসীন, জেএসডি খুলনার সভাপতি মোঃ লোকমান হাকিম, মোঃ মাহতাব উদ্দিন, ড. জাকির হোসেন, অধ্যাপক শফিকুল আলম মুন্সী, জেএডির সাধারণ সম্পাদক শেখ আব্দুল খালেক, ২০ দলের নেতাদের মধ্যে এড. লতিফুর রহমান লাবু, গোলাম কিবরিয়া, মোস্তফা কামাল, আকতার জাহান রুকু, সিরাজুদ্দিন সেন্টু, মাওলানা নাসির উদ্দিন, হাফেজ শফিকুর রহমান, বিএনপি নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশাররফ হোসেন, সেকেন্দার জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, সিরাজুল ইসলাম, শাহজালাল বাবলু, রেহানা ঈসা, স ম আঃ রহমান, শেখ ইকবাল হোসেন, ফকরুল আলম, আরিফুজ্জামান অপু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, মেহেদী হাসান দীপু, মহিবুজ্জামান কচি, ইকবাল হোসেন খোকন, ইউসুফ হারুন মজনু, মাসুদ পারভেজ বাবু, এড. তৌহিদুর রহমান তুষার, একরামুল কবির মিল্টন, শামসুজ্জামান চঞ্চল, নাজির উদ্দিন নান্নু, আশফাকুর রহমান কাকন, শমসের আলী মিন্টু, হাফিজুর রহমান মনি ও সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।  


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ