নগরীতে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা


নগরীর পশ্চিম বানিয়াখামার এলাকার এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতের নির্দেশে সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। গত বুধবার ওই ছাত্রী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। তবে কোন আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।  
মামলার আসামিরা হলেন নগরীর ১৮, জাহিদুর রহমান রোডস্থ বাগমারা তেঁতুলতলার বাসিন্দা মোঃ হাসানুজ্জামান হাসান (২৪), তার পিতা মোঃ মনিরুজ্জামান (৫০), মা সিবা রানী ওরফে খাদিজা বেগম (৪২) ও পশ্চিম বানিয়াখামার আন্দির পুকুর এলাকার আব্দুল জব্বারের ছেলে নয়ন (২৪)।     
মামলার বিবরণে জানা যায়, ছাত্রী মাদ্রাসায় আসা-যাওয়ার পথে হাসান প্রেমের প্রস্তাব দিতো। এ ঘটনা হাসানের পিতা-মাতাকে জানালে তারা নিজের ছেলেকে কিছু না বলে উল্টো ছাত্রীর পরিবারকে গালমন্দ করতো। গত ১৩ মার্চ হাসান ছাত্রীকে ফুঁসলিয়ে পশ্চিম বানিয়াখামার আন্দির পুকুর এলাকায় নয়নের বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে একটি কাগজে স্বাক্ষর করিয়ে বলে তাদের বিয়ে হয়ে গেছে। তার পর থেকে হাসান ওই ছাত্রীকে স্ত্রী হিসেবে ব্যবহার করতে থাকে। এক পর্যায়ে সে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। হাসান তাকে সন্তান নষ্ট করে ফেলতে বলে। এমনকি বিয়ের কথাও অস্বীকার করে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী ৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে নলিশী পিটিশন দায়ের করেন। পরে আদালতের নির্দেশে সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় মামলা দায়ের হয়।       
    


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।