খুলনা | রবিবার | ১৮ নভেম্বর ২০১৮ | ৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

সাফ জয়ী কিশোরদের প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা

সেনাবাহিনীকে জাতির আস্থা অটুট রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ০৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:৪৮:০০

দেশের ফুটবলের সফলতা এখন বয়স ভিত্তিক খেলোয়াড়দের হাতেই। লাল সবুজ পতাকা ওড়াচ্ছেন এরাই। সর্বশেষ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছে লাল-সবুজের কিশোরেরা। আর এই কিশোর ফুটবলারদের সংবর্ধনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে গণভবনে দলের খেলোয়াড়, কোচ ও কর্মকর্তাদের সংবর্ধনা দেন তিনি। 
সংবর্ধনার পাশাপাশি অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়ী কিশোর ফুটবলারদের ৪ লাখ টাকা করে পুরস্কার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলের ২৩ খেলোয়াড়ের প্রত্যেকের হাতে ৪ লাখ টাকার চেক তুলে দিয়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী দলের কোচ ও অফিসিয়ালদের দিয়েছেন ২ লাখ টাকা করে।
এ সময় বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিনসহ অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী কিশোর ফুটবলারদের ডিনার করিয়েছেন এবং তাদের আগামীতে আরো ভালো খেলার উপদেশ দিয়েছেন।
৩ নভেম্বর নেপালের কাঠমান্ডুতে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে বাংলাদেশ টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে পাকিস্তানকে হারিয়েছে। লাল-সবুজ জার্সিধারী কিশোররা সেমিফাইনালে ভারতকে হারিয়েছিল টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে।
এদিকে সেনাবাহিনীকে জাতির আস্থা অটুট রাখার নির্দেশ দিয়েছেন সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। বৃহস্পতিবার সকালে চট্টগ্রামে ৪০ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টকে (মেকানাইজড) জাতীয় পতাকা প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ নির্দেশ দেন। সেনাবাহিনীর ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টাল সেন্টারে মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজের মাধ্যমে ৪০ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টকে জাতীয় পতাকা প্রদান করেন সেনাপ্রধান।
সেনাপ্রধান প্যারেড গ্রাউন্ডে এসে পৌঁছালে তাঁকে স্বাগত জানান আর্মি ট্রেনিং এ্যান্ড ডকট্রিন কমান্ডের (আর্টডক) জিওসি লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোঃ নাজিম উদ্দিন, ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার, চট্টগ্রামের এরিয়া মেজর জেনারেল এস এম মতিউর রহমান এবং পাপা টাইগার, ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টাল সেন্টার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ হাবিবুল করিম।
সেনাবাহিনীর ঐতিহ্য অনুযায়ী বিভিন্ন ইউনিটের কর্মদক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সেনাবাহিনী তথা জাতীয় উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অবদান এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে যুদ্ধ ও শান্তিকালীন বীরত্বপূর্ণ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ আনুষ্ঠানিকভাবে এ জাতীয় পতাকা প্রদান করা হয়। ১৯৮২ সালের ৩০ এপ্রিল প্রতিষ্ঠিত ৪০ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট (মেকানাইজড) তথা ‘চিরঞ্জীব চল্লিশ’ দীর্ঘ ৩৬ বছরের নিরবচ্ছিন্ন সেবা এবং অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ আজ এই বিরল সম্মানে ভূষিত হলো।
জাতীয় পতাকাপ্রাপ্তির বিরল সম্মান ও গৌরব অর্জন করায় ‘চিরঞ্জীব চল্লিশ’কে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, ‘কর্মদক্ষতা, কঠোর পরিশ্রম এবং কর্তব্য নিষ্ঠার স্বীকৃতি হিসেবে যে পতাকা আজ আপনারা পেলেন, আমি আশা করি তার মর্যাদা রক্ষার জন্য যেকোনো ত্যাগ স্বীকারে আপনারা সব সময় প্রস্তুত থাকবেন এবং আপনাদের প্রতি জাতির এই আস্থা অটুট রাখার জন্য সর্বদা সচেষ্ট থাকবেন।’
পরে সেনাপ্রধান ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে সংরক্ষণের জন্য ‘টাইগার্স মিউজিয়াম’ নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। অনুষ্ঠানে দু’জন প্রাক্তন সেনাবাহিনী প্রধানসহ ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি)-এর নবগঠিত রামু রিজিয়নের সদর দফতর উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সময়ে বাহিনীটির নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর ব্যাটালিয়নও উদ্বোধন করেন তিনি। বৃহস্পতিবার বিজিবি সদর দফতর পিলখানায় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে আঞ্চলিক সদর দফতর এবং ব্যাটালিয়ন দু’টির পতাকা উত্তোলনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিজিবির একটি সুসজ্জিত দল সামরিক রীতিতে কুচকাওয়াজের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকে রাষ্ট্রীয় সালাম জানায়। এরপর দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। মোনাজাতে বিজিবি তথা দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করা হয়। এ উপলক্ষে বিজিবি সদর দফতর প্রাঙ্গণে গাছের চারা রোপণ করেন প্রধানমন্ত্রী।
পরে পিলখানাস্থ বীর উত্তম ফজলুল রহমান খন্দকার মিলনায়তনে বাহিনীর সব স্তরের কর্মকর্তা এবং সদস্যদের নিয়ে দরবারে মিলিত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে তিনি শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ