খুলনা | মঙ্গলবার | ২২ জানুয়ারী ২০১৯ | ৯ মাঘ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

মুন্না, টিপু ও শুনু প্যানেল মেয়র নির্বাচিত

বিএমডিএফ প্রকল্পে ৩৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকার উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত কেসিসি’র    

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ০৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০১:১৬:০০

ভোটাভুটির মাধ্যমে খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি)’র প্যানেল মেয়র নির্বাচন গতকাল বুধবার নগর ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। সাধারণ সভায় অন্যতম এজেন্ডা হিসেবে বিষয়টি আলোচনার পর গোপন ব্যালটে ৪১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। তবে এর মধ্যে দু’টি ভোট পড়ায় দু’টি ব্যালট বাতিল ঘোষণা হয়। সর্বোচ্চ ২২ ভোট পেয়ে মেয়র প্যানেল-১ নির্বাচিত হয়েছেন ১৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আমিনুল ইসলাম মুন্না, ১৭ ভোট পেয়ে মেয়র প্যানেল-২ নির্বাচিত হয়েছেন ২৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আলী আকবর টিপু ও ১৪ ভোট পেয়ে মেয়র প্যানেল-৩ নির্বাচিত হয়েছেন সংরক্ষিত-৫ আসনের কাউন্সিলর মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু। বিজয়ী সবাই আ’লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী।
এছাড়া নির্বাচনে অংশ নেয়া অন্যান্য প্রার্থী ১৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ আনিছুর রহমান বিশ্বাষ পেয়েছেন ১৩ ভোট, ১৩নং ওয়াডের্র এস এম খুরশিদ আহম্মেদ টোনা পেয়েছেন ৭ ভোট, ১৭নং ওয়ার্ডের শেখ হাফিজুর রহমান হাফিজ পেয়েছেন ৪ ভোট, ২০নং ওয়ার্ডের শেখ মোঃ গাউসুল আজম পেয়েছেন ৫ ভোট, ২১নং ওয়ার্ডের মোঃ শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন পেয়েছেন ৪ ভোট, ২৭নং ওয়ার্ডের জেড এ মাহমুদ পেয়েছেন ৬ ভোট এবং সংরক্ষিত-১ আসনের কাউন্সিলর মনিরা আক্তার পেয়েছেন ৬ ভোট, সংরক্ষিত-২ এর সাহিদা বেগম পেয়েছেন ৮ ভোট, সংরক্ষিত-৬ এর শেখ আমেনা হালিম বেবী পেয়েছেন ৭ ভোট এবং সংরক্ষিত-৮ তে কনিকা সাহা পেয়েছেন ৪ ভোট। 
নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পলাশ কান্তি বালা এবং কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন কেসিসি’র সচিব মোঃ আজমুল হক ও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রহমান। 
এদিকে সিটি কর্পোরেশনের দ্বিতীয় সাধারণ সভা বেলা ১১টায় নগর ভবনের শহিদ আলতাফ মিলনায়তনে মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।  সভায় কেসিসি’র সাবেক কাউন্সিলর এস এম আবুল কালাম আজাদ, সাবেক কমিশনার মোঃ আফসার উদ্দিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী খুলনা চেম্বারের সাবেক সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কাজী শাহনেওয়াজ, কেসিসি’র সাবেক উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সেলিম খান, সাবেক ওয়ার্ড সচিব ফকির নূর ইসলাম ও সাবেক কর্মচারী হাসিনা বানু কচির ইন্তেকালে শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়।
সভায় বিএমডিএফ প্রকল্পের আওতায় ৩৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকার উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। উল্লিখিত অর্থ ব্যয়ে অবকাঠামো উন্নয়ন, রাস্তাঘাট, কিচেন মার্কেট নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা হবে বলে সভায় উল্লে¬খ করা হয়।
সভায় সভাপতির বক্তৃতায় কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন নগরবাসীর সকল প্রকার নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে। এ লক্ষে তিনি খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষসহ সকল সেবাদানকারী সংস্থার কর্মকান্ডের সমন্বয় সাধনের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে খুলনাকে সমৃদ্ধ নগরী হিসেবে গড়ে তোলা দরকার। তিনি বলেন নগরীর পার্শ্ববর্তী উপশহর বা শহরতলী এলাকায় অপরিকল্পিতভাবে নগরায়ন হচেছ। এ সব এলাকায় ভবিষ্যতে নাগরিক সুবিধা প্রদান করা দুস্কর হবে। তাই এখন থেকে পরিকল্পিত নগরায়নের উদ্যোগ নিতে হবে। সভায় কেসিসি’র কাউন্সিলর, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর, কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন সরকারি সংস্থার প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ