খুলনা | শুক্রবার | ১৯ অক্টোবর ২০১৮ | ৪ কার্তিক ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

আৎলীগকে নেতৃত্বশূন্য করতে রাষ্ট্রযন্ত্রের সহায়তায় হামলা : আদালত

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:১০:০০

১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুœ শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর চার নেতাকেও ষড়যন্ত্র করে কারাগারে হত্যা করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূন্য করার হীন প্রচেষ্টা চালানো হয়। তৎকালীন রাষ্ট্রীয় যন্ত্রের সহায়তায় প্রকাশ্যে দিবালোকে ঘটনাস্থলে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে স্পেশালাইজড মরণাস্ত্র আর্জেস গ্রেনেড বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।
গতকাল বুধবার আলোচিত এ মামলার রায় ঘোষণার সময় পর্যবেক্ষণে বিচারক এসব কথা বলেন। দুপুরে রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত বিশেষ আদালতে এ মামলার রায় ঘোষণা করেন বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন। মামলার পর্যবেক্ষণে আদালত বলেন, রাজনীতিতে অবশ্যাম্ভীভাবে ক্ষমতাসীন দল ও বিরোধী দলের মধ্যে শত বিরোধ থাকবে। তাই বলে বিরোধী দলকে নেতৃত্ব শূন্য করার প্রয়াস চালানো হবে? এটা কাম্য নয়। গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের ক্ষমতায় যে দলই থাকবেন, বিরোধী দলের তাদের উদার-নীতি, নীতি প্রয়োগের মাধ্যমে গণতন্ত্র সুপ্রতিষ্ঠিত করার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা থাকতে হবে। 
আদালত বলেন, বিরোধীদলের নেতৃবৃন্দকে হত্যা করে ক্ষমতাসীনদের রাজনৈতিক ফায়দা অর্জন করা মোটেই গণতান্ত্রিক চিন্তার বহিঃপ্রকাশ নয়। সাধারণ জনগণ এ রাজনীতি চায় না। সাধারণ জনগণ চায় যে কোনো রাজনৈতিক দলের সভা, সমাবেশে যোগ দিয়ে সেই দলের নীতি, আদর্শ ও পরিকল্পনা সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান ধারণ করা। আর সেই সভা সমাবেশে আর্জেস গ্রেনেড বিস্ফোরণ করে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সাধারণ জনগণকে হত্যার এ ধারা চালু থাকলে পরবর্তীতে দেশের সাধারণ জনগণ রাজনীতি বিমুখ হয়ে পড়বে।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ








রূপালি গিটার ফেলে চলে গেলেন

রূপালি গিটার ফেলে চলে গেলেন

১৯ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০৬






ব্রেকিং নিউজ


রংপুরের বিপক্ষে খুলনার ড্র

রংপুরের বিপক্ষে খুলনার ড্র

১৯ অক্টোবর, ২০১৮ ০১:১৫