খুলনা | শনিবার | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১ পৌষ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

গভঃ ল্যাবরেটরি স্কুলে অপ্রীতিকর  ঘটনা : সারাদিন উত্তেজনা

ফুলবাড়ীগেট প্রতিনিধি | প্রকাশিত ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০১:১৮:০০

গভঃ ল্যাবরেটরি স্কুলে অপ্রীতিকর  ঘটনা : সারাদিন উত্তেজনা


খুলনা গভঃ ল্যাবরেটরি হাই স্কুলের অপ্রীতিকর ঘটনাকে কেন্দ্র করে অভিভাবকদের মধ্যে দিনভর চরম উত্তেজনা ছিল। এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি(টিসির)  দাবিতে স্কুলের প্রশাসনিক ভবন সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। সন্ধ্যায় এডিসি শিক্ষা  গোলাম মহিউদ্দিন হাসানের ঘটনাস্থলের উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। 
জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার গভঃ ল্যারেটরী হাই স্কুলের টিফিন প্রিয়ড চলাকালে নবম শ্রেণীর ৫ জন ছাত্র ৪র্থ শ্রেণী গোলাপ শাখার কয়েকজন ছাত্রীকে টানতে টানতে ওয়াস রুমের দিকে নিয়ে যেতে চাইলে তার হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করে বিষয়টি তাদের ক্লাসের ছাত্র ছাত্রীদের জানায়। পরে বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর শাপলা শাখার মোঃ তানভীর আহম্মেদ, সাকিবুল হাসান, সাফিন, শাহরিয়ার খন্দকার মৃদুল, মাশরাফি জামান বিষয়টি জানাজানি না করতে ৪র্থ শ্রেণীর ৮/১০ জন শিক্ষার্থীকে ছুরি এবং লাঠি দিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন।
কয়েকজন ভুক্তভোগী জানান, তাদের একজন মুখে রুমাল বেঁধে তাদেরকে ওয়াসরুমের দিকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান তাদেরকে বড় ভয়েরা মুখে রুমাল বেঁধে ছুরি এবং লাঠি দিয়ে ভয়ভীতি  দেখান।  বিষয়টি স্কুল ছুটির পর জানাজানি হলে ভুক্তভোগীদের অভিভাবকরা সহ প্রায় শতাধিক অভিভাবক স্কুলে এসে জড়ো হয়। এই ঘটনায় চরম  উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।  আড়ংঘাটা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে। এডিসি শিক্ষা গোলাম মাহিউদ্দিন হাসান, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জাকির হোসেন সন্ধ্যার পর ঘটনাস্থলে এসে অভিভাবকদের সাথে  বৈঠক করেন।  বৈঠকে দোষীদের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন এবং শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্তে  পরিস্থিতি শান্ত হয়।  এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অভিযুক্ত ৯ম শ্রেণীর ৫ শিক্ষার্থীকে তাদের অভিভাবকের মুচলেকায় ছেড়ে দেওয়া হয় এবং স্কুলের পক্ষ থেকে থানায় একটি সাধারণ ডায়রীর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ