খুলনা | শনিবার | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | ১ পৌষ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

মংলা বন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত 

সাগরে গভীর নিম্নচাপে ব্যাহত হচ্ছে জাহাজের পণ্য ওঠা-নামার কাজ

মংলা প্রতিনিধি | প্রকাশিত ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:৫৪:০০


দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া আর মৌসুমী গভির নিম্নচাপের কারনে বঙ্গোপসাগর এখন উত্তাল। উপকূল জুড়ে বইতে শুরু করেছে ঝড়ো হাওয়া। বঙ্গোপসাগরের প্রচন্ড ঢেউয়ের তোড়ে টিকতে পারছেনা জেলেরা। মংলা বন্দরের বাণিজ্যিক জাহাজগুলোতে ব্যাহত হচ্ছে পণ্য খালাস-বোঝাইয়ের কাজ। মংলাসহ উপকূলীয় অঞ্চলে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে ঝড়ো হাওয়ার সাথে থেমে থেমে বৃষ্টি। মংলা বন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। 
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, মংলা বন্দরে বর্তমানে ১৪টি দেশী-বিদেশী বাণিজ্যিক জাহাজ অবস্থান করছে। যার মধ্যে একটি খাদ্যবাহী গম ও ২টি সারবাহী জাহাজ রয়েছে। ভারি বৃষ্টিপাতের কারনে এসব জাহাজের গম ও সার খালাস করতে পারছেনা বন্দর কর্তৃপক্ষ। এদিকে সুন্দরবনসহ বঙ্গোপসাগরে ইলিশ মাছ ধরা নৌকা ও ট্রলার সমূহকে পরবর্তী  নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশ-পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে এই গভির নিম্নচাপের কারনে গত বুধবার সন্ধা থেকে বঙ্গোপসাগরে ঝড়ো হাওয়া বইতে শুরু করে। এ অবস্থায় প্রবল ঢেউয়ের কারনে বঙ্গোপসাগরে ইলিশ আহরণে নিয়োজিত জেলেরা সাগরে জাল ফেলতে না পেরে ফিরছে নিরাপদ আশ্রয়ে। শত শত ফিশিং ট্রলার সুন্দরবনসহ উপকূলীয় বিভিন্ন নদী ও খালে নিরাপদ আশ্রয় নিয়েছে। বনবিভাগ ও দুবলা ফিসারম্যান গ্র“পের সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দিন এ তথ্য জানায়। মংলা মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি অলিউর রহমান ও মৎস্য ব্যবসায়ী মোঃ লোকমান হোসেন জানান, বঙ্গোপসাগর উত্তাল হওয়ার কারনে ইলিশ জেলেরা মাছ ধরতে পারছে না। আশ্রয় নিয়েছে বনের বিভিন্ন খালে। তারা আরও জানান, ইলিশ মৌসুমে একদিকে সাগরে দস্যুদের উৎপাত আর অন্যদিকে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার ফলে সাগর উত্তল রয়েছে। কয়েক দফা বৈরী আবহাওয়ায় সাগরে জাল ফেলতে না পেরে মহাজন ও জেলেরা হতাশায় পড়েছেন। 
পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ শাহিন কবির জানান, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া আর ভারী বৃষ্টিপাতের কারনে দুবলার চর, নারকেলবাড়িয়া, অফিস কেল্লা, আলোর কোল ও সুন্দরবনের পশুর নদীসহ বনের ছোট ছোট খালে আশ্রয় নিয়েছে এসব ক্ষতিগ্রস্ত জেলেরা। গত ২৪ ঘন্টা যাবত সাগরে জাল ফেলতে না পেরে অলস সময় কাটছে তাদের। এছাড়াও যারা সাগর উপকূলে ইলিশ মাছ ধরছিল তারা গতকাল সকাল থেকে খালি হাতে ফিরে আসতে শুরু করেছে। সাগর থেকে মংলা নদী হয়ে এ পর্যন্ত প্রায় তিন শতাধিক ফিশিং ট্রলার ফিরে আসতে দেখা গেছে। 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ