খুলনা | রবিবার | ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

সাদামাটা ব্যাটিং, ফিল্ডিংয়েও ব্যর্থতা

হতাশার হারে বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর শুরু

ক্রীড়া প্রতিবেদক | প্রকাশিত ২৫ জানুয়ারী, ২০২০ ০০:১৮:০০

পাকিস্তান সফরের শুরুটা ভালো হলো না বাংলাদেশের। অল্প রানের প্ুিজ নিয়েও দারুণ লড়াই করেও শেষ পর্যন্ত পেরে উঠলো না টাইগাররা। তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক পাকিস্তানের বিপক্ষে ৫ উইকেটে হার দিয়ে সফর শুরু করলো মাহমুদল্লাহ রিয়াদের দল। গতকাল শুক্রবার লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে বাংলাদেশ নির্ধারিত ২০ ওভারে বাংলাদেশ ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান সংগ্রহ করে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৩ বল হাতে রেখে ৫ উইকেট হারিয়ে লক্ষে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা। টানা পাঁচ ম্যাচ পর জয়ের স্বাদ পেল দলটি আর সিরিজে এগিয়ে গেল ১-০ ব্যবধানে। একই মাঠে আজ শনিবার সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে খেলতে নামবে উভয় দল।
মূলত বাংলাদেশের ধীরগতির সাদামাটা ব্যাটিং আর পরে একাধিক মিস ফিল্ডিংয়েই হারের বড় আক্ষেপ হয়ে থাকলো বাংলাদেশের। টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ দলের বিপক্ষে মাত্র ১৪১ রানের সংগ্রহ, সেটাও তাদেরই মাটিতে। তারপরও বাংলাদেশের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ম্যাচ শেষ ওভার পর্যন্ত পৌঁছালো। কিন্তু আক্ষেপ হয়ে রইল ওই ব্যাটিংটাই। অন্যদিকে শেষ পর্যন্ত অভিজ্ঞ শোয়েব মালিকের ব্যাটে ভর করে জয় ছিনিয়ে নিল পাকিস্তান।
লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেয় বাংলাদেশ। দেখেশুনে ইনিংসের সূচনা করেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও নাঈম শেখ। পাওয়ার প্লেতে দু’জন মিলে তোলেন ৩৫ রান। এই দু’জন ১১ ওভারে তোলেন ৭১ রান। ৩৪ বলে ৩৯ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান তামিম। তাঁকে রানআউট করে ধীরগতির এই জুটি ভাঙেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। তামিম ফেরার পর নাঈমের সঙ্গে জুটি গড়ার চেষ্টায় ছিলেন লিটন। ১৩ বলে ১২ রান করে রান আউটের শিকার হন লিটন। শাদাব খানের পরের বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ফিরে যান নাঈমও। তিনটি চার ও দু’টি ছক্কায় ৪১ বলে ৪৩ রান করেন তিনি। এরপর আফিফ হোসেন (৯) ও সৌম্য সরকার (৭) ব্যর্থ হন। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১৪ বলে ১৯* রানে অপরাজিত থাকেন। সাত নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামা মিঠুন করেন ৩ বলে ৫* রান। পাকিস্তানের হয়ে একটি করে উইকেট নেন শাহীন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ ও সাদাব খান। 
জয়ের জন্য মাত্র ১৪২ রান তাড়ায় নামা পাকিস্তানের ব্যাটিংয়ের শুরুটা হলো বাংলাদেশের চেয়েও বাজে। পাওয়ার প্লে’তে ৩৬ রানে হারায় তারা দুই উইকেট। ইনিংসের প্রথম বলেই অধিনায়ক বাবর আজম আউট! রিভিউ নিয়েও রক্ষা পাননি এই ওপেনার। দলের আরেক সিনিয়র মোহাম্মদ হাফিজ ৩ বাউন্ডারিতে ১৬ বলে ১৭ রান করে বিদায় নেন। শুরুর ১০ ওভারেও পাকিস্তান ঠিক তেড়ে ফুঁড়ে ব্যাট চালায়নি। লক্ষ্য আয়ত্তের মধ্যে দেখে নিরাপদ ভঙ্গির ব্যাটিংয়ের দিকেই মনোযোগ দেন তারা। জীবনের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে পাকিস্তানি ওপেনার আহসান আলী ৩২ বলে ৩৬ রান করেন। ১২ ওভারে ৮১ রানে ৩ উইকেট হারানো পাকিস্তানকে জয়ের পথ দেখায় শোয়েব মালিক ও ইফতিখার আহমেদের জুটি। বেশি বল নষ্ট না করে এই জুটিতে পাকিস্তান যোগ করে ৩৬ রান।
পাকিস্তানকে ম্যাচের শেষ ওভার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হলেও ৫ উইকেটের বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে তারা। বাংলাদেশের পেসারদের মধ্যে আল-আমিন সেরা সাফল্য দেখান। শুরুর ৩ ওভারে আল-আমিন খরচ করেন মাত্র ১৪ রান। তবে রান খরচায় একটু বেহিসেবি ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। ৪ ওভারে ৪০ রানে ১ উইকেট-দলের স্ট্রাইক বোলারের কাছ থেকে এমন পারফরম্যান্স কোচের চিন্তা তো বাড়াবেই। ম্যাচ জিততে শেষ ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন দাঁড়ায় ৫ রানের। সহজেই সে লক্ষে পৌঁছায় স্বাগতিকরা। 
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ




বড় জয়ে শুরু মুসিলম একাদশের

বড় জয়ে শুরু মুসিলম একাদশের

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০০:০০










ব্রেকিং নিউজ




খুলনায় জমে উঠেছে প্রাণের মেলা  

খুলনায় জমে উঠেছে প্রাণের মেলা  

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৯




দীর্ঘ ১৬ দিন পর সচল হলো বশেমুরবিপ্রবি 

দীর্ঘ ১৬ দিন পর সচল হলো বশেমুরবিপ্রবি 

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৭



মাতৃভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু 

মাতৃভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু 

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৪

ভাষা আন্দোলনের দাবি আজও পূরণ হয়নি

ভাষা আন্দোলনের দাবি আজও পূরণ হয়নি

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৩৯