খুলনা | রবিবার | ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ |

Shomoyer Khobor

বিমান দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণের অর্থ ১.১৭ কোটি টাকা করার প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

চাকুরিতে ৮ম গ্রেড বা ওপরের  পদেও কোটা থাকবে না 

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ২১ জানুয়ারী, ২০২০ ০০:৩৬:০০

সরকারি চাকুরিতে অষ্টম বা তার ওপরের পদেও সরাসরি নিয়োগে কোনো কোটা থাকবে না। বর্তমান পরিপত্র অনুযায়ী, নবম গ্রেড (প্রথম শ্রেণি) এবং ১০ম থেকে ১৩তম গ্রেডের (দ্বিতীয় শ্রেণী) পদে নিয়োগে কোনো কোটা নেই। সরকারি চাকুরিতে কোটার বিষয়ে আগের জারি করা পরিপত্র স্পষ্ট করতে এই প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দেওয়া এই প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়।  বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।
সংবাদ ব্রিফিংয়ে দেওয়া লিখিত কাগজে বলা হয়, সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) নবম গ্রেড এবং ১০ম থেকে ১৩তম গ্রেড ছাড়াও অষ্টম গ্রেড বা তার ওপরের গ্রেডের কোনো কোনো পদে সরাসরি নিয়োগ দিয়ে থাকে। কিন্তু আগের পরিপত্রে কেবল নবম গ্রেড (প্রথম শ্রেণী) এবং ১০ম থেকে ১৩তম গ্রেডের (দ্বিতীয় শ্রেণী) পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা বাতিল করা হলেও অষ্টম বা তার ওপরের গ্রেডের পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা বণ্টন পদ্ধতি কি হবে, সে বিষয়ে সুস্পষ্ট নির্দেশনা নেই। এ জন্যই পরিপত্রটি সংশোধনের প্রয়োজন।
এছাড়া বৈঠকে ‘আকাশপথে পরিবহন (মন্ট্রিল কনভেনশন) আইন, ২০২০’-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। নতুন আইনে প্রাপ্য ক্ষতিপূরণ দেশি টাকায় ২০ লাখ ৩৭ হাজার ৬শ’ টাকা (প্রায়) থেকে বাড়িয়ে এক কোটি সতের লাখ ৬২ হাজার ৩৩৪ টাকা (প্রায়) করা হয়েছে। এছাড়া ফ্লাইট দেরি হলে ও মালপত্র নষ্ট বা হারিয়ে গেলেও পাবেন বড় অঙ্কের ক্ষতিপূরণ।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘মন্ত্রিসভা আকাশ পথের যাত্রীদের সুরক্ষা প্রদানের লক্ষে মন্ট্রিল কনভেনশন-১৯৯৯ এর আলোকে এই আইনটির খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে।’ তিনি বলেন, মন্ট্রিল কনভেনশনটি অনুস্বাক্ষর এবং যাত্রীর মৃত্যু, আঘাত ও মালামাল নষ্ট/ হারানোর ক্ষতিপূরণ প্রদান সহজীকরণের জন্য মন্ট্রিল কনভেনশনের আলোকে আকাশ পথে পরিবহন (মন্ট্রিল কনভেনশন, ১৯৯৯) আইন, ২০১৯-এর খসড়াটি প্রণয়ন করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আইনটি প্রণীত হলে হলে যাত্রীর মৃত্যু/আঘাত, ব্যাগেজ ও কার্গো ক্ষতি/হারানোর ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণের হার পূর্বের থেকে অনেক বৃদ্ধি পাবে।’ এ সংক্রান্ত আইনটি প্রণীত না হওয়ায় ২০১৭ সালে নেপাল বিমান দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তরা নাম মাত্র ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
বৈঠকে বাংলাদেশ ট্রাভেল এজেন্সি (নিবন্ধন ও নিয়ন্ত্রণ) সংশোধন আইনের খসড়া এবং আয়োডিনযুক্ত লবণ আইনের খসড়াও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ৬ এপ্রিল আন্তর্জাতিক ক্রীড়া দিবসের পাশাপাশি এদিন জাতীয় ক্রীড়া দিবস পালনের প্রস্তাবও অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ









চার বিএসএফ সদস্য আটক পতাকা বৈঠকে ফেরত

চার বিএসএফ সদস্য আটক পতাকা বৈঠকে ফেরত

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০০:০০



নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে মামলা করছে দুদক

নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে মামলা করছে দুদক

২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০০:৫৩


ব্রেকিং নিউজ




খুলনায় জমে উঠেছে প্রাণের মেলা  

খুলনায় জমে উঠেছে প্রাণের মেলা  

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৯




দীর্ঘ ১৬ দিন পর সচল হলো বশেমুরবিপ্রবি 

দীর্ঘ ১৬ দিন পর সচল হলো বশেমুরবিপ্রবি 

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৭



মাতৃভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু 

মাতৃভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধু 

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৪৪

ভাষা আন্দোলনের দাবি আজও পূরণ হয়নি

ভাষা আন্দোলনের দাবি আজও পূরণ হয়নি

২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ০১:৩৯