খুলনা | শুক্রবার | ১৭ অগাস্ট ২০১৮ | ২ ভাদ্র ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

‘কোটা নিয়ে ছাত্রলীগকে বাড়াবাড়ি  না করতে নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর’

সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী দলগুলো নিয়েই অক্টোবরে নির্বাচনকালীন সরকার : কাদের

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ২৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০৫:০০


অক্টোবরের যে কোনো সময়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন হবে এবং সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী দলগুলো নিয়েই এ সরকার গঠিত হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রবিবার বেলা ১১টার দিকে সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।
তিনি বলেন, অক্টোবরে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হবে। এছাড়া সে মাসের যেকোনো সময়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা হবে। সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী দলগুলো নিয়েই এ সরকার গঠিত হবে। এর বাইরে অন্য কাউকে রাখার কোনো সুযোগ নেই। খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ বিএনপি’র দেয়া চার শর্ত মেনে নির্বাচন করার বিষয়ে তিনি বলেন, নির্বাচন কারো শর্ত মেনে হবে না। নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। সরকার মনে করছে না এ বিষয়ে কোনো সংলাপের প্রয়োজন আছে। কেন না দেশে এমন কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি যে তা নিয়ে সংলাপে বসতে হবে।
পাশাপাশি তিনি আরো বলেন, বিএনপি’র পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে তারা নির্বাচন প্রতিহত করবে। আমাদের আশঙ্কা বিএনপি নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র এবং নাশকতার চেষ্টা করবে। তবে এ ষড়যন্ত্র আমরা জনগণকে নিয়ে এটা প্রতিহত করবো।
সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া নির্বাচন হবে না বিএনপির এই ঘোষণায় চক্রান্ত, নাশকতা ও ষড়যন্ত্রের আশঙ্কা করছে সরকার। নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপি’র আসার কোনো সুযোগ নেই মন্তব্য করেন তিনি।
আসন্ন নির্বাচনের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, অক্টোবর মাসেই নির্বাচনের শিডিউল ঘোষণা হবে, নির্বাচন কমিশন অলরেডি বলে দিয়েছে। ডিসেম্বরে মাসের এক সময়ে নির্বাচন হবে, সেই ইঙ্গিত ইশারাও ইলেকশন কমিশন থেকে দেওয়া হয়েছে। আমরা তো জানি সারাদেশে বিএনপি নির্বাচনী প্রস্তুতি চালাচ্ছে, হঠাৎ করে তারা বলছে বেগম জিয়া ইলেকশন করতে না পারলে, ইলেকশন করতে দেওয়া হবে না। এক কাঠি এগিয়ে গিয়ে তারা এখন বলছে এই নির্বাচনকে তারা প্রতিহত করবে, সেখানে আমাদের কী করার আছে।’
‘কোনো শর্তযুক্ত নির্বাচন বাংলাদেশে হবে না, শর্ত হচ্ছে বাংলাদেশের সংবিধানের বিধান, সংবিধানের বিধান অনুযায়ী ইলেকশন হবে। এখানে শর্তের কোনো প্রয়োজন নেই। উই ক্যান নট গো বিয়ন্ড আওয়ার কনস্টিটিউশন। সরকারের পক্ষ থেকে আমরা কোনো সংলাপ অনুভব করছি না।’ বলে এ সময় জানান ওবায়দুল কাদের।
কাদের বলেন, নির্বাচন যাতে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয় এবং কেউ যাতে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন না করে সে ব্যাপারে রুলিং পার্টি হিসেবে সব ধরনের করণীয় পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। প্রশাসন থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা যেন শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচনে যার যার ভূমিকা রাখে, এবং নির্বাচনে অযাচিত কোনো হস্তক্ষেপ না হয় সে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সবাইকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে  জানান ওবায়দুল কাদের।
কোটা সংস্কারের আন্দোলনকারীদের উপর হামলার সঙ্গে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের জড়িত থাকার কথা এতোদিন স্বীকার না করলেও তাদের ‘বাড়াবাড়ি’ না করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সতর্ক করেছেন বলে জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।
কাদের বলেন, “একটি বিষয়ে আমরা কিছু অভিযোগ পেয়েছি যে, কোটা সংস্কারের আন্দোলনে ছাত্রলীগের নামে কিছু বাড়াবাড়ির অভিযোগ আমরা পেয়েছিলাম। “কালকে (শনিবার)  সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আমাদের সভার শেষে নেত্রী শেখ হাসিনা পরিষ্কারভাবে আমার সামনে ছাত্রলীগ নেতাদের বলেছেন, ‘ছাত্রলীগের নামে যেন কোনো বাড়াবাড়ির অভিযোগ আর তিনি না পান; পরিষ্কারভাবে তাদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে, যাতে ছাত্রলীগের নামে বাড়াবাড়ির কোনো অভিযোগ যেন আমাদের কাছে না আসে।”
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ








চিরনিদ্রায় গোলাম সারওয়ার

চিরনিদ্রায় গোলাম সারওয়ার

১৭ অগাস্ট, ২০১৮ ০০:০৮



আমীর খসরুকে  দুদকে তলব 

আমীর খসরুকে  দুদকে তলব 

১৭ অগাস্ট, ২০১৮ ০০:০২



ব্রেকিং নিউজ











ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা

ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা

১৭ অগাস্ট, ২০১৮ ০১:০২