খুলনা | বৃহস্পতিবার | ১৮ অক্টোবর ২০১৮ | ৩ কার্তিক ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

খুলনায় শেষ ম্যাচে যুবাদের বড় জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক | প্রকাশিত ২১ জুলাই, ২০১৮ ০০:৩৭:০০

খুলনায় দুই সপ্তাহের ক্যাম্প শেষ হয়েছে হাই পারফরমেন্স (এইচপি) টিমের। গতকাল শুক্রবার অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচের মধ্যে দিয়ে এই ক্যাম্প শেষ হলো। প্রথম দুই ম্যাচে এইচপি টিম জয় পেলেও সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডতে বাংলাদেশ যুবাদের কাছে এক প্রকার উড়ে গেলো। এদিন অনূর্ধ্ব-১৯ দল ১২২ রানের বড় ব্যবধানে এইচপি টিমকে পরাজিত করে। খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ৪৯.৫ ওভারে ২১২ রান সংগ্রহ করে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৩৯.৪ ওভারে মাত্র ৯০ রানেই গুটিয়ে যায় এইচপি টিম। এই ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেছেন এইচপি টিমের ইমরান আলী। 
টসে জিতে এদিন আগে ব্যাট করতে নেমে ২৪ রানের উদ্বোধনী জুটিতে শুরুটা খুব একটা ভালো হয়নি অনূর্ধ্ব-১৯ দলের। এরপর ৪৯ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে তারা আরও বিপর্যয়ে পড়ে। তবে সেখান থেকে দারুণ ব্যাটিং দৃঢ়তায় দলকে সামনে এগিয়ে নেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান প্রান্তিক নওরোজ ও শামীম পাটওয়ারী। দুই জনই অর্ধশতের দেখা পান। এই জুটিতে যোগ হয় ১১১ রান। দলীয় ১৬০ রানে শামীম পাটওয়ারীর আউটে এ জুটি ভাঙে। আউট হওয়ার আগে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেন তিনি। ৭২ বলে ৪টি বাউন্ডারি ও সমান সংখ্যক ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে এ রান করেন তিনি। এরপর প্রান্তিক নওরোজের সাথে জুটি বাধেন রকিবুল হাসান। এ দু’জনও ব্যাটিং দৃঢ়তা দেখান। তবে ভালো খেলতে থাকা প্রান্তিক নওরোজ ফিরে যান ৬৪ রান করে। ১১৯ বলে ৩টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৬৪ রান করেন তিনি। আর রকিবুল হাসানের ব্যাটে দ্রুত যোগ হয় ৩২ রান। মাত্র ২৮ বলে ২টি বাউন্ডারি ও একটি ওভার বাউন্ডারি ছিলো তার ইনিংসে। শেষদিকে দ্রুত উইকেট হারাতে থাকলে অনূর্ধ্ব-১৯ দল ইনিংসের এক বল বাকি থাকতে ২১২ রান করে অল আউট হয়ে যায়। শেষ ওভারে পরপর তিন বলে তিন উইকেট নিয়ে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন এইচপি টিমেন ইমরান আলী। মোট ৪টি উইকেট নেন তিনি। এছাড়া আসিফ ও রবিউল নেন ২টি করে উইকেট। পেস বোলার আল আমিন এদিন ৩ ওভার বল করে উইকেট শূন্য ছিলেন। 
জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বোলারদের তোপের মুখে পড়ে এইচপি টিম। দলীয় ১২ রানে প্রথম উইকেট হারায় তারা। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ২১ রানের মধ্যে তিন উইকেট হারিয়ে ফেলে। সেখান থেকে ৪৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে চরম বিপর্যয়ে পড়ে। শেষ পর্যন্ত এই বিপর্যয় আর সামলে উঠতে পারেনি এইচপি টিম। ৩৯.৪ ওভারে মাত্র ৯০ রানেই অল আউট হয়ে যায়। দলের হয়ে বলার মতো ২০ রান করেছেন হৃদয়। বিজয়ী দলের হয়ে মেহেদী হাসান অনি ৩টি ও রুহাল আহমেদ নেন ২ উইকেট। এছাড়া একটি করে উইকেট নেন মেহেদী হাসান, নাইম হাসান, রকিবুল হাসান ও শামীম পাটওয়ারী। ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন বিজয়ী দলের অধিনায়ক শামীম পাটওয়ারী। 
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ

ব্যাটে বলে খুলনায় সৌম্যময় দিন

ব্যাটে বলে খুলনায় সৌম্যময় দিন

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:১০

‘এই ট্রফি একদিন  আমাদের ঘরে আসবে’

‘এই ট্রফি একদিন  আমাদের ঘরে আসবে’

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:১০







বিশ্বকাপ ট্রফি আসছে না খুলনায়

বিশ্বকাপ ট্রফি আসছে না খুলনায়

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ০১:০৫

চার হাজার রানের মাইলফলকে জিয়া

চার হাজার রানের মাইলফলকে জিয়া

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:১০




ব্রেকিং নিউজ











শারদীয় দুর্গোৎসবের  আজ মহানবমী

শারদীয় দুর্গোৎসবের  আজ মহানবমী

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:৪৯