খুলনা | বৃহস্পতিবার | ১৮ অক্টোবর ২০১৮ | ৩ কার্তিক ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

ব্যবস্থা না নিলে আজ থেকে কর্মবিরতির হুমকি কর্মচারী ইউনিয়নের

মোবাইল চুরির অভিযোগে খুমেক কর্মচারীকে বেধড়ক পিটিয়েছে ছাত্রলীগ নেতা রবিন

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১৬ জুলাই, ২০১৮ ০১:২৮:০০

মোবাইল চুরির অভিযোগে খুমেক কর্মচারীকে বেধড়ক পিটিয়েছে ছাত্রলীগ নেতা রবিন

খুলনা মেডিকেল কলেজের ছাত্রাবাসে মোবাইল চুরির অভিযোগে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী মোঃ আবুল কাশেমকে বেধড়ক পিটিয়েছে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রবিন। গতকাল রবিবার সকালে এ ঘটনায় আহত আবুল কাশেমকে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে এ ঘটনায় কর্মচারীরা কাজ বন্ধ করে আজ দুপুর ১২টা পর্যন্ত আল্টিমেটাম দিয়েছে। দাবি না মানলে ১২টার পর থেকে কর্মবিরতি পালন করবে চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারী ইউনিয়নের খুমেক শাখা।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইন্টার্ণ চিকিৎসক আশরাফুল ইসলাম রবিনের রুম থেকে একটি মোবাইল চুরি হয়। গতকাল সকালে ঝাড়– দেয়ার জন্য ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী মোঃ আবুল কাশেম হোস্টেলে গেলে তাকে বেধড়ক পিটুনি দেয় আশরাফুল ইসলাম রবিন। এ সময় অন্য কর্মচারীরা তাকে উদ্ধার করে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করে। এদিকে এ খবর জানাজানি হলে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীরা কলেজের সকল পরিচ্ছন্নতা ও দাপ্তরিক কাজ বন্ধ করে দেয় এবং অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করে। তারা আশরাফুল ইসলাম রবিনের ইণ্টার্ণশীপ বাতিলের দাবিসহ কলেজের হোস্টেল ছাড়ার দাবি করেন।
কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি শেখ জামান উল্লাহ জানান, ইন্টার্ন চিকিৎসক হওয়া সত্ত্বেও ডাঃ রবিন ছাত্র হোস্টেলে অবস্থান করেন, যা’ বেআইনি। তিনি নিজের ক্ষমতা প্রদর্শন করতে গিয়ে বিনা কারণে আবুল কাশেমকে মারধর করেছেন। এ ঘটনার বিচারের দাবিতে আজ দুপুর ১২টা পর্যন্ত আল্টিমেটাম দেয়া হয়েছে। কলেজ প্রশাসন যদি কোন ব্যবস্থা না নেয় তাহলে আগামীকাল (আজ) দুপুর ১২টা থেকে কর্মবিরতি পালন করা হবে। অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। 
এ ঘটনায় কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইন্টার্ণ চিকিৎসক মোঃ আশরাফুল ইসলাম রবিন বলেন, কাশেম মামা সম্পর্কে সম্পূর্ণ হোস্টেলগুলোর ছাত্ররা জানে। এর আগেও একাধিক ঘটনা ঘটেছে। আমার দু’টো ও আমার রুম মেটের ১টি মোবাইল নিয়ে গেছে। এরপর গতকাল কাশেম মামা হোস্টেলে আসলে সকল ছাত্ররা তাকে মারতে উদ্ধত হলে আমি কয়েকটি চড় থাপ্পর দিয়ে তাকে গণপিটুনির হাত থেকে বাঁচিয়েছি। না হলে পরিস্থিতি অন্যরকম হতো।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ










শারদীয় দুর্গোৎসবের  আজ মহানবমী

শারদীয় দুর্গোৎসবের  আজ মহানবমী

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:৪৯




ব্রেকিং নিউজ











শারদীয় দুর্গোৎসবের  আজ মহানবমী

শারদীয় দুর্গোৎসবের  আজ মহানবমী

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:৪৯