দাকোপের পল্লীতে যুবককে গলা কেটে হত্যা


দাকোপের পল্লীতে এক মৎস্য শিকারী যুবককে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার মধ্যে রাতে কামারখোলা ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের মধ্যেবিলে ঠাকুরুন বাড়ির খালে। পুলিশ খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য থানায় এনে রেখেছেন। এ ঘটনায় এলাকায় মৎস্য শিকারী ও স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
থানা পুলিশ, এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, নিহত নাসির সানা (৩৭) উপজেলার ৬নং কামারখোলা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড জয়নগর গ্রামের বাসিন্দা মোঃ রাজ্জাক সানার পুত্র। তিন কন্যা সন্তানের জনক নাসির সানা পাঁচ সদস্যের পরিবারের জীবন জীবিকা নির্বাহের জন্য বাড়ির পার্শ্ববর্তী জয়নগর গ্রামের মধ্যেবিলের কয়য়েকটি খালে ও স্থানীয় নদীতে জাল ও পাটা পেতে মাছ শিকার করতো। এরই ধারাবাহিকতায় গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর ওই বিলে ও নদীতে মাছ শিকারের জন্য যায়। কিন্তু রাত গভীর হলেও নাসির সানা বাড়ি না ফেরায় তখন তার স্ত্রী সখিনা বেগমসহ পরিবারের লোকজন নিকট আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে তার সন্ধান করতে থাকলেও কোন সন্ধান মেলেনি। গতকাল বুধবার সকালে তার স্ত্রী ঠাকরুন বাড়ির খালের মাথায় গিয়ে নাসিরের গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে ডাক চিৎকার করতে থাকে। এ সময় স্থানীয়রা নাসিরের স্ত্রী ও মেয়ের ডাকচিৎকারে ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে নাসিরের গলাকাটা লাশ দেখতে পান এবং লাশ উদ্ধার করে স্থানীয় ঈদগাহ ময়দানে এনে রাখেন। পরে থানায় খবর দিলে এস আই মাসুদ লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহাবুদ্দিন চৌধুরী বলেন, খবর পেয়ে নাসিরের গলাকাটা লাশটি স্থানীয় ঈদগাহ ময়দান থেকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য আজ বৃহস্পতিবার খুলনা মর্গে প্রেরণ করা হবে। এ ব্যাপারে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হবে বলে জানা গেছে।   
 


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।