খুলনা | বৃহস্পতিবার | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

‘সিগন্যাল বিভ্রাট’ : স্টেশন মাস্টার পলাতক

টঙ্গীতে কমিউটার ট্রেন লাইনচ্যুত  নিহত ৫ : তদন্ত কমিটি গঠন 

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০১:৩৯:০০

গাজীপুরের টঙ্গীর নতুন বাজার রেললাইনে ঢাকাগামী জামালপুর কমিউটার ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে নিহতের সংখ্যা বেড়েছে। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে আনা আহত সাতজনের মধ্যে একজন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে এই দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল পাঁচজনে। রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে টঙ্গীর নতুন বাজার এলাকায় ঢাকা-জয়দেবপুর রেললাইনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। 
ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা আতিকুর রহমান বলেন, ‘জামালপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী জামালপুর কমিউটার ট্রেন টঙ্গীর নতুনবাজার এলাকায় পৌঁছালে পেছনের পাঁচটি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ সময় ঘটনাস্থলেই কাটা পড়ে চারজন মারা যান। আহত হন কমপক্ষে ৩০ জন।’ এ দুর্ঘটনার পর উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।
গুরুতর আহত সাতজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ভর্তি করা হলে বেলা আড়াইটার দিকে চিকিৎসকরা শাহাদাত মিয়া (৩০) নামের এক ব্যক্তিকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত শাহাদাত ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার মশাখালী গ্রামের বাসিন্দা। 
নিহতের বোনের ছেলে আমিরুল জানান, তিনি ও তাঁর মামা ঢাকার তেজগাঁও এলাকায় রিকশা চালান। প্রতিদিনের মতো ট্রেনের ছাদে করে ঢাকায় ফিরছিলেন দু’জনে। পথে এই দুর্ঘটনা ঘটলে গুরুতর আহত হন তাঁর মামা। পরে ঢামেকে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। ঢামেকে চিকিৎসাধীন আহতরা হলেন সবুজ (৪০), বাদল (৫০), আলমগীর (২৩), শরিফ শেখ (২৮), ইসরাফিল (১২) ও বাদল হোসেন (২৮)। ওই ট্রেনটির যাত্রী এবং আহত ইসরাফিলের মা জরিনা জানান, তাঁরা কমলাপুর এলাকায় থাকেন। ময়মনসিংহ সদর এলাকার বাড়ি থেকে ট্রেন যোগে ঢাকায় ফেরার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন।
দুর্ঘটনার বর্ণনা দিয়ে জরিনা বলেন, ট্রেনটি টঙ্গী স্টেশনে পৌঁছে প্রায় এক ঘণ্টা থেমে ছিল। এরপর ট্রেন চালু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে একটি আওয়াজ শুনতে পান তাঁরা। পরে ট্রেনের জানালা দিয়ে দেখতে পান, সামনের বগিগুলো একে একে পড়ে যাচ্ছে। তখন জরিনা তাঁর ছেলে ইসরাফিলকে নিয়ে ট্রেনের জানালা দিয়ে বেরিয়ে আসেন। এ সময় তাঁর ছেলে আহত হয়। তবে তাঁদের মতো অনেক যাত্রীই সেই সময় ট্রেনের জানালা দিয়ে বেরিয়ে আত্মরক্ষা করেছেন বলেও জানান তিনি। 
চিকিৎসকের বরাত দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক বাবুল মিয়া জানান, যে আহত ব্যক্তি আহত চিকিৎসাধীন রয়েছেন তাঁরা প্রায় সবাই তুলনামূলক ভালো আছেন। সিগন্যাল বিভ্রাটের কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। দুর্ঘটনার পর থেকেই টঙ্গীর স্টেশন মাস্টার পলাতক রয়েছেন।’
ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রেলমন্ত্রী মজিবুল হক জানিয়েছেন, এ দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলীকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। এছাড়া নিহতদের পরিবারের সদস্যদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ এবং আহতদের চিকিৎসায় খরচ বহন করা হবে বলেও জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী।


 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ





ইয়েমেনে দুর্ভিক্ষে ৫০ লাখ শিশু 

ইয়েমেনে দুর্ভিক্ষে ৫০ লাখ শিশু 

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৩:৫৩



‘বন্দুকযুদ্ধে’ যশোরের হানিফসহ নিহত ৫

‘বন্দুকযুদ্ধে’ যশোরের হানিফসহ নিহত ৫

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:৪৯


জনগণের অসহায় বোধ করার কিছু নেই: ড. কামাল

জনগণের অসহায় বোধ করার কিছু নেই: ড. কামাল

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৩:২২


সুপার ফোরে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান

সুপার ফোরে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৩:২১


ব্রেকিং নিউজ



আজ-কালের মধ্যে  বৃষ্টির সম্ভাবনা 

আজ-কালের মধ্যে  বৃষ্টির সম্ভাবনা 

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০১:০৫







মাইলফলকের সামনে মাশরাফি

মাইলফলকের সামনে মাশরাফি

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:৫৩