খুলনা | বৃহস্পতিবার | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ |

মুহাম্মদ (সা.) শ্রেষ্ঠ ও শেষ নবী

১৫ এপ্রিল, ২০১৮ ১৭:১৬:০০

মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম শ্রেষ্ঠ ও শেষ নবী। তারপর আর কোনো নবী পৃথিবীতে আসবেন না। হজরত যুবাইর বিন মুতইম (রা.) থেকে বর্ণিত, রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, আমি মুহাম্মদ, আমি আহমদ, আমি মাহী অর্থাৎ আমার দ্বারা আল্লাহতায়ালা কুফরকে চিরতরে মিটিয়ে দিয়েছেন। আমি হাশের অর্থাৎ আমার পরই কেয়ামত কায়েম হবে। (মধ্যবর্তী সময়ের কোনো নবী হবে না।) আমি আ’কিব। আ’কিব তাকে বলা হয়, যার পরে কোনো নবী নেই (বোখারি, মুসলিম)।
হজরত সা’দ বিন আবী ওয়াক্কাস (রা.) থেকে বর্ণিত, রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কোনো এক যুদ্ধ অভিযানে (তবুক যুদ্ধ) হজরত আলী (রা.)-কে সঙ্গে না নিয়ে মদিনায় রেখে যান। তখন হজরত আলী (রা.) আরজ করেন, হে আল্লাহর রসুল! আপনি আমাকে নারী ও বাচ্চাদের সঙ্গে রেখে যাচ্ছেন? এ কথা শুনে রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাকে সম্বোধন করে সান্ত্বনা দিয়ে বলেন, তুমি কি এতে সন্তুষ্ট নও যে, তুমি আমার কাছে সেই পর্যায়ের হবে যেই পর্যায়ে হজরত হারুন (আ.) ছিলেন হজরত মুসা (আ.)-এর কাছে। (উদ্দেশ্য শুধু স্থলাভিষিক্ত হবে।) কিন্তু একটি কথা স্মরণ রেখো আমার পর কোনো নবী নেই। অন্য এক বর্ণনায় আছে, তবে মনে রেখো, তুমি কোনো নবী নও (মুসলিম, বোখারি)।
আবু হাজেম (রা.)-এর সূত্রে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি সাহাবি হজরত আবু হুরায়রা (রা.)-এর সংস্পর্শে পাঁচ বছর ছিলাম। আমি তাকে রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে বর্ণনা করতে শুনেছি যে, রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করেন, বনি ইসরাইলের নেতৃত্ব প্রদান করতেন স্বয়ং নবীগণ, যখনই কোনো নবীর ইন্তেকাল হতো অন্য একজন নবী তার স্থলাভিষিক্ত হতেন। তবে জেনে রেখো আমার পর আর কোনো নবী নেই (বোখারি, মুসলিম)।
হজরত ছাওবান (রা.) সূত্রে বর্ণিত, রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, অতি শিগগিরই আমার উম্মতের মধ্যে ৩০ জন সর্বাধিক মিথ্যুক-ভণ্ডের আত্মপ্রকাশ ঘটবে। তাদের প্রত্যেকেই নবী হওয়ার দাবি করবে। অথচ আমিই সর্বশেষ নবী, আমার পর কোনো নবী নেই। (মুসলিম)।
আবদুল্লাহ বিন ইবরাহিম বিন কারেজ সূত্রে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আমি সাহাবি আবু হুরায়রা (রা.)-কে বলতে শুনেছি, রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, আমিই সর্বশেষ নবী। আমার মসজিদই নবী কর্তৃক নির্মিত সর্বশেষ মসজিদ। (মুসলিম)।
লেখক : ইসলামী গবেষক।
সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ

রহস্যময় আবে যমযম কূপ

রহস্যময় আবে যমযম কূপ

১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০৯

পবিত্র আশুরা  ২১ সেপ্টেম্বর

পবিত্র আশুরা  ২১ সেপ্টেম্বর

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০


হজে গুনাহ মাফ হয়

হজে গুনাহ মাফ হয়

১৬ জুলাই, ২০১৮ ১৩:২৫

শাওয়ালের ছয় রোজা

শাওয়ালের ছয় রোজা

২০ জুন, ২০১৮ ১৩:১১

দুই ঈদের রাত খুবই বরকতময়

দুই ঈদের রাত খুবই বরকতময়

১৪ জুন, ২০১৮ ০১:৪৫




শবে কদর কবে? 

শবে কদর কবে? 

১০ জুন, ২০১৮ ০১:০৯


ফিতরা হলো রোজার যাকাত 

ফিতরা হলো রোজার যাকাত 

০৮ জুন, ২০১৮ ০১:৩৯


ব্রেকিং নিউজ



আজ-কালের মধ্যে  বৃষ্টির সম্ভাবনা 

আজ-কালের মধ্যে  বৃষ্টির সম্ভাবনা 

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০১:০৫







মাইলফলকের সামনে মাশরাফি

মাইলফলকের সামনে মাশরাফি

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:৫৩