খুলনা | সোমবার | ২৩ এপ্রিল ২০১৮ | ১০ বৈশাখ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor
মাওলানা দৌলত আলী খান ইসলাম

ঈমানের সৌন্দর্য

মাওলানা দৌলত আলী খান ইসলাম | প্রকাশিত ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ১১:১৭:০০

ইসলামের মৌলিক বিষয়গুলোর মধ্যে ঈমান সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ইসলামে দীক্ষিত হওয়ার সর্বপ্রথম পদক্ষেপ হলো ঈমান। বীজ ছাড়া যেমন বৃক্ষের অস্তিত্ব কল্পনা করা যায় না, তেমনি ঈমান ছাড়াও মুসলমান দাবি করার চিন্তা করা যায় না। কেননা একজন ব্যক্তি কালেমার স্বীকৃতি দিয়েই ইসলামের গ-ির মধ্যে প্রবেশ করে। কালেমার মাধ্যমেই মুসলমান হওয়ার স্বীকৃতি আদায় করে। কালেমা তথা তৌহিদ, রেসালাত ও আখেরাতের স্বীকৃতি ছাড়া কেউই মোমিন-মুসলমান হিসেবে পরিচিত হতে পারে না। কোনো মানুষ কালেমার স্বীকৃতি দিয়ে ঈমান গ্রহণ করার পর তার চিন্তা-চেতনায় ব্যাপক পরিবর্তন আসে। ফলে সে চুরি, ডাকাতি, রাহাজানিম, হত্যা, ধর্ষণ ইত্যাদি কুকর্মে চিন্তা করে না, করতে পারে না। বরং মানুষের কল্যাণ ও সৎকর্ম সম্পাদনে নিজেকে নিয়োজিত রাখতে সচেষ্ট হয়। তাই বলা হয়, ঈমান এমন এক পরশপাথর, যার ছোঁয়ায় মানুষের অসৎ চিন্তা দূরীভূত হয়ে যায়।
১. ঈমান মানুষকে আল্লাহর পথে পরিচালিত করে : ঈমান গ্রহণের ফলে মানুষ আল্লাহর বিধান পালনে উদ্বুদ্ধ হয়। কেননা ঈমানের দাবি হলো আল্লাহর বিধান অনুযায়ী হালাল, হারাম যাচাই-বাছাই করে জীবন পরিচালিত করা। ফলে মোমিন ব্যক্তি আল্লাহর অসন্তুষ্টির কাজ থেকে বিরত থাকে। এ মর্মে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘রাসুলদের তো শুধু সুসংবাদবাহী ও সতর্ককারী রূপেই প্রেরণ করি, কেউ ঈমান আনলে ও নিজকে সংশোধন করলে তার কোনো ভয় নেই এবং সে দুঃখিত হবে না। পক্ষান্তরে যারা আমার নির্দেশকে মিথ্যা বলছে, সত্য ত্যাগের জন্য তাদের ওপর শাস্তি আপতিত হবে।’ (সূরা আনআম : ৪৮-৪৯)।
আল্লাহ পাক আরও বলেন, ‘যারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে তারা থাকবে জান্নাতের মনোরম স্থানে। তারা তাদের প্রতিপালকের কাছে যা কিছু চাইবে তাই পাবে। এটাই তো মহা অনুগ্রহ। এ সুসংবাদই আল্লাহ দেন তাঁর বান্দাদেরকে, যারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে।’ (সূরা শূরা : ২২-২৩)।
২. ঈমান মানুষকে লজ্জাশীল বানায় : ঈমান মানবজাতিকে শালীন জীবনযাপন করতে শিক্ষা দেয়। নির্লজ্জতা ও বেহায়াপনা থেকে মুক্তি দেয়। কেননা ঈমানদার ব্যক্তি বিশ্বাস করে যে, হায়া বা লজ্জাশীলতাকে নবী আলাইহিস সালাম ঈমানের অপরিহার্য অংশ বলে আখ্যা দিয়েছেন। রাসুলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘ঈমানের ৭০টিরও অধিক শাখা রয়েছে। তার শ্রেষ্ঠটি হলো আল্লাহ তায়ালা ব্যতীত কোনো মাবুদ নেইÑ এ ঘোষণা করা এবং নিম্নতমটি হলো পথ থেকে কষ্টদায়ক জিনিস অপসারিত করা। আর লজ্জাশীলতা ঈমানের একটি বিশেষ শাখা।’ (বোখারি : ৯; মুসলিম : ১৬২)।
উল্লেখিত হাদিস দ্বারা প্রমাণিত হলো যে, ঈমানদার ব্যক্তি লজ্জাশীল হয়। আর লজ্জাশীল ব্যক্তি অশ্লীল কাজ করতে পারে না। এ জন্য ঈমানের সঙ্গে লজ্জাশীলতার সম্পর্ক ওতপ্রোতভাবে জড়িত।
৩. ঈমান আত্মমর্যাদাবোধ জাগিয়ে তোলে : ঈমানদার ব্যক্তি সব বিষয়ে শুধু আল্লাহর ওপর ভরসা করে। দুনিয়ার অপশক্তিকে ভয় পায় না। মোমিনরা আল্লাহ ছাড়া আর কারও সামনে মাথানত করে না। এ প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ বলেন, ‘বলো, আমাদের জন্য আল্লাহ যা নির্দিষ্ট করেছেন তা ব্যতীত আমাদের অন্য কিছু হবে না। তিনি আমাদের কর্মবিধায়ক এবং আল্লাহর ওপরই মোমিনদের নির্ভর করা উচিত।’ ( সূরা তওবা : ৫১)। তিনি আরও বলেন, ‘যারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে দয়াময় আল্লাহ তাদের জন্য সৃষ্টির অন্তরে ভালোবাসা পয়দা করে দেবেন।’ (সূরা মরিয়ম : ৯৬)।
৪. ঈমান মোমিনকে ধৈর্য ও সাহসিকতা শেখায় : ঈমানদার কখনও হতাশ ও ভীত হয়ে পড়ে না। কেননা সে মনে করে বিপদ-আপদ সবই আল্লাহর পক্ষ থেকে আসে। এতে কারও হাত নেই। ফলে সুখ, দুঃখ সর্বাবস্থায় ধৈর্যধারণ করা একজন মোমিনের পক্ষে সম্ভব হয়। এটা ঈমানের বৈশিষ্ট্য। এর মাধ্যমে মোমিনরা পরকালে চিরসুখের স্থান জান্নাত লাভ করবে। এ প্রসঙ্গে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘আর আল্লাহ তোমাকে কষ্ট দিলে তিনি ব্যতীত তা মোচনকারী আর কেউ নেই। পক্ষান্তরে আল্লাহ যদি তোমার মঙ্গল চান তবে তাঁর অনুগ্রহ রদ করার কেউ নেই। তাঁর বান্দাদের মধ্যে যাকে ইচ্ছা তিনি মঙ্গল দান করেন। তিনি ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু।’ (সূরা ইউনুস : ১০৭)।
লেখক : শিক্ষক, নাজিরহাট বড় মাদরাসা, ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ

পবিত্র শবে বরাত ১ মে রাতে

পবিত্র শবে বরাত ১ মে রাতে

১৮ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০৩

মুহাম্মদ (সা.) শ্রেষ্ঠ ও শেষ নবী

মুহাম্মদ (সা.) শ্রেষ্ঠ ও শেষ নবী

১৫ এপ্রিল, ২০১৮ ১৭:১৬




চাঁদ দেখা যায়নি, জমাদিউস  সানি শুরু কাল

চাঁদ দেখা যায়নি, জমাদিউস  সানি শুরু কাল

১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০০:১০

ইসলামে জ্ঞানার্জন ও জ্ঞানীর মর্যাদা

ইসলামে জ্ঞানার্জন ও জ্ঞানীর মর্যাদা

০৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ১৭:৫৮

একাত্মবাদকে হৃদয়ে আঁকড়ে ধরতে হবে

একাত্মবাদকে হৃদয়ে আঁকড়ে ধরতে হবে

২০ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৩:৩১



আখেরাতের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে

আখেরাতের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে

০৬ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৩:২৩



ব্রেকিং নিউজ