খুলনা | সোমবার | ১৮ জুন ২০১৮ | ৪ আষাঢ় ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

কেসিসি’র সেবামূলক কাজে বাধা ও মামলা প্রত্যাহারের  দাবিতে আন্দোলনে কর্মসূচি ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১৪ মার্চ, ২০১৮ ০১:১৮:০০

কেসিসি’র সেবামূলক কাজে বাধা ও মামলা প্রত্যাহারের  দাবিতে আন্দোলনে কর্মসূচি ঘোষণা

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের সেবামূলক কাজে বাধা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলার প্রতিবাদ ও তা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে সংস্থাটির কর্মচারী ইউনিয়ন ও শ্রমিক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ। গতকাল বেলা ১১টায় খুলনা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কর্মচারী ইউনিয়ন সভাপতি ও শ্রমিক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি উজ্জ্বল কুমার সাহা। 
লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সিটি কর্পোরেশন একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। নগর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার পাশাপাশি সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী নগরবাসীর জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সেবা প্রদান করে থাকে। কিন্তু শ্রমিক-কর্মচারীরা সেবা দিতে গিয়ে বিভিন্ন ভাবে লাঞ্ছনার শিকার হচ্ছে। 
তিনি বলেন, চলতি মাসে জার্মান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল তাদের অর্থায়নে সম্পন্নকৃত প্রকল্পগুলো পরিদর্শন করবেন। ফলে নগরীর বাস টার্মিনাল, নদীর পাড়ের ঘাট ও সড়কসমূহ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা, অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও দালান নির্মাণ সামগ্রী অপসারণে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ কঞ্জারভেন্সী বিভাগকে নির্দেশনা দেয়। সেই মোতাবেক নগরীতে মাইকিং করে সকলকে নিজ উদ্যোগে সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়। ঘোষণা অনুযায়ী অনেকেই স্থাপনা ও নির্মাণ সামগ্রী সরিয়ে নিলেও বেশির ভাগ নেয়নি। ফলে কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল হালিমের নেতৃত্বে সেগুলো অপসারণে অভিযান শুরু হয়। তার ধারাবাহিকতায় সুপারভাইজার মোঃ মনিরুল ইসলাম ও সহকারী কঞ্জারভেন্সি অফিসার মোঃ জিয়াউল রহমানের নেতৃত্বে পরিচ্ছন্নকারী একটি টিম গত ৮ মার্চ নগরীর জলিল স্মরণীতে বিভিন্ন জিনিসপত্র অপসারণ করেন। অপসারণের এক পর্যায় সোনার বাংলা প্রোপার্টিস ও মামুন টেডার্স-এর স্বত্বাধিকারীর নির্মাণ সামগ্রী অপসারনে গেলে তারা হামলার শিকার হয়। প্রতিষ্ঠানের মালিক এ এম আল মামুন চৌধুরী পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের উপর চড়াও হয়ে অকথ্যভাষায় গালিগালাজ করে। পরে কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল হালিম পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনেন। এদিকে এ ঘটনায় পরের দিন ৯ মার্চ প্রতিষ্ঠানের মালিক স্বত্বাধিকারী এ এম আল মামুন চৌধুরী বাদী হয়ে কঞ্জারভেন্সী সুপারভাইজার মোঃ মনিরুল ইসলামসহ ৫ জনকে বিবাদী করে হরিণটানা থানায় মামলা করেন। 
তিনি বলেন, এ মামলা উদ্দেশ্য ও ষড়যন্ত্রমূলক। ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করা হলো। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ১৮ মার্চ বেলা ১১টায় পুলিশ কমিশনারের কাছে স্মারকলিপি প্রদান, ২০ মার্চ বেলা ১১টায় নগরভবন চত্বরে শ্রমিক কর্মচারী সমাবেশ, ২২মার্চ কঞ্জারভেন্সি বিভাগের সকল কার্যক্রম বন্ধ ও ১ এপ্রিল নগর ভবন চত্বরে অবস্থান কর্মসূচি। 
তিনি আরও বলেন, এ এম আল মামুন কেসিসির রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ও একটি ট্রেড লাইসেন্সে তিনটি ব্যবসা পরিচালনা করছে। তিনটি ভবনের মালিক হয়েও গৃহকর দিচ্ছে না। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক শেখ মহিউদ্দিন হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ ওহিদুজ্জামান, খান হাবিুবুর রহমান, দুলাল হোসেন রাজা, নুরুন নাহার এ্যানি, আব্দুর রাকিব, জিয়াউর রহমান, মোল্লা মারুফ অর রশিদ, স ম মোকাররম হোসেন, মোঃ ইমতিয়াজ হোসেন, জিয়াউল হাসান টিটু, মোঃ আহসান হাবীব, মোঃ সাইফুর রহমান , জি এম আনোয়ারুল ইসলাম, মোঃ বশির, মোঃ পিন্টু রহমান, কাজী এনামুল হক, মোসাম্মদ মনোয়ারা বেগমসহ সকল সদস্যরা।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ




আজ পবিত্র জুমাতুল বিদা

আজ পবিত্র জুমাতুল বিদা

১৫ জুন, ২০১৮ ০১:০০







আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ

আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ

১৫ জুন, ২০১৮ ০০:৪৬



ব্রেকিং নিউজ




আজ পবিত্র জুমাতুল বিদা

আজ পবিত্র জুমাতুল বিদা

১৫ জুন, ২০১৮ ০১:০০








আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ

আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ

১৫ জুন, ২০১৮ ০০:৪৬