খুলনা | বৃহস্পতিবার | ২৬ এপ্রিল ২০১৮ | ১৩ বৈশাখ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

রিমান্ডে নির্যাতনের অভিযোগ

গ্রেফতারের ৬ দিন পর কারাগারে ছাত্রদল নেতা জাকিরের মৃত্যু

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ১৩ মার্চ, ২০১৮ ০০:৫৯:০০

ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ও তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন মিলন মারা গেছেন। গতকাল সোমবার ভোরে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী অবস্থায় মারা যান মিলন।
গত ৬ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপি’র উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে ফেরার পথে শাহবাগ থানা পুলিশ গ্রেফতার করে জাকির হোসেন মিলনকে। এরপর তাঁকে তিন দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। রিমান্ড শেষে গত শনিবার তাঁকে আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। সেদিন থেকে কারাগারেই বন্দী ছিলেন তিনি।
পরে গতকাল সকালে কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে জাকির হোসেন মিলনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সকাল সাড়ে ৮টায় চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।
শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বলেন, রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের পর সুস্থ অবস্থায় তাঁকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তার ওপর কোনো নির্যাতন চালানো হয়নি বলেও দাবি করেন তিনি।
ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি নাজমুল হাসান নাজমুল হাসান বলেন, ‘একজন তরতাজা মানুষকে ৬ তারিখ গ্রেফতার করা হলো। ৮ তারিখ তিন দিনের রিমান্ড শেষে অসুস্থ অবস্থায় কারাগারে পাঠানো হলে তাঁর মৃত্যু হয়। এর মাধ্যমে প্রমাণিত হয় রিমান্ডে অমানসিক নির্যাতনেই ছাত্রদল নেতা জাকির হোসেনের মৃত্যু হয়েছে।’
অন্যদিকে ছাত্রদলেরর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুন বলেন, ‘ছাত্রদল নেতা জাকির হোসেন মিলনকে রিমান্ডের নামে নির্যাতত করে হত্যা করা হয়েছে। আমরা এই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করছি।’
এদিকে পুলিশের নির্মম নির্যাতনে গুরুতর আহত জাকির হোসেন মিলনকে কারাগারে চিকিৎসা না দিয়ে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি মিলনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বর্তমান শাসকগোষ্ঠী প্রতিহিংসার রাজনীতিতে এতটাই বেপরোয়া হয়ে উঠেছে যে, তারা ন্যূনতম মানবিক বোধটুকুও বিসর্জন দিয়ে দিয়েছে।’
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ