খুলনা | মঙ্গলবার | ২৩ অক্টোবর ২০১৮ | ৮ কার্তিক ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

পৃথক মাইকের আওয়াজে হ-য-ব-র-ল অবস্থা!  

খুলনায় বিএনপি কার্যালয়ের সামনে একশ’ গজের মধ্যে তিন পক্ষের অনশন 

আশরাফুল ইসলাম নূর | প্রকাশিত ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০১:০৩:০০

নগরীর কেডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে হেলাতলা মোড় পর্যন্ত একশ’ গজের মধ্যে অনশনের তিনটি পৃথক জমায়েত হয়েছে খুলনা বিএনপি’র। চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি সকলের এক, তবে বিভক্ত অবস্থান। একই এলাকায় পৃথক মাইকের আওয়াজের তীব্রতায় অনেকটা হ-য-ব-র-ল অবস্থা! এতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে নেতা-কর্মী ও সাধারণ জনগণের মধ্যে। 
সরেজমিনে দেখা গেছে, গতকাল বুধবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে নগরীর দলীয় কার্যালয়ের সামনে নগর বিএনপি’র সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু’র সভাপতিত্বে অনশনে বসেন মহানগরের নেতা-কর্মীরা। অবশ্যই তার কিছুক্ষণ পূর্বে অনশন মঞ্চ তৈরির সরমঞ্জামাদি পুলিশ জব্দ করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ দলটির। মহানগর শাখার জমায়েতের মাত্র দু’হাত ফাঁকা দিয়েই জেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি ডাঃ গাজী আব্দুল হক ও সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খানের নেতৃত্বে অনশনে বসেন নেতা-কর্মীরা। তার অদূরেই হেলাতলা মোড়ে নগর বিএনপি’র কোষাধ্যক্ষ এস এম আরিফুর রহমান মিঠু’র সভাপতিত্বে অনশনে বসেন তার অনুসারীরা। এতে প্রায় একশ’ গজের মধ্যেই পৃথক এ তিনটি জমায়েত অনশন কর্মসূচি পালন করে। মহানগর ও জেলা উচ্চ শব্দের মাইক, আর আরিফুর রহমান মিঠু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জমায়েতে হ্যান্ডমাইক ব্যবহৃত হয়। প্রায় আট ঘন্টার এ কর্মসূচি চলাকালে একই এলাকায় পৃথক মাইকের আওয়াজের তীব্রতায় অনেকটা হ-য-ব-র-ল অবস্থার সৃষ্টি হয়। এর আগে, গত ১২ ফেব্র“য়ারি দলীয় কার্যালয়ের সামনে একটি শেষের পর অপরটি এভাবে পৃথক কর্মসূচি পালন করে জেলা, মহানগর ও মিঠু গ্র“প। দলের চরম এ দুঃসময়েও শীর্ষ নেতাদের মধ্যকার দূরত্বে ব্যাথিত গৃহত্যাগী তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। অহিংস কর্মসূচিতে জনসম্পৃক্ততা ও জনপ্রিয়তা বাড়লেও খুলনা বিএনপি’র শীর্ষ নেতাদের দুরত্ব থেকে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।
নগর ও জেলার একাধিক নেতা জানান, মহানগর বিএনপি’র শীর্ষ এক নেতা জেলা শাখাকে সাথে নিয়ে একত্রে কর্মসূচি পালনের প্রস্তাব দিয়েছিলেন তাদের শীর্ষ নেতাদের। তুচ্ছ অজুহাতে ‘না’ করে দিয়েছেন ঐক্যবদ্ধ কর্মসূচি পালনের প্রস্তাব।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে দলীয় সূত্র জানিয়েছে, ছাত্রদলের সাবেক এক কেন্দ্রীয় নেতার নিয়ন্ত্রণ রয়েছে জেলা বিএনপিতে। তার প্রচেষ্টায় জেলা বিএনপি’র বর্তমান কমিটি অনুমোদন হওয়ায় নির্দেশনা অমান্য করতে পারছেন না শীর্ষ নেতারা। আবার, জেলা বিএনপি’র সভাপতি এড. শফিকুল আলম মনার অনুসারীরা আসন্ন নির্বাচনে সিটি মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন দীর্ঘদিন। নগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনি কেসিসি’র বর্তমান মেয়র। এ নিয়েও নগর ও জেলা’র শীর্ষ নেতাদের মধ্যে রয়েছে দূরত্ব। অপরদিকে, খুলনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য প্রার্থী হতে ইচ্ছুক ছাত্রদলের ওই সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা। এদিকে নগর বিএনপি’র কোষাধ্যক্ষ এসএম আরিফুর রহমান মিঠুও সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে প্রচার-প্রচারণা দীর্ঘদিনের। এ কারণে দু’জনের মধ্যে ঠান্ডা লড়াই চলছে বছর দুয়েক।
তৃণমূল নেতা-কর্মীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত ৮ ফেব্র“য়ারি সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পাঁচ বছরের সাজার প্রতিবাদে অহিংস ও শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে স্বতঃস্ফূর্ত খুলনা বিএনপি’র নেতা-কর্মী-সমর্থকরা। গ্রেফতার আতঙ্ক, পুলিশী হয়রানি ও সহিংসতা এড়িয়ে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে নেতা-কর্মীদের অংশ গ্রহণ বাড়ছে। কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারী কয়েকজন নেতা-কর্মী বলেন, “বিএনপি চেয়ারপারসন কারারুদ্ধ, দল এখন চরম দুঃসময়ে; এ অবস্থাতেও অভ্যন্তরীণ দূরত্ব কষ্ট দিচ্ছে কর্মীদের।
বিএনপি’র বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও নগরের সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, “বিএনপি দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল; খুলনা মহানগর শাখাও অনেক বড় সংগঠন। প্রচুর নেতা-কর্মী নগর বিএনপি’র। জেলা বিএনপিও আলাদা কর্মসূচি করছে, তাতে আপত্তি কোথায়? খুলনা বিএনপিতে কোন বিভক্তি নেই। অনেক বড় প্লাটফরম, অনেক নেতা থাকতেই পারেন। দেশ ও জাতির সংকটকালে আমরা সবাই এক।”
এদিকে জেলা বিএনপিতে কোন সাবেক ছাত্র নেতা বা অন্যকোন প্রভাবশালী ব্যক্তির হস্তক্ষেপ নেই দাবি করলেন জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খান। তিনি বলেন, “নগর বিএনপি’র নেতারা চান না, এক সাথে কর্মসূচি পালন করি। সেভাবে তো অনেকদিন থেকেই পৃথকভাবে কর্মসূচি পালন করছি। পৃথক দু’টি বড় ইউনিট আলাদা আলাদা কর্মসূচি পালন করলে তো ভাল! তবে মহানগর ও জেলা বিএনপি’র নেতা-কর্মীদের মধ্যে কোন দ্বন্দ্ব নেই বলে দাবি করেন তিনি।” যদিও সাধারণ সম্পাদকের ঐ বক্তব্যের সাথে একমত নয় জেলার সিনিয়র অনেক নেতা। তাঁদের অভিমত, “দলের এই দুঃসময়ে  ঐক্যবদ্ধভাবে কর্মসূচি পালন করলে ভাল হতো।”
 

বার পঠিত

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ





যশোরে সাংবাদিক নোভার  আত্মহত্যা

যশোরে সাংবাদিক নোভার  আত্মহত্যা

২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:৫৬









ব্রেকিং নিউজ





যশোরে সাংবাদিক নোভার  আত্মহত্যা

যশোরে সাংবাদিক নোভার  আত্মহত্যা

২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:৫৬