খুলনা | বৃহস্পতিবার | ১৬ অগাস্ট ২০১৮ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

৯০ শতাংশ রাস্তা খুঁড়লেও মেরামত মাত্র দুই শতাংশ!

এলজিআরডি মন্ত্রীর কাছে ওয়াসার বিরুদ্ধে অভিযোগ কেসিসি মেয়রের

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০০:৫১:০০

মহানগরীতে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের লক্ষে ওয়াসা পাইপ লাইন স্থাপনে রাস্তার খনন ৯০ শতাংশ করলেও মেরামত হয়েছে দুই শতাংশ। পাইপ লাইন বসানোর সাথে সাথে রাস্তা থেকে প্রাপ্ত খোয়াবালি দিয়ে খননকৃত রাস্তার মাটি ভরাট করায় ডেবে যাচ্ছে। খননকৃত অংশে পানি জমা ছাড়াও ছোট-বড় গর্ত সৃষ্টি হয়ে দুর্ঘটনা ঘটছে। ওয়াসার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ এনে গতকাল মঙ্গলবার এলজিআরডি মন্ত্রীর কাছে অভিযোগ দিয়েছেন খুলনা সিটি মেয়র। 
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, নগরীতে ওয়াসার পাইপ লাইন স্থাপনে রাস্তা খনন এবং পাইপ লাইন স্থাপন ও পুনঃ মেরামতের জন্য ২০১৫ সালের ২১ মে কেসিসি ও ওয়াসার মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। অভিযোগপত্রে আরও বলা হয়েছে ওয়াসার সমঝোতা চুক্তির শর্ত অনুসরণ করছে না। ওয়াসার ছোট ছোট লেন সমূহ ডিস্ট্রিবিউশন লাইন স্থাপনের জন্য রাস্তার একটি অংশ গর্ত করে মেশিনের মাধ্যমে পাইপ বসাচ্ছে। এই পদ্ধতিতে পাইপ বসানোর ফলে রাস্তার সাইড ওয়াল ভেঙেছে, উপরিভাগ ফেটে গেছে, খননকৃত রাস্তার পাশ দিয়ে যানবাহন চলাচল করায় ডেবে গেছে এবং কার্পিটিং রাস্তায় ফাটল দেখা দিয়েছে। 
খুলনা ওয়াসা পানি সরবরাহের জন্য ১৩ কিঃ মিঃ ট্রান্সমিটার পাইপ এবং ৬৪০ কিঃমিঃ ডিস্ট্রিবিউশন পাইপ লাইন স্থাপনের জন্য রাস্তা খনন করবে। ইতিমধ্যেই তাদের ৯০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। পাইপ লাইন বসানোর সাথে সাথে রাস্তা থেকে প্রাপ্ত খোয়া বালি দিয়ে খননকৃত রাস্তা ভরাট করে দীর্ঘদিন ফেলে রাখা হয়েছে। কার্পেটিং দিয়ে মেরামতের কাজ ১২ দশমিক ৮৬ কিঃমিঃ রাস্তা সম্পন্ন হয়েছে। যা খননকৃত রাস্তার দৈর্ঘ্যরে মাত্র ২ শতাংশ। ওয়াসার রাস্তা মেরামতের কাজ যেভাবে চলছে তাতে বর্ষা মৌসুমের আগে মেরামত কাজ শেষ হবে না বলে মেয়র আশঙ্কা করেছেন। গেল বর্ষা মৌসুমে খননকৃত রাস্তায় পানি জমে যায়। শুষ্ক মৌসুমে ধুলাবালির কারণে যান চলাচলে বিঘœ এবং শিশু ও বয়োজ্যেষ্ঠদের শ্বাসকষ্টজনিত অসুখে ভুগতে হচ্ছে। 
গত রবিবার জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় ওয়াসার নির্বাহী পরিচালক জানান, ৬৪০ কিঃ মিঃ পাইপ লাইন বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত ৭৭ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী জুনের মধ্যে কাজ সম্পন্ন হবে বলে তিনি সভাকে অবহিত করেন। সভায় কেসিসি’র পক্ষ থেকে জানানো হয়, রাস্তা খনন করে দীর্ঘদিন ধরে পাইপ বসানোর জন্য যানজটে চলাচল বিঘœ হচ্ছে।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ












হারে শেষ প্রোটিয়াদের লঙ্কা সফর

হারে শেষ প্রোটিয়াদের লঙ্কা সফর

১৬ অগাস্ট, ২০১৮ ০০:৫৭