খুলনা | রবিবার | ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৪ |

Shomoyer Khobor

খালেদা জিয়া কারারুদ্ধ অবস্থাতেও বিভক্তি!

চেয়ারপারসনের মুক্তি আন্দোলনেও পৃথক কর্মসূচি পালন করছে খুলনা বিএনপি

আশরাফুল ইসলাম নূর | প্রকাশিত ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ২২:৫২:০০

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কারারুদ্ধ অবস্থাতেও বিভক্ত খুলনা বিএনপি ঐক্যবদ্ধ হতে না পারায় নেতা-কর্মীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। নগর ও জেলা বিএনপি একই স্থানে পৃথক কর্মসূচি পালনের সাথে গতকাল সোমবার যোগ হয়েছে নগর বিএনপি’র অপর অংশের মানববন্ধন। দলের চরম এ দুঃসময়েও শীর্ষ নেতাদের মধ্যকার দূরত্বে ব্যথিত তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। অহিংস কর্মসূচিতে জনসম্পৃক্ততা ও জনপ্রিয়তা বাড়লেও খুলনা বিএনপি’র শীর্ষ নেতাদের দূরত্ব না কমায় ক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।
দলীয় সূত্রমতে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পাঁচ বছরের সাজার প্রতিবাদে অহিংস ও শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে স্বতঃস্ফূর্ত খুলনা বিএনপি’র নেতা-কর্মী সমর্থকরা। গ্রেফতার আতঙ্ক, পুলিশী হয়রানি ও সহিংসতা এড়িয়ে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে নেতা-কর্মীদের অংশ গ্রহণ প্রতিদিনই বাড়ছে। গত ৮ ফেব্র“য়ারি দুপুরে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ার বিক্ষোভে নগর বিএনপি’র সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জুর সাথে দলীয় কার্যালয়ে অল্প সংখ্যক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন। সে তুলনায় গতকাল বেলা ১১টায় দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন কর্মসূচিটি রূপ নেয় বিশাল সমাবেশে। নগর বিএনপি’র কর্মসূচির পূর্বে একই স্থানে পৃথকভাবে মানববন্ধন করে জেলা বিএনপি। খুলনার নয়টি উপজেলার ৬৮টি ইউনিয়ন, দু’টি পৌরসভা এবং ১৮১ সদস্যের জেলা বিএনপি’র পদ-পদবীধারী নেতারাও কর্মসূচিতে অংশ গ্রহণ করছেন না বলে অভিযোগ ত্যাগী নেতা-কর্মীদের। সে তুলনায় নগর বিএনপি’র উপস্থিতি সন্তোষজনক। তবে অনৈক্যে দূরত্ব বেড়েছে দু’টি সাংগঠনিক কমিটির। জেলা বিএনপি’র মানববন্ধন শেষ হলে গতকাল বেলা ১১টায় শুরু হয় নগরের কর্মসূচি। দুপুর সাড়ে ১২টায় নগর বিএনপি’র সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন শেষ হলে একই স্থানে শুরু হয় আরিফুর রহমান মিঠু’র সভাপতিত্বে অপর অংশের কর্মসূচি। এ সময় সদ্য সমাপ্ত মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী কয়েকজন নেতা-কর্মীকে বলতে শোনা যায়, “বিএনপি চেয়ারপারসন কারারুদ্ধ, অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দল এখন চরম দুঃসময়ে, এ অবস্থাতেও অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব! সত্যি-ই দুঃখজনক। পৃথক কর্মসূচি, একলা চলো নীতির নেতৃত্ব আর অভ্যন্তরীণ কোন্দল পুষে রাখলে আন্দোলন কতটুকু ফলপ্রসু হবে? সে চিন্তায় পড়েছেন নেতা-কর্মীরা।”
তৃণমূল কর্মীর সাথে কথা বলে জানা যায়, “বিএনপি’র অহিংস প্রতিবাদ কর্মসূচির ফলে তৃণমূলে জনপ্রিয়তা ব্যাপক বেড়েছে। এখন শুধু বিএনপি’র পদ-পদবীধারীরা নন, সাধারণ মানুষও সম্পৃক্ত হচ্ছেন কর্মসূচিতে। তবে তারা বিভক্তি দেখতে চায় না!
একাধিক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, “দলের এ দুঃসময়ে সকল বিরোধ ভুলে এক প্লাটফরমে আসা জরুরী। অন্যত্থায় ফলপ্রসু আন্দোলন সম্ভব নয়।” অনুরূপ কথা বলছেন বিএনপিপন্থী পেশাজীবী পরিষদের নেতারাও।
সরেজমিন দেখা গেছে, গত ৮ ফেব্র“য়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রায় ঘোষণার মুহূর্তে নগরীর দলীয় কার্যালয়ের সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন একাই নজরুল ইসলাম মঞ্জু। অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলামের নেতৃত্বে ১৫/১৬ জন নেতা-কর্মী দলীয় কার্যালয়ের সিঁড়িতে বসেছিলেন নির্দেশনার অপেক্ষায়। দীর্ঘক্ষণ এ সীমিত সংখ্যক নেতা-কর্মী বিক্ষোভকালে নগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, যুগ্ম-সম্পাদক তারিকুল ইসলাম ও সহ-দপ্তর সম্পাদক শামসুজ্জামান চঞ্চলসহ কয়েকজনকে আটক করে পুলিশ। পরে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক এবাদুল হক রুবায়েতের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল থানা মোড় পর্যন্ত এলেও পুলিশী বাধার কারণে পৌঁছাতে পারেনি বিক্ষোভস্থলে। এরপর পর জেলা বিএনপি’র নেতা-কর্মীদের দেখা যায়নি নগর বিএনপির কর্মসূচির ধারেপাশে। গত ১০ ফেব্র“য়ারি জেলা বিএনপি’র সভাপতি এড. শফিকুল আলম মনা’র সভাপতিত্বে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কর্মসূচি চলাকালে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে একই স্থানে শুরু হয় নগর বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ।
বিএনপি’র বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও নগর শাখার সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, “বিএনপি দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল; খুলনা মহানগর শাখার তার বৃহত্তম একটি ইউনিট। অনেক বড় সংগঠন; প্রচুর নেতা-কর্মী নগর বিএনপি’র। এতে পৃথক কর্মসূচি পালনে তো কোন সমস্যা দেখছি না। জেলা বিএনপিও আলাদা কর্মসূচি শুরু করেছে, তাতে আপত্তি কোথায়? খুলনা বিএনপিতে কোন বিভক্তি নেই। অনেক বড় প¬াটফরম, অনেক নেতা থাকতেই পারেন। দেশ ও জাতির সংকটকালে আমরা সবাই এক। বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার আন্দোলনে দলের সকল নেতা-কর্মীকে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।”


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ






ভাষা আন্দোলনের দিনগুলি

ভাষা আন্দোলনের দিনগুলি

১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০০:৫০








ব্রেকিং নিউজ






ভাষা আন্দোলনের দিনগুলি

ভাষা আন্দোলনের দিনগুলি

১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০০:৫০