খুলনা | বৃহস্পতিবার | ১৬ অগাস্ট ২০১৮ | ১ ভাদ্র ১৪২৫ |

Shomoyer Khobor

মালদ্বীপের সংকট আরও ঘনীভূত পার্লামেন্ট ভবন সেনা দখলে

খবর প্রতিবেদন | প্রকাশিত ০৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০০:০৬:০০

প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন-এর অভিশংসনের গুঞ্জন চলতে চলতেই মালদ্বীপের পার্লামেন্ট ভবন নিজেদের দখলে নিয়েছে সে দেশের সেনাবাহিনী। বিরোধীরা দাবি করছিলো, প্রেসিডেন্ট সর্বোচ্চ আদালতের আদেশ অমান্য করে দেশকে সংকটের মুখে ঠেলে দিয়েছেন। গুঞ্জন উঠেছিল, তিনি অভিশংসিত হতে যাচ্ছেন। তবে সেনাবাহিনী এবং রাষ্ট্রের শীর্ষ আইন কর্মকতা প্রেসিডেন্টের পক্ষে অবস্থান নেওয়ার ঘোষণা দেন। এক পর্যায়ে বিরোধী জোট শীর্ষ আইন কর্মকর্তা এবং প্রসিকিউটরের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনেন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা  জানিয়েছে, এর কিছুক্ষণের মধ্যে পার্লামেন্ট সিলগালা করে দিয়েছে সেনারা। এদিকে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সরকারি অভিযোগ থেকে নিষ্কৃতি পাওয়া নেতাদের মধ্যে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সাবেক স্পিকার আব্দুল্লাহ শহীদ এবং বিরোধী নেতা মোহাম্মদ সলিহ জানিয়েছেন, দেশটি নিয়মতান্ত্রিক নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। 
ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, তিন দিন আগে সুপ্রিম কোর্ট বিরোধী ৯ নেতার বিরুদ্ধে আনা সরকারের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে তাদেরকে মুক্তির নির্দেশ দেয়। কিন্তু সরকার তাতে মোটেও কর্ণপাত করেনি। মালদ্বীপের সর্বোচ্চ আদালতের আদেশ অমান্য করে অভিশংসনের শঙ্কায় পড়েন সে দেশের প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন। আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে উদ্ধৃত করে আল জাজিরা তাদের পূর্ববর্তী এক প্রতিবেদনে জানায়, সর্বোচ্চ আদালত এজন্য প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনের অভিশংসনে প্রচেষ্টা নিয়েছে। এক পর্যায়ে পদত্যাগ করেন সংসদ সচিবালয়ের সচিব এবং উপ-সচিব।  এর কিছুক্ষণ পরেই সেনাবাহিনী পার্লামেন্টের দখল নিয়ে সিলগালা করে দিল।
মালদ্বীপের সুপ্রিম কোর্ট গত বছর বরখাস্ত হওয়া বিরোধীদের দলের ১২ সংসদ সদস্যকেও পুনর্বহাল করে। এর ফলে বিরোধী দল ৮৫ আসন নিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে গেছে। মালে বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর পুলিশ ইতোমধ্যে বিরোধী দলের দ্ইু সংসদ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে বলে বাহিনীর এক মুখপাত্র আল জাজিরাকে জানিয়েছে। আব্দুল্লাহ সিনান ও ইহাম আহমেদ নামে ওই দুই সংসদ সদস্য আদালতে পুনর্বহাল হওয়া ১২ জনের মধ্যে অন্যতম। সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারাও পদত্যাগ করেছেন। কোনও কারণ ব্যাখ্যা না করে আহমেদ মোহামেদ আল জাজিরাকে বলেন ‘আমি পদত্যাগ করেছি।’ নিসাদ জনগণকে প্রতিবাদ করার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি সেনা ও পুলিশ প্রধানকে গ্রেফতারে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
সুপ্রিম কোর্ট ইয়ামিনকে অভিশংসনের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করার পর এ্যাটর্নি জেনারেল মোহামেদ আনিলকে বরখাস্তের পদক্ষেপ নেওয়া হয়। সেনাবাহিনী ও পুলিশ প্রধানদের দুই পাশে নিয়ে এক টেলিভিশনে তিনি বলেন, আমি সব আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে বলেছি, তাদের এমন অবৈধ নির্দেশ মানা উচিত হবে না। সেনাবাহিনী প্রধান বলেছেন, নিরাপত্তা বাহিনী অনিলের উপদেশ মেনে চলবে। মালদ্বীপের সংকটের মধ্যে পতিত হওয়া বসে থেকে দেখবে না।
 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ


ইতালিতে সেতু  ধসে নিহত ২২

ইতালিতে সেতু  ধসে নিহত ২২

১৫ অগাস্ট, ২০১৮ ০০:১০



শপথ নিলো পাকিস্তানের নতুন সংসদ

শপথ নিলো পাকিস্তানের নতুন সংসদ

১৪ অগাস্ট, ২০১৮ ০০:০৫





ইমরান খানের শপথ  ১৮ আগস্ট

ইমরান খানের শপথ  ১৮ আগস্ট

১২ অগাস্ট, ২০১৮ ০০:১০




ব্রেকিং নিউজ












হারে শেষ প্রোটিয়াদের লঙ্কা সফর

হারে শেষ প্রোটিয়াদের লঙ্কা সফর

১৬ অগাস্ট, ২০১৮ ০০:৫৭