খুলনা | সোমবার | ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৪ |

Shomoyer Khobor

কাঁচা পাট রপ্তানি বন্ধের আদেশ  প্রত্যাহারের দাবি বিজেএ’র 

খবর বিজ্ঞপ্তি | প্রকাশিত ২৩ জানুয়ারী, ২০১৮ ০১:৩২:০০

কাঁচা পাট রপ্তানি বন্ধের আদেশ  প্রত্যাহারের দাবি বিজেএ’র 

কাঁচা পাট রপ্তানি খাতকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য আন-কাট বিটিআর এবং বিডব্লিউআর গ্রেডের কাঁচা পাট রপ্তানি বন্ধের আদেশ প্রত্যাহারের জোর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ জুট এসোসিয়েশনের নেতারা। গতকাল সোমবার এক বিবৃতিতে বিজেএ’র চেয়ারম্যান শেখ সৈয়দ আলী এ দাবি জানান।     
বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক নির্দেশে কাঁচা পাট রপ্তানিকারকদের বিরাজমান সমস্যা সমাধানকল্পে ও তাদের ব্যবসায় ফিরিয়ে আনার লক্ষে অর্থ মন্ত্রণালয় হতে গত বছরের ২৪ এপ্রিল একটি প্রজ্ঞাপন জারী করা হয়। তারই প্রেক্ষিতে বিভিন্ন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে কাঁচা পাট রপ্তানিকারকগণ সবেমাত্র ব্যবসা শুরু করেছেন। এরই মধ্যে আমাদের সাথে কোন প্রকার আলোচনা না করেই হঠাৎ করে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় গত ১৮ জানুয়ারি (সূত্র নং- ২৪.০০.০০০০.১১৯.০৬.০৬১.১৭.০৯) প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে আন-কাট বিটিআর এবং বিডব্লিউআর গ্রেডের কাঁচা পাট রপ্তানি বন্ধের আদেশ জারী করে। এ ধরনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, এই সিদ্ধান্তের কারণে আমরা একদিকে যেমন ব্যবসায়িকভাবে চরম আর্থিক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। অন্যদিকে বৈদেশিক ক্রেতা হারাবে এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন পাট খাতও চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। 
এতে আরো বলা হয়, দেশের সরকারি ও বেসরকারি জুট মিলগুলো পাটের গোড়া কাটার ফলে যে কাটিং বের হয়, সেটা সম্পূর্ণরূপে বিদেশে রপ্তানি করা যায় না। এমনকি দেশের জুট মিলগুলোও সেই কাটিং-এর সম্পূর্ণ অংশ ব্যবহার করতে পারে না। এরপর আমাদের যদি আন-কাট বিটিআর এবং বিডব্লিউআর রপ্তানি না করে সকল পাট গোড়া কেটে রপ্তানি করতে হয়। তখন যে পরিমাণে কাটিং বের হবে, সেই কাটিং বিক্রির কোন জায়গা থাকবে না। আর কাটিং-এর মূল্য হ্রাস পাবে এবং তা অবিক্রিত থাকার ফলে পচন ধরে নষ্ট হবে। এছাড়া এই প্রজ্ঞাপন জারীর পূর্বে আমাদের কাছে যে সমস্ত চুক্তিপত্র ও এলসি আছে সেই অনুযায়ী আন-কাট বিটিআর এবং বিডব্লিউআর রপ্তানি বাধাগ্রস্ত হয়েছে। ফলে বিদেশী ক্রেতাদের সাথে আমাদের ব্যবসায়িক সম্পর্কের অবনতি হয়েছে এবং কয়েক লক্ষ বেল বিটিআর রপ্তানির উদ্দেশ্যে পাকা বেল আকারে গোডাউনে রক্ষিত আছে ও বন্দরে অবস্থান করছে। 
বিবৃতিতে বলা হয় অবিলম্বে আন-কাট বিটিআর এবং বিডব্লিউআর গ্রেডের কাঁচা পাট রপ্তানি বন্ধের আদেশ প্রত্যাহার না করা হলে কাঁচা পাট রপ্তানিকারকরা চরম আকারে আর্থিক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন




আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ